সোমবার, ১৯ জুন ২০১৭ ০১:০৬ ঘণ্টা

বারাকা এরাবিক লার্নিংয়ের কুইজ ও কুরআন প্রতিযোগিতা সম্পন্ন

Share Button

বারাকা এরাবিক লার্নিংয়ের কুইজ ও কুরআন প্রতিযোগিতা সম্পন্ন

সিলেট রিপোর্ট: সিলেট নগরীর পূর্ব পাঠানটুলায় অবস্থিত বারাকা এরাবিক লার্নিং সেন্টারের ইসলামিক কুইজ ও হিফজুল কুরআন প্রতিযোগিতা সম্পন্ন হয়েছে। রোববার আনুষ্ঠানিকভাবে প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের হাতে পুরস্কার তুলে দেওয়া হয়। দুই গ্রুপে বিজয়ী ৬ প্রতিযোগীকে প্রায় অর্ধ লক্ষ টাকার পুরস্কার প্রদান করা হয়।
বারাকার হলে আয়োজিত এ পুরস্কার বিতরণি অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন বিশিষ্ট ইসলামি চিন্তাবিদ ও মিডিয়া ব্যক্তিত্ব শাহ মোহাম্মদ ওয়ালিউল্লাহ। বারাকা এরাবিক লার্নিং সেন্টারের পরিচালনা পর্ষদের সহসভাপতি আব্দুল্লাহ এ মাসুমের সঞ্চালনায় ও সেন্টারের চেয়ারম্যান ফয়সল আহমদ চৌধুরীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন বারাকা এরাবিক লার্নিং সেন্টারের পরিচালনা পর্ষদের সভাপতি ফাহিম আহমদ চৌধুরী, পর্ষদের সেক্রেটারি আনহার উদ্দিন দোলন, সেন্টারের প্রিন্সিপাল মাওলানা শফিকুর রহমান। অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, রয়েল এডুকেয়ার লিমিটেডের জনসংযোগ কর্মকর্তা ইফতি সিদ্দিকী, বারাকা এরাবিক লার্নিং সেন্টারের শিক্ষক আব্দুল হাসিব ফরাজি, ইয়ামিন চৌধুরী, আবু ইউসুফ, রছর আহমেদ. হেলাল আহমদ, হিফজুর রহমান, শাহ ইলিয়াস আহমদ সাঈদীসহ বারাকার শিক্ষকবৃন্দ, ছাত্র-প্রতিযোগী ও তাদের অভিভাবকবৃন্দ।
অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে শাহ মোহাম্মদ ওয়ালিউল্লাহ বলেন, কুরআন মানবজাতির জীবন বিধান। পরিশীলিত ও উন্নত জীবন গঠনের পথ নির্দেশ পেতে কুরআনকে অনুসরণ করতে হবে। আগামি প্রজন্মকে সুনাগরিক হিসেবে গড়ে তুলতে তাদের কুরআনের নৈতিকতায় বলিয়ান করতে হবে। কুরআনের প্রতি আকর্ষণবোধ থেকেই শিশুদের কোমল মনে কুরআনের নৈতিক শিক্ষা জাগ্রত হবে।
প্রতিযোগিতায় কুইজ এ গ্রুপে বিজয়ী হয়েছেন জাওয়াদ পারভেজ চৌধুরী, তানজিদা বিনতে সোমা, মুহতাসিম আরিয়ান ফাইয়াজ। কুইজ বি গ্রুপে বিজয়ী হয়েছেন সানজিদা বিনতে শামা, ইফফাত পারভেজ চৌধুরী, রাজিত। কুরআন প্রতিযোগিতায় বিজয়ী হয়েছেন জুবায়ের সিদ্দিকী, মামুন সাঈদ ও মাহমুদুল হাসান।

এই সংবাদটি 1,009 বার পড়া হয়েছে