শুক্রবার, ০৯ জুন ২০১৭ ০৮:০৬ ঘণ্টা

সরকার গঠনে রানির অনুমতি পেলেন থেরেসা

Share Button

সরকার গঠনে রানির অনুমতি পেলেন থেরেসা

ডেস্ক রিপোর্ট:  যুক্তরাজ্যে সাধারণ নির্বাচনে একক সংখ্যাগরিষ্ঠতা পেতে ব্যর্থ হওয়ার পর ডেমক্রেটিক ইউনিয়নিস্ট পার্টিকে (ডিইউপি) সঙ্গে নিয়ে জোট সরকার গঠন করতে যাচ্ছে প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে’রকনজারভেটিভ পার্টি।
স্থানীয় সময় শুক্রবার দুপুরে বাকিংহ্যাম প্যালেসে রানি এলিজাবেথের কাছ থেকে সরকার গড়ার অনুমতি পাওয়ার পর এক বিবৃতিতে এ কথা জানান থেরেসা মে।
অনুমতি চাইতে স্বামীকে সঙ্গে নিয়ে থেরেসা মে দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে বাকিংহ্যাম প্যালেসে যান। সেখানে ১৫ মিনিট সময় কাটানোর পর প্রাসাদ ছেড়ে বেরিয়ে আসেন তারা।
এরপর দুপুর ১টার কিছুক্ষণ পর এক বিবৃতিতে মে বলেন, এই মাত্র আমি রানির কাছে অনুমতি চেয়েছি এবং আমি এখন একটি সরকার গঠন করতে যাচ্ছি, এই সরকার সন্ধিক্ষণে আমাদের দেশকে নিশ্চয়তা দিতে পারবে এবং ব্রিটেনকে সামনের দিকে নেতৃত্ব দেবে।
বিবৃতিতে থেরেসা জানান, তার নতুন সরকার আগামী ১০ দিনের মধ্যে জটিল ব্রেক্সিট আলোচনা শুরু করবে এবং যুক্তরাজ্যকে ইউরোপীয় ইউনিয়ন থেকে বের করে আনার মাধ্যমে ব্রিটিশ জনগণের ইচ্ছার বাস্তবায়ন ঘটাবে।
থেরেসা নেতৃত্বে নতুন সরকার গঠিত হবে তার নেতৃত্বাধীন সংখ্যাগরিষ্ঠ দল কনজারভেটিভ পার্টি এবং ১০ আসনে বিজয়ী ডিইউপির সমন্বয়ে।
বিবৃতি থেরেসা বলেন, হাউজ অব কমন্সে সংখ্যাগরিষ্ঠ হিসেবে নিশ্চিতভাবে সরকারকে নেতৃত্ব দেয়ার বৈধতা ও সামর্থ রয়েছে কনজারভেটিভ এবং ডিইউপির।
জোট শরিক ডিইউপির সঙ্গে কনজারভেটিভ পাটির দীর্ঘ দিনের জোড়ালো বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক রয়েছে বলে বিবৃতিতে উল্লেখ করেন মে।
উল্লেখ্য, যুক্তরাজ্য পার্লামেন্টের ৬৫০টি আসন রয়েছে। সরকার গঠন করতে হলে ৩২৬ আসন প্রয়োজন হয়।
কিন্তু এ পর্যন্ত প্রকাশিত ৬৪৯টি আসনের মধ্যে তেরেসা মে’র কনজারভেটিভ পার্টি ৩১৮ আসন এবং প্রধান প্রতিদ্বন্দ্বী লেবার পার্টি ২৬১ আসন পেয়েছে।
এছাড়া লিবারেল ডেমোক্রেটরা ১২টি, স্কটিশ ন্যাশনাল পার্টি (এসএনপি) ৩৫টি আসন পেয়েছে। ছোট দলগুলো বাকি ১৩ আসন পেয়েছে।
এ ফল প্রকাশের পরই তেরেসা মে’র কনজারভেটিভ পার্টি ১০ আসনে বিজয়ী ডিইউপির সমর্থন নিয়ে জোট সরকার গড়ার ঘোষণা দেয়।

এই সংবাদটি 1,010 বার পড়া হয়েছে