রবিবার, ১২ নভে ২০১৭ ১১:১১ ঘণ্টা

তাবলিগ জামাত সম্পর্কে আলেমগন যা বলেন

Share Button

তাবলিগ জামাত সম্পর্কে আলেমগন যা বলেন

রেজাউল কারীম,সিলেট রিপোর্ট: তাবলিগ জামাতের আমির মাওলানা সাদ এর কতিপয় বির্তকিত কর্মকান্ডে কেন্দ্রীয় মারকাজ দিল্লির নিজামুদ্দিনসহ বিশ্বব্যাপী এর অস্থিরতা ছড়িয়ে পড়েছে। ব্যতিক্রম নয় প্রতিবেশী বাংলাদেশেও । এই অস্থিরতার রেশ কাকরাইলেও তৈরি হয়। ইতোমধ্যে কাকরাইলের তাবলিগি মুরব্বিগণ দু’ভাগে বিভক্ত হয়ে পড়েছেন। উপমহাদেশের বিখ্যাত দীনি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান দারুল উলুম দেওবন্দের পক্ষ থেকে মাওলানা সাদ-এর নিকট তার কতিপয় বক্তব্য ও তাবলিগ জামাতের কার্যক্রম বিষয়ে কিছু ব্যাখ্যা চাওয়া হয়। এ নিয়ে দারুল উলুম দেওবন্দের সঙ্গে তার কয়েক দফা চিঠি বিনিময়ও হয়েছে। তবে দিল্লির সে সংকট এখনো দূর করা সম্ভব হয় নি। এদিকে, সর্বশেষ ১১ নভেম্বর (২০১৭ ) রাজধানীর উত্তরার ১৪ নম্বর সেক্টরের ১১ নম্বর রোডের আয়েশা মসজিদে আলেমদের এক সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় উপস্থিত ছিলেন আল্লামা জুনায়েদ বাবুনগরী, আল্লামা নূর হোসাইন কাসেমী, মুফতি মুহাম্মদ ওয়াক্কাস, মাওলানা আবদুল কুদ্দস, মাওলানা সাজিদুর রহমান, মাওলানা জুনাইদ আল হাবিব,মুফতি হিফজুর রহমান, মাওলানা ওবায়দুল্লাহ ফারুক, মাওলানা উবায়দুর রহমান খান নদভী, আবুল বাশার মুহাম্মদ সাইফুল ইসলাম প্রমুখ। সুত্র মতে, কযৈকজন আলেমের বক্তব্য নিন্মরুপ:
‘তাবলীগ জামাতকে মাওলানা সা’দ থেকে পবিত্র করতে হবে৷ কাকরাইল গুন্ডা মুক্ত করতে হবে৷’
……..আল্লামা মুফতি ওয়াক্কাস৷
আপনারা কে কে চান মাওলানা সা’দ সাহেব কি বাংলাদেশে আসবেন? উপস্থিত উলামাগণের সমস্বরে উচ্চ আওয়াজে একবাক্যে ‘না’৷ তাহলে এটাকে বাংলাভাষায় সহজ অর্থে একশব্দে বলা হয়, ‘অবাঞ্চিত’৷
……….আল্লামা ওলিপুরী৷
‘মাওলানা সা’দকে বাংলার মাটিতে পা রাখতে দেয়া হবেনা৷’
……….মাওলানা জুনায়েদ আল-হাবীব৷
প্রয়োজনে আমি মুন্সিগঞ্জ থেকে ——- জন আলেম উলামা নিয়ে আসবো৷ আপনারা কেউ সাথে থাকলে থাকতে পারেন, না হয় একাই আসবো৷ কাকরাইল থেকে ———– বের করতে হবে৷’
…………পীর সাহেব মধুপুর৷

এই সংবাদটি 1,047 বার পড়া হয়েছে