topad
শনিবার, ১০ জুন ২০১৭ ১২:০৬ ঘণ্টা

তাহিরপুরে ছুরিঘাতে কলেজ ছাত্র আহত

Share Button

তাহিরপুরে ছুরিঘাতে কলেজ ছাত্র আহত

তাহিরপুর প্রতিনিধি ::  সুনামগঞ্জের তাহিরপুর উপজেলার বাদাঘাট সরকারি কলেজ ছাত্রলীগ শাখার সভাপতি প্রার্থী স্নাতক দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী তারেক আল মামুনকে ছুরিকাঘাত করার ঘটনায় ৬ জনের নামে হত্যা প্রচেষ্টার অভিযোগে মামলা দায়ের করা হয়েছে।

শুক্রবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে আহতের পিতা আক্তার হোসেন ৬জন কে আসামী করে এই হত্যা চেষ্টার মামলা করেন।

থানায় দায়েরকৃত মামলার আসামীরা হলেন, উপজেলার পৈলনপুর গ্রামের মৃত নূর ইসলামের ছেলে আযহারুল ইসলাম সোহাগ, বাদাঘাট বাজারের নজরুল ইসলাম মানিকের ছেলে রাহাত হায়দার, মল্লিকপুর গ্রামের আবদুল মালিকের ছেলে রাহাতুল ইসলাম, কামড়াবন্দ গ্রামের আবদুল হামিদের ছেলে জহিরুল ইসলাম জহির, পৈলনপুর গ্রামের নূর আলীর ছেলে ফারুক মিয়া ও চরগাঁও গ্রামের তাজুল ইসলামের ছেলে ইকবাল হোসেন।
মামলার বাদী আক্তার হোসেন জানান, তারেক আল মামুন বাদাঘাট সরকারি কলেজের ছাত্রলীগের সভাপতি প্রার্থী হওয়ায় একই কলেজের আযহারুল ইসলাম সোহাগ সহ ৭/ ৮ জন সংঘবদ্ধ হয়ে বাদাঘাট বাজারের বাদাম পট্রিতে তারেক আল মামুন কে আটক করে ধারালো চাপাতি ও ছুরি দিয়ে রওার্থ জখম করে প্রানে মারার চেষ্টা করে।
তাহিরপুর থানার ওসি (তদন্ত) মো. আসাদুজ্জমান হাওলাদার শুক্রবার রাতে বলেন, এ ঘটনায় আহতের পিতা ৬জনকে আসামী করে থানায় এশটি মামলা দায়ের করেছেন ।  আসামীদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।
প্রসঙ্গত, উপজেলার বাদাঘাট সরকারি কলেজ শাখার ছাত্রলীগ সভাপতি প্রার্থী হওয়ায় বৃহস্পতিবার রাতে তারেক আল মামুন নামের ওই কলেজ ছাত্রকে ছুরিকাঘাত করে ফেলে রেখে যায়।  রাতেই আশংকাজনক অবস্থায় তাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়।’ তারেক  বাদাঘাট সরকারি কলেজের স্নাতক দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী এবং বড়দল উত্তর ইউনিয়নের আক্তার হোসেনের ছেলে।’

এই সংবাদটি 1,038 বার পড়া হয়েছে