শুক্রবার, ২২ ডিসে ২০১৭ ০৮:১২ ঘণ্টা

গ্রেফতার এড়াতে যে কৌশল নেয় মুন্নির ঘাতক ইয়াহিয়া

Share Button

গ্রেফতার এড়াতে যে কৌশল নেয় মুন্নির ঘাতক ইয়াহিয়া

 
সিলেট রিপোর্ট: পুলিশসহ আইন শৃংখলা বাহিনীর চোখ ফাঁকি দিতে নানা কৌশলের আশ্রয় নেয় সুনামগঞ্জের দিরাই পৌরসভার স্কুল ছাত্রী হুমায়রা আক্তার মুন্নি হত্যার প্রধান অভিযুক্ত ইয়াহিয়া সরদার।

বৃহস্পতিবার সুনামগঞ্জে পুলিশ সুপার বরকতুল্লাহ জানান, মুন্নিকে হত্যার পর ইয়াহিয়া সরদার সুনামগঞ্জ জেলা থেকে পলায়ন করে। প্রথমে সে ময়মনসিংহ জেলায় যায়। সেখান থেকে ঢাকাতে পলায়ন করে । পরে সেখান থেকে সিলেটও কয়েকবার আসা যাওয়া করে। সে এসব জেলায় আত্মগোপন করার ফন্দি আঁটে।

এদিকে, মোবাইল ফোনের প্রযুক্তি ব্যবহারে ইয়াহিয়া সরদারের অবস্থান সনাক্ত করতে প্রযুক্তির সাহায্য নেওয়া হয়। তার অবস্থান সনাক্ত করার পরও তাকে গ্রেফতার করা সম্ভব হয় নি। সে একে এক পাঁচটি মোবাইল সিম পরিবর্তন করে। মোবাইল সিমগুলির কোন রেজিস্ট্রেশন নাম্বারও ছিল না। ধৃত ইয়াহিয়া সিলেট নগরীর শাহজালাল(র.) মাজারেও অবস্থান করে। তার অবস্থান সনাক্ত করা হলেও গ্রেফতার করা সম্ভব হয়নি। প্রযুক্তির সহায়তায় তাকে সিলেট সদর উপজেলার দর্শা গ্রাম থেকে গ্রেফতার করা হয়।

প্রসঙ্গত, গত ১৬ ডিসেম্বর রাতে প্রেমে প্রত্যাখান হয়ে এস এস সি পরীক্ষার্থী হুমায়রা আক্তার মুন্নিকে ছুরা দিয়ে উপর্যুপরি আঘাত করে ইয়াহিয়া সরদার নাম এক বখাটে। আহত অবস্থায় হাসপাতালের পথে মারা যায় মুন্নি। এতে ইয়াহিয়া সরদার ও তানভীর নামের দুই যুবককে আসামী করে দিরাই থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন মুন্নির মা।

এই সংবাদটি 1,672 বার পড়া হয়েছে