বৃহস্পতিবার, ১২ এপ্রি ২০১৮ ১১:০৪ ঘণ্টা

বর্ষবরণে মাদ্রাসায় মঙ্গল শোভাযাত্রার নির্দেশ

Share Button

বর্ষবরণে মাদ্রাসায় মঙ্গল শোভাযাত্রার নির্দেশ

ডেস্ক রিপোর্ট: ১৪ এপ্রিল শনিবার বাংলা নববর্ষ। দেশের সকল স্কুল-কলেজ ও মাদ্রাসারে মঙ্গল শোভাযাত্রা পালনের নির্দেশ দিয়েছে মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তর (মাউশি) এবং মাদ্রাসা শিক্ষা অধিদপ্তর। পৃথক দুই আদেশের মাধ্যমে তারা এই নির্দেশ দেয়। মঙ্গল শোভাযাত্রা বিশ্ব ঐতিহ্য হিসেবে স্বীকৃতি পাওয়ায় গত বছর থেকে বর্ষবরণের আয়োজনে এ শোভাযাত্রা শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানেও বাধ্যতামূলক করা হয়েছে।
গত ১১ এপ্রিল বুধবার মাউশি অধিদপ্তরের পরিচালক (কলেজ ও প্রশাসন) অধ্যাপক মোহাম্মদ শামছুল হুদা স্বাক্ষরিত এক আদেশে এই মঙ্গল শোভাযাত্রা পালনের নির্দেশ দেওয়া হয়। আর মাদ্রাসা শিক্ষা অধিদপ্তরের সহকারি পরিচালক (প্রশাসন) মো. শাহীনুল ইসলাম স্বাক্ষরিত আরেক আদেশে একই নির্দেশ দেওয়া হয়। তবে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে এই নির্দেশনা পৌছেছে গত বুধবার।
তবে হঠাৎ করে এই মঙ্গল শোভাযাত্রা পালনের নির্দেশে অনেকটাই সমস্যায় পড়েছেন প্রতিষ্ঠান প্রধানরা। কারন বৃহস্পতিবার থেকে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে বৈশাখের ছুটি শুরু। এই ছুটি থাকবে রবিবার পর্যন্ত। আগামী সোমবার শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলবে।
নাম প্রকাশ না করে রাজধানীর একটি স্কুল অ্যান্ড কলেজের অধ্যক্ষ এডুকেশন বাংলাকে বলেন, ‘আমরা আগে থেকেই চিন্তায় ছিলাম এবার আমাদের মঙ্গল শোভাযাত্রা পালন করতে হবে কীনা? বুধবার দুপুরের পর আদেশ পেলাম। মর্নিং শিফট ছুটি হয়ে গেছে। চার দিন ছুটি থাকায় বেশিরভাগ শিক্ষক-শিক্ষার্থী বাড়িতে বা দূরে কোথায়ও বেড়াতে যাওয়ার পরিকল্পনা করেছে। এখন মঙ্গল শোভাযাত্রার জন্য আমি লোক পাবো কোথায়?
রাজধানীর আরেকটি স্কুলের শিক্ষক বলেন, ‘সবসময়ই মাউশি অধিদপ্তর হঠাৎ হঠাৎ নির্দেশ জারি করে। বর্ষবরনের মঙ্গল শোভাযাত্রা করতে হবে, এটা আগে থেকেই জানা। তাহলে কয়েকদিন আগে কেন তারা আদেশ জারি করে না। যে কোনো অনুষ্ঠানেই আমরা যদি চার-পাঁচদিন সময় পাই তাহলে সুন্দরভাবে আয়োজন করতে পারি।’
মাউশি ও মাদ্রাসা অধিদপ্তরের নির্দেশনায় বলা হয়, বাংলা নববর্ষ ১৪২৫ উদযাপন উপলক্ষ্যে সকল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান নিজস্ব ব্যবস্থাপনায় উৎসবমুখর পরিবেশে ও যথাযথ আড়ম্বরে বাংলা নববর্ষ উদযাপন করবে। ইউনেস্কো কর্তৃক মঙ্গল শোভাযাত্রা’কে বিশ্ব ঐতিহ্যের তালিকাভুক্ত করায় বিষয়টি গুরুত্বসহ উদযাপনের নির্দেশ দেওয়া হলো।

এই সংবাদটি 1,122 বার পড়া হয়েছে