মঙ্গলবার, ২৩ জানু ২০১৮ ১১:০১ ঘণ্টা

মালয়েশিয়ায় জকিগঞ্জের আখলাকের সম্মাননা

Share Button

মালয়েশিয়ায় জকিগঞ্জের আখলাকের সম্মাননা

 
সিলেট রিপোর্ট: জকিগঞ্জ প্রেস ক্লাবের প্রতিষ্ঠfতা সভাপতি, পৌর এলাকার কেছরী গ্রামের মরহুম আব্দুল মালিক আরিফের ছেলে আখলাক আহমদ আরিফ মালয়েশিয়ায় সাফল্য অর্জন করেছে।

মালয়েশিয়ায় ওয়েসিস কলেজের তৃতীয় সমাবর্তন অনুষ্ঠান ইউনিভার্সিটি মালায়ার প্রধান অডিটিরিয়ামে অনুষ্ঠিত হয়। এবারের সমাবর্তনে ৪৪ জন শিক্ষার্থীর মধ্যে বিভিন্ন দেশের সঙ্গে ছিলেন পাঁচ বাংলাদেশীও ছিলেন। রবিবার স্থানীয় সময় সকাল ৯ টা থেকে ১২ টা পর্যন্ত চলে এ অনুষ্ঠান। সমাবর্তনের এ অনুষ্ঠানে মধ্যমনি হিসাবে ছিলেন ওয়েসিস কলেজের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান তান শ্রী দাতু এনজি টেক ফং। ছিলেন ইউকেএম বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক ভিসি প্রফেসর ইমিরিটাস তান শ্রী দাতু ডক্টর মো: সালেহ বিন মোহাম্মদ ইয়াসিন, আন্তর্জাতিক ইসলামি বিশ্ববিদ্যালয়ের এ্যাসোসিয়েট প্রফেসর ড. ওসমান আব্দুল্লাহ, তানশ্রী ড. হাজি ইয়াহিয়া ইব্রাহিম, ওয়েসিস কলেজের প্রিন্সিপাল মিস ওলিভিয়াসহ অনেকে। কলেজটি চার’শতাধিক শিক্ষার্থীর মধ্য থেকে এ বছর ৪৪ জন গ্রাজুয়েশনকে সমাবর্তন দেয়া হয় যার মধ্যে পাঁচ বাংলাদেশীও রয়েছে। কৃতিত্বের সঙ্গে বিবিএ সম্পন্ন করায় বাংলাদেশীদের মধ্যে তিন জনকে বিশেষভাবে সম্মানিত করেছে কলেজ কতৃপক্ষ এরা হলেন আখলাক আহমদ আরিফ সহ নোয়াখালির শাকিল নুর, ও টঙ্গী গাজীপুরের ইউসুফ হোসেইন।

এই সংবাদটি 1,025 বার পড়া হয়েছে

পরমানু শক্তিধর দেশ পকিস্তান বিশ্বের সন্ত্রাসবাদ নির্মূলে ইসলামি দেশগুলোর সেনাবাহিনীকে প্রশিক্ষণ দেয়ার ইচ্ছা প্রকাশ করেছে। সৌদি আরবের উদ্যোগে মুসলিম সামরিক জোটভুক্ত দেশগুলোর সেনাদের এই প্রশিক্ষণ দেয়া হবে।বাংলাদেশও এই জোটের অন্তর্ভুক্ত।  পাকিস্তান সেনাবাহিনীর পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, এসব দেশের সামরিক বাহিনীকে আধুনিক প্রশিক্ষণ, প্রযুক্তিগত সহায়তা ও প্রয়োজনীয় সামগ্রী সরবরাহ করবে দেশটি। জাতীয় নিরাপত্তা নীতির মতো বিষয়গুলোতেও সহায়তা দেবে পাকিস্তান। সামরিক কর্মকর্তাদের সাথে কথা বলার পরই এ বিষয়ে পাক প্রধানমন্ত্রী অনুমোদন দেবেন।  ইসলামি সামরিক জোটের ভূমিকা নিয়ে ইতোমধ্যে বিস্তারিত কথা বলেছে পাকিস্তান ও সৌদি আরব। সম্প্রতি জোটকে এগিয়ে নিতে পাকিস্তানকে অনুরোধও করেছে সৌদি প্রশাসন। এখানে পাক প্রশাসনের ভূমিকাকে গুরুত্বপূর্ণ হিসেবে দেখা হচ্ছে।  পাকিস্তানের কেন্দ্রীয় সরকার সূত্র জানিয়েছে, দুই ভ্রাতৃপ্রতীম দেশের মধ্যে সম্পর্ক আরো ঘনিষ্ঠ হয়েছে। কূটনৈতিক পর্যায়ে সৌদি আরব ও ইরানের মধ্যে উত্তেজনা কমিয়ে আনতেও কাজ করেছে পাকিস্তান। দেশটি এক্ষেত্রে তার ভূমিকা অব্যাহত রেখেছে।  সৌদি আরবের পক্ষ থেকেও বলা হয়েছে, যেকোনো সংকটপূর্ণ সময়ে তারা পাকিস্তানের পক্ষে দাঁড়াবে। পবিত্র কাবা শরিফসহ সৌদি আরবের অভ্যন্তরীণ নিরাপত্তায় সম্ভাব্য সব সহায়তা দেয়ার কথা জানিয়েছে পাক প্রশাসন।  ইসলামি সামরিক জোটভুক্ত দেশগুলোর নিরাপত্তা দিতে সমন্বিত একটি নীতি প্রণয়নের ব্যাপারেও একমত দুই দেশ। স্থল, নৌ ও আকাশ- সবক্ষেত্রে এই নীতি প্রণয়ন করা হবে বলে আশ্বাস দিয়েছে দেশটি। সূত্র: দ্য এক্সপ্রেস ট্রিবিউন
পরমানু শক্তিধর দেশ পকিস্তান বিশ্বের সন্ত্রাসবাদ নির্মূলে ইসলামি দেশগুলোর সেনাবাহিনীকে প্রশিক্ষণ দেয়ার ইচ্ছা প্রকাশ করেছে। সৌদি আরবের উদ্যোগে মুসলিম সামরিক জোটভুক্ত দেশগুলোর সেনাদের এই প্রশিক্ষণ দেয়া হবে।বাংলাদেশও এই জোটের অন্তর্ভুক্ত। পাকিস্তান সেনাবাহিনীর পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, এসব দেশের সামরিক বাহিনীকে আধুনিক প্রশিক্ষণ, প্রযুক্তিগত সহায়তা ও প্রয়োজনীয় সামগ্রী সরবরাহ করবে দেশটি। জাতীয় নিরাপত্তা নীতির মতো বিষয়গুলোতেও সহায়তা দেবে পাকিস্তান। সামরিক কর্মকর্তাদের সাথে কথা বলার পরই এ বিষয়ে পাক প্রধানমন্ত্রী অনুমোদন দেবেন। ইসলামি সামরিক জোটের ভূমিকা নিয়ে ইতোমধ্যে বিস্তারিত কথা বলেছে পাকিস্তান ও সৌদি আরব। সম্প্রতি জোটকে এগিয়ে নিতে পাকিস্তানকে অনুরোধও করেছে সৌদি প্রশাসন। এখানে পাক প্রশাসনের ভূমিকাকে গুরুত্বপূর্ণ হিসেবে দেখা হচ্ছে। পাকিস্তানের কেন্দ্রীয় সরকার সূত্র জানিয়েছে, দুই ভ্রাতৃপ্রতীম দেশের মধ্যে সম্পর্ক আরো ঘনিষ্ঠ হয়েছে। কূটনৈতিক পর্যায়ে সৌদি আরব ও ইরানের মধ্যে উত্তেজনা কমিয়ে আনতেও কাজ করেছে পাকিস্তান। দেশটি এক্ষেত্রে তার ভূমিকা অব্যাহত রেখেছে। সৌদি আরবের পক্ষ থেকেও বলা হয়েছে, যেকোনো সংকটপূর্ণ সময়ে তারা পাকিস্তানের পক্ষে দাঁড়াবে। পবিত্র কাবা শরিফসহ সৌদি আরবের অভ্যন্তরীণ নিরাপত্তায় সম্ভাব্য সব সহায়তা দেয়ার কথা জানিয়েছে পাক প্রশাসন। ইসলামি সামরিক জোটভুক্ত দেশগুলোর নিরাপত্তা দিতে সমন্বিত একটি নীতি প্রণয়নের ব্যাপারেও একমত দুই দেশ। স্থল, নৌ ও আকাশ- সবক্ষেত্রে এই নীতি প্রণয়ন করা হবে বলে আশ্বাস দিয়েছে দেশটি। সূত্র: দ্য এক্সপ্রেস ট্রিবিউন