Sylhet Report | সিলেট রিপোর্ট | দেওবন্দ পরিচালকের জামিয়া মাদানিয়া বারিধারা পরিদর্শন
বুধবার, ১৪ ফেব্রু ২০১৮ ১১:০২ ঘণ্টা

দেওবন্দ পরিচালকের জামিয়া মাদানিয়া বারিধারা পরিদর্শন

Share Button

দেওবন্দ পরিচালকের জামিয়া মাদানিয়া বারিধারা পরিদর্শন

 বারিধারা প্রতিনিধি:বিশ্ববিখ্যাত ইসলামী শিক্ষাকেন্দ্র উম্মুল মাদারিসখ্যাত ভারতের দারুল উলূম দেওবন্দের মুহতামিম আল্লামা আবুল কাসেম নোমানী জামিয়া মাদানিয়া বারিধারা পরিদর্শন করেছেন। গতকাল (১৩ ফেব্রুয়ারী) মঙ্গলবার ভোর সাড়ে ৬টায় তিনি জামিয়া মাদানিয়া বারিধারায় প্রবেশ করলে প্রতিষ্ঠানটির শায়খুল হাদীস মাওলানা উবায়দুল্লাহ ফারুক ও সহকারী পরিচালক মাওলানা হাফেজ নাজমুল হাসান দারুল উলূম দেওবন্দের মুহতামিমকে আন্তরিক অভ্যর্থনা জানান।

এরপর আল্লামা আল্লামা আবুল কাসেম নোমানী জামিয়া পরিচালকের কার্যালয়ে গেলে তাঁকে আন্তরিকভাবে স্বাগতঃ জানান জামিয়া মাদানিয়া বারিধারার পরিচালক ও জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম বাংলাদেশ এর মহাসচিব আল্লামা নূর হোসাইন কাসেমী। এ সময় উভয় শীর্ষ আলেম পরস্পর সালাম, মুসাফাহা ও মুয়ানাকা করেন। পরস্পর কুশল বিনিময় শেষে ভারত ও বাংলাদেশের মাদ্রাসা শিক্ষার সম্ভাবনা ও সংকট নিয়ে পরস্পর মতবিনিময় করেন। উভয় শীর্ষ আলেম ইসলাম ও মুসলিম স্বার্থ সংশ্লিষ্ট বিষয়েও কথা বলেন।

আল্লামা আবুল কাসেম নোমানী বিশ্বব্যাপী ইসলাম ও মুসলমানদের বিরুদ্ধে নানান মিথ্যাচার ও ঘৃণা প্রচারের মোকাবেলাকে মুসলমানদের জন্য সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ উল্লেখ করে বলেন, হুটহাট রক্ত গরম না করে অত্যন্ত বুদ্ধিমত্তা ও সুস্থিরতার সাথে এই সংকটের মোকাবেলা করতে হবে। তিনি বলেন, মুসলমানদের হাতে শক্তিশালী কোন প্রচারযন্ত্র বা মিডিয়া নেই। বর্তমানে দ্বীনি বিষয়ে বাতিলের মোকাবিলা করতে এটা আমাদের বড় সংকট।

এ সময় আল্লামা নূর হোসাইন কাসেমী বলেন, ইসলাম বিদ্বেষী নাস্তিক্যবাদি অপশক্তি ও বাম স্যেকুলাররা একদিকে মুসলমানদের বিরুদ্ধে নানান কুৎসা রটাতে তৎপর, অন্যদিকে ভোগবিলাসিতার ছড়াছড়ি ও সাংস্কৃতিক আগ্রাসনের মাধ্যমে মুসলমানদের ঈমান-আক্বীদা ধ্বংস করে দিতে চাচ্ছে। তারা মুসলমানদের মধ্যে বিভিন্ন রূপ ও পরিচয়ে বিভেদের দেয়াল খাড়া করতে জোর তৎপরতা চালাচ্ছে। উলামায়ে কেরামের মধ্যেও বিভ্রান্তি ছড়াতে চায়। এসব বিষয়ে আলেম এবং সাধারণ মুসলমানদেরকে অত্যন্ত সতর্ক ও সচেতন থাকতে হবে।

আলোচনায় উপস্থিত ছিলেন জামিয়া মাদানিয়া বারিধারার শায়খুল হাদীস মাওলানা উবায়দুল্লাহ ফারুক, সহকারী পরিচালক মাওলানা হাফেজ নাজমুল হাসান, মুফতী ইকবাল হোসাইন, মাওলানা আবু সালেহ, মুফতী আল-আমীন কাসেমী, মাওলানা হাবীবুল্লাহ ইসলামপুরী, মাওলানা জয়নুল আবেদীন, মাওলানা আবু হানীফ, মাওলানা হাসসান মাহমুদ, মাওলানা ইয়াসীন প্রমুখ।

প্রায় আধ ঘণ্টা ব্যাপী উভয় নেতা বৈঠক করেন। এরপর আল্লামা আবুল কাসেম নোমানী আল্লামা নূর হোসাইন কাসেমী জামিয়ার মুফতী, মুহাদ্দিস ও শিক্ষকদের সাথে সকালের নাস্তায় শরীক হন। নাস্তা শেষে দেওবন্দের মুহতামিম জামিয়া মাদানিয়া বারিধারার জামে মসজিদে ছাত্রদের উদ্দেশ্যে হিদায়াতী বয়ান পেশ করেন।

সকাল সাড়ে ৮টায় দেওবন্দ মুহতামিম আল্লামা নূর হোসাইন কাসেমী’র কাছ থেকে বিদায় নিয়ে জামিয়া মাদানিয়া বারিধারা ত্যাগ করেন। এ সময় জামিয়ার শিক্ষক-ছাত্রগণ হাত নেড়ে তাঁকে আন্তরিকভাবে বিদায় জানান।

Image may contain: 1 person, text

এই সংবাদটি 1,088 বার পড়া হয়েছে

WP Facebook Auto Publish Powered By : XYZScripts.com