Sylhet Report | সিলেট রিপোর্ট | সিলেট দরগাহ মাদরাসা থেকে মাস্টার্স পরীক্ষা দিচ্ছেন ১৫৮ জন
সোমবার, ১৫ মে ২০১৭ ০৩:০৫ ঘণ্টা

সিলেট দরগাহ মাদরাসা থেকে মাস্টার্স পরীক্ষা দিচ্ছেন ১৫৮ জন

Share Button

সিলেট দরগাহ মাদরাসা থেকে মাস্টার্স পরীক্ষা দিচ্ছেন ১৫৮ জন

মুহাম্মদ রুহুল আমীন নগরী,সিলেট রিপোর্ট:  উৎসব মুখর পরিবেশে প্রথম বারের মতো কওমী শিক্ষার্থীরা মাস্টার্সের (ইসলামিক স্টাডিজ এবং আরবি) সমমানের সনদ পেতে পরীক্ষা দিচ্ছেন। আইনশৃঙ্খলা বাহিনী ছাড়াই সুষ্ঠু পরিবেশে প্রথম দিনে শান্তিপুর্নভাবে পরীক্ষা শেষ হয়েছে। সরকার নিয়ন্ত্রিত ‘ হাইআতুল উল্ইয়া লিল জামিয়াতিল কাওমীয়া বাংলাদেশের অধিনে দাওরায়ে হাদীসের পরীক্ষায় এবছর ১৯ হাজার ৪৭২ অংশ শিক্ষার্থী পরীক্ষা দিচ্ছেন। আজ ১৫ মে একযুগে সারাদেশে ২১৮টি কেন্দ্রে অভিন্ন প্রশ্নপত্রে দাওরায় হাদীসের পরীক্ষাপরীক্ষা হচ্ছে। এরমধ্যে ৯১টি কেন্দ্রে প্রায় ৩ হাজার ৬৬৮ জন ছাত্রী পরীক্ষা দিচ্ছেন। ১০টি বিষয়ে মোট এক হাজার নম্বরের পরীক্ষা দিতে হচ্ছে পরীক্ষার্থীদের। দেশের প্রায় ৭৩৭টি কওমী মাদ্রাসার শিক্ষার্থীরা এ পরীক্ষা দিচ্ছে। সকাল ৯টায় শুরু হওয়া পরীক্ষা চলবে বেলা সাড়ে ১২টা পর্যন্ত। প্রথম দিনে দাওরায় হাদীসের বুখারি শরিফ দ্বিতীয় পত্র পরীক্ষা শেষ হয়েছে। দেশের ৬টি কওমী মাদ্রসা বোর্ডের সমন্বয়ে গঠিত সম্মিলিত কওমী মাদ্রাসা বোর্ড ‘আল-হাইআতুল উলয়া লিল-জামি‘আতিল কওমিয়া বাংলাদেশ’ অধীনে ১৯ হাজার ৪৭২ অংশ শিক্ষার্থী পরীক্ষা দিচ্ছেন।চট্টগ্রামের জামিয়া আহলিয়া দারুল উলুম মুঈনুল ইসলাম হাটহাজারী কেন্দ্রে হাইআতুল উল্ইয়া লিল জামিয়াতিল কাওমিয়া বাংলাদেশের চেয়ারম্যান শাহ আহমদ শফী পরীক্ষার কার্যক্রম আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন।  সিলেট কেন্দ্রকি আজাদ দ্বীনী্এদারা বোর্ডের অধিনে সর্বমোট পরীক্ষার্থী ১১৬০ জন। তন্মধ্যে দরগাহ মাদরাসা পরীক্ষার্থী ১৫৮ জন।

 

 

দেশের অন্যতম ঐতিহ্যবাহী দ্বীনীশিক্ষাপ্রতিষ্ঠান সিলেট নগরীর প্রাণকেন্দ্র হযরত শাহজালাল (র) এর মাজার-মসজিদের সন্নিকটবর্তীস্থানে অবস্থিত জামিয়া কাসিমুল উলুম মাদরাস। প্রতিষ্ঠানটি আজাদ দ্বীনী এদ্বারায়ে তালিম বাংলাদেশের বোর্ডএর অর্ন্তভুক্ত। এবছর এই প্রতিষ্ঠান থেকে ১৫৮ জন ছাত্র পরীক্ষায় অংশ গ্রহন করেছেন। জামেয়ার সহকারী শিক্ষাসচিব মাওলানা আতাউল হক জালালাবাদী সিলেট রিপোর্টকে এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন। এই কেন্দ্রে অন্যকোন প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থী নেই। প্রথম দিনের পরীক্ষায় কোন প্রকার সমস্যা হয়েছে কী না জানতে চাইলে খতীবপুত্র মাওলানা আতাউল হক বলেন, আমাদের কেন্দ্রে কোন প্রকার সমস্যা হয়নি,সুষ্টুভাবেই পরীক্ষা হয়েছে। তবে শনেছি সুনামগঞ্জে পরীক্ষার্থার তুলনায় প্রশ্নপত্র কম এসেছে।’
প্রসঙ্গত,গত ১১ এপ্রিল গণভবনে আনুষ্ঠানিক ভাবে কওমি মাদ্রাসার সনদের স্বীকৃতির ঘোষণা দেন প্রধানমন্ত্রী। এরপর শিক্ষা মন্ত্রণালয় ১৩ এপ্রিল কওমী মাদ্রাসার দাওরায়ে হাদীসের সনদকে মাস্টার্স ইসলামিক স্টাডিজ এবং আরবি এর সমমান ঘোষণা করে গেজেট প্রকাশ করে।

কেন্দ্র পরিচিতি: সিলেট দরগাহ মাদরাসা

প্রতিষ্ঠাকালীন নাম : মাদরাসায়ে তা’লিমুল কুরআন, ১১/০৫/১৯৭৫ ঈসায়ি তারিখে নামকরণ করা হয়- মাদরাসায়ে ক্বাসিমুল উলূম, অত:পর ০৫/০৪/১৯৮৪ ঈসায়ি তারিখে নামকরণ করা হয় জামেয়া ক্বাসিমুল উলূম।)
নামের উৎস : (আমিতো কেবল বন্টনকারী, আল্লাহই জ্ঞান দান করেন। – আল হাদীস )
অবস্থান : দরগাহ শাহজালাল রহ. প্রাঙ্গণ, সিলেট, বাংলাদেশ।
প্রতিষ্ঠাকাল : ২৭/০৫/১৩৮১ হিজরি মোতাবেক ০৭/১১/১৯৬১ ঈসায়ি।
প্রতিষ্ঠাতা : আরিফ বিল্লাহ হাফিজ মাওলানা আকবর আলী রহ. (মৃত্যু : ২০০৫ ঈসায়ি)।
প্রতিষ্ঠায় যাদের অবদান : জামেয়া প্রতিষ্ঠার মূল প্রেরণাদাতা মুফতি মুহাম্মদ শফি রহ. অতঃপর মাজারের মোতাওয়াল্লী এ.জেড. আব্দুল্লাহ চৌধুরী দরগাহ প্রাঙ্গণে জামেয়ার জন্য ভূমি দান করেন। এছাড়াও বিশেষ অবদান রাখেন, সিলেট সরকারী আলিয়া মাদরাসার প্রবীণ শিক্ষক মাওলানা আরশাদ আলী ও মাওলানা সায়্যিদ আলী কাছাড়ী প্রমুখ।
বর্তমান মুহতামিম : মুফতি আবুল কালাম যাকারিয়া
শায়খুল হাদীস ও শিক্ষা সচিব : মুফতি মুহিব্বুল হক্ব গাছবাড়ি
তাকমীল ফিল হাদীসের সূচনা : ১৩৯৫ হিজরি মোতাবেক ১৯৭৫ ঈসায়ি
তাখাসসুস ফিল ফিক্বহি ওয়াল ইফতার সূচনা : ১৪১৬ হিজরি মোতাবেক ১৯৯৬ ঈসায়ি
তাখাসসুস ফি উলূমিল হাদীসের সূচনা : ১৪৩৬ হিজরি মোতাবেক ২০১৫ ঈসায়ি
বিভাগ : সাবাহি মক্তব, হিফজুল কুরআন, দারসে নেজামী (ইবতেদায়ী ১ম শ্রেণী থেকে তাকমীল ফিল হাদীস), তাখাসসুস ফিল ফিক্বহি ওয়াল ইফতা, তাখাসসুস ফি উলূমিল হাদীস, কম্পিউটার বিভাগ।
শাখা : সিলেট ওসমানী আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর সংলগ্ন ধুপাগুলে একটি হিফজ শাখা।
শিক্ষক সংখ্যা : ৩৩ জন কর্মচারী সংখ্যা : ২৫ জন
ছাত্র সংখ্যা : ১০৫৩ জন, ফ্রি বোর্ডিংয়ে : ৭৯৪ জন।
ফুযালা সংখ্যা : দাওরায়ে হাদীস- ১৮৩৩ জন, ইফতা- ১০২ জন, হিফজুল কুরআন- ১০০৯ জন, উলূমুল হাদীস- ২ জন।
ফুযালাদের সংগঠন : আল ক্বাসিম ফুযালা পরিষদ।
বৃত্তি : বিগত ২০১০ ঈসায়ি থেকে প্রতি বছর শতাধিক ছাত্রদেরকে মেধা তালিকায় শীর্ষ হওয়া, সর্বাধিক উপস্থিতি ইত্যাদি বিষয়ে ‘আকবরী বৃত্তি’ নামে একটি বৃত্তি প্রদান করা হয়।
সাময়িকী : মাসিক আল-ক্বাসিম।
অন্যান্য খিদমাত : সমৃদ্ধ কুতুবখানা, মাওলানা আকবর আলী রহ. পাঠাগার, ফতওয়া বিভাগ, গরীব ও এতিমখানা বোর্ডিং, দাওয়াত ও তাবলিগ, জিহাদ ও সংগ্রাম, লেখালেখি, প্রকাশনা ইত্যাদি।
ক্যাম্পাস : দরগাহ মসজিদের দক্ষিণ-পূর্বে শিক্ষাভবন-১, মাজারের উত্তর পার্শ্বে শিক্ষাভবন-২ (দারুল এক্বামা), রাজারগলি-৭৩ ছাত্রাবাস (দারুসসুন্নাহ)।
ভবিষ্যত পরিকল্পনা : ক্বিরাআত ও তাজভীদ, তাখাসসুস ফি উলূমিল কুরআন, তাখাসসুস ফিল আদাবিল আরবি ইত্যাদি বিভাগসমূহ খোলা।
জেনারেল ফান্ডের প্রতিমাসে গড় ব্যয় : ৫৮২৪৭৮/-
মতবখ ফান্ডের প্রতিমাসে গড় ব্যয় : ১০৮৪৪৭১/-
অডিট ব্যবস্থা : বাংলাদেশ সরকার অনুমোদিত অডিট টিম প্রতিবছর অডিট করেন।
যোগাযোগ : ০৮২১-৭১৮৯২২, ০১৭১৮-৯৭৭০০৭
একাউন্ট :প্রাইম ব্যাংক লি. আম্বরখানা শাখা : জেনারেল ফান্ড : ১১৫৩১০৩০০২০০১০ মতবাখ ফান্ড: ১১৫৩১০৩০০২০০১১
পূবালী ব্যাংক লি. দরগাহ গেইট শাখা : জেনারেল ফান্ড : ২৯৩৬৪ মতবাখ ফান্ড: ৬০০।

এই সংবাদটি 1,149 বার পড়া হয়েছে

WP Facebook Auto Publish Powered By : XYZScripts.com