topad
বৃহস্পতিবার, ০৮ জুন ২০১৭ ০২:০৬ ঘণ্টা

পাঁচটি কাজ রোজা বরবাদ করে দেয়

Share Button

পাঁচটি কাজ রোজা বরবাদ করে দেয়

 

মুহাম্মদ রুহুল আমীন নগরী: আজ বৃহস্পতিবার ১২ রমজান ১৪৩৮ হিজরী, মোতাবেক ২৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৪ বাংলা, ৮ জুন ২০১৭ ঈসায়ী। মাগফিরাতের দশকের দ্বিতীয় দিন। নবী করিম সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেছেন, পাঁচটি কাজ রোজাদারের রোজা বরবাদ করে দেয়। যথা: ১. মিথ্যা বলা ২.চোগলখুরী ৩. পেছনে নিন্দাকরা ৪. মিথ্যে কসম করা ৫.কামভাব নিয়ে দৃষ্টিপাত করা। আমরা যেন কেবল ক্ষুধার্থ থেকে সময় অতিবাহিত না করি বরং আমরা যেন সমস্ত অপকর্ম থেকে নিজেকে দূরে রাখি আর উত্তম কর্মগুলোকে পালনে সচেষ্ট হই। আমাদের এই রোজা যেন কেবল মাত্র আল্লাহর সন্তুষ্টির জন্যই হয়। মহান আল্লাহতায়ালা যেন আমাদেরকে পবিত্র রমজানের সমস্ত শর্তাবলী সহকারে রোজা রাখার শক্তি সার্মথ দেন।
রোজা একটি পবিত্র আমানত বিশেষ। কারণ বান্দা রোজা রাখবে একমাত্র রেজায়ে মাওলার উদ্দেশ্যে। কেউ যদি লোক দেখানোর উদ্দেশ্যে রোজার নামে উপবাস থাকে তাহলে তা হবে ফলাফল শুন্য। মিথ্যা বলা,পরনিন্দাকরা, অন্যের হক নষ্টকরা,কারো প্রতি যুলুমকরা এমন কিছু কাজের মাধ্যমে রোজার পবিত্রতা বিনষ্ট হয় অর্থাৎ রোজার আমানতে খেয়ানত হয়। প্রত্যেক রোজাদারকে মুনাফিকী চরিত্র ত্যাগ করতে হবে। আমাদের কারো মধ্যে যদি মুনাফিকী অব্যাস থেকে থাকে তাহলে তা আজ এখন থেকেই তা পরিহার করতে হবে। আল্লাহর খালিস নিয়তে তাওবা করলে তিনি ক্ষমাকরে দেবেন। কারণ ক্ষমা চাওয়ার প্রকৃত সুর্বণ সুযোগ হলো মাহে রমজান।
মুনাফিকের শাস্তি সম্পর্কে পবিত্র কোরআনে ইরশাদ হচ্ছে, ‘‘নিশ্চয়ই মুনাফিকরা জাহান্নামের সর্বনিকৃষ্ট স্তরে থাকবে এবং তাদের জন্য তুমি কখনও কোনো সাহায্যকারী পাবে না।’’ (সুরা নিসা, আয়াত: ১৪৫)
সাহাবী হযরত ‘‘আব্দুল্লাহ ইবনে আমর (রা.) থেকে বর্ণিত নবী করিম সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেছেন, চারটি স্বভাব যার মধ্যে বিদ্যমান সে হচ্ছে খাঁটি মুনাফিক। যার মধ্যে এর কোনো একটি স্বভাব থাকবে তা ত্যাগ না করা পর্যন্ত তার মধ্যে মুনাফিকের একটি স্বভাব থেকে যায়। এগুলো হচ্ছে -১. আমানতের খেয়ানত করে
২. কথা বললে মিথ্যা বলে
৩. অঙ্গীকার করলে ভঙ্গ করে এবং ৪. বিবাদে লিপ্ত হলে অশ্লীলভাবে গালাগালি করে।’’ (বুখারী-২২৫৯, মুসলিম ১/২৫)
আমরা যেন কেবল ক্ষুধার্থ থেকে সময় অতিবাহিত না করি বরং আমরা যেন সমস্ত অপকর্ম থেকে নিজেকে দূরে রাখি আর উত্তম কর্মগুলোকে পালনে সচেষ্ট হই। আমাদের এই রোজা যেন কেবল মাত্র আল্লাহর সন্তুষ্টির জন্যই হয়। মহান আল্লাহতায়ালা যেন আমাদেরকে পবিত্র রমজানের সমস্ত শর্তাবলী সহকারে রোজা রাখার শক্তি সার্মথ দেন। আল্লাহপাক আমাদের সকল কে মুনাফিকি ত্যাগকরে সঠিক ভাবে রোজা আদায়ের তাওফিক দিন। আমীন।#

এই সংবাদটি 1,007 বার পড়া হয়েছে