রবিবার, ০৮ জুলা ২০১৮ ০৩:০৭ ঘণ্টা

শান্তিতে নোবেল দিলে শেখ হাসিনার নাম থাকবে এক নাম্বারে : সাদত জুয়েল

Share Button

শান্তিতে নোবেল দিলে শেখ হাসিনার নাম থাকবে এক নাম্বারে : সাদত জুয়েল

মিশিগান ষ্টেট আওয়ামী লীগ আয়োজিত সেন্ট্রাল ফ্লোরিডা মহানগর আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারন সম্পাদক সাংবাদিক গোলাম সাদত জুয়েল’র সাথে এক মতবিনিময় সভা সম্প্রতি  মিশিগান ষ্টেট আওয়ামী লীগের অস্থায়ী কার্যালয়ে অনুষ্টি হয়।

সভায় জুয়েল বলেন, বাংলাদেশ মধ্যম আয়ের দেশের দ্বারপ্রান্তে।বাংলাদেশ আজ বিশ্বের কাছে অনুকরনীয়। বিশ্বে শরনার্থী ধারনে বাংলাদেশ এক নাম্বারে।

মিশিগান ষ্টেট আওয়ামী লীগের সভাপতি ফারুক আহমদ চানর সভাপিত্বে ও সাধারন সম্পাদক কাউন্সিলম্যান আবু আহমদ মুসার পরিচালনায় তিনি আরও বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকারে গত প্রায় দশ বছরের যুগান্তকারী উন্নয়ন বিশ্বের অনেক দেশের কাছে অনুকরনীয়। বিশেষ করে রোহিংগাদের সমস্যা নিরসনে ও সীমান্ত খুলে দেয়ার নীতি বিশ্বের কাছে আজ বাংলাদেশ একটি মানবিক দেশ হিসাবে স্বীকৃত। শান্তিতে যদি নিরপেক্ষভাবে কাউকে নোবেল দিতে হয় তাহলে শেখ হাসিনার নাম থাকবে এক নাম্বারে।

একটি দেশ সুন্দর নেতৃত্বে কত কম সময়ে ঘুরে দাড়াতে পারে তার নাম বাংলাদেশ। মন্ত্রী এমপি কারও বিরুদ্ধে কোন অভিযোগ নাই, কিছু বিভ্রান্তীকর নিউজ কিছু অসাধু সাংবাদিকরা প্রচার করে সরকারের অগ্রগতি প্রশ্নবিদ্ব করতে চায়। কিন্তু তা সরকারের উন্নয়ন কর্মকান্ডকে বাধাগ্রস্থ করতে পারে না।

বঙ্গবন্ধু গবেষনা সংসদ কেন্দ্রীয় কমিটির আন্তজাতিক সম্পাদক গোলাম সাদত জুয়েল বলেন, বঙ্গবন্ধু নিয়ে আজ আন্তজাতিক ক্ষেত্রে গবেষনা হচেছ। ৭ ই মার্চ এর ভাষন আজ স্বীকৃতিপ্রাপ্ত। মিশিগান আমেরিকার আওয়ামী সংগঠন এর একটি শক্তিশালি সংগঠন। আগামীতে ইউ এস আওয়ামী লীগের নেতৃত্ব মিশিগান থেকে আসবে উল্লেখ করে তিনি সকল আওয়ামী লীগ এর সদস্যদেরে চান ভাই ও মুসা ভাই য়ের নেতৃত্বে। এক হয়ে কাজ করার আহবান জানান। তিনি আরও উল্লেখ করেন, শেখ হাসিনাই স্যাটেলাইট যুগে বাংলাদেশকে নিয়ে গেছেন, আমরা এই মহান নেতার দীঘায়ু কামনা করি। তিনি যেন আমৃত্য দেশ সেবার সুযোগ পান।

আপনারা যেনে রাখুন, বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট ২ এর চিন্তা নিয়ে শেখ হাসিনা এগুচেছন। বাংলাদেশের স্মাট কাড বিশ্বের অনেক দেশের কাছে অনুকরনীয়। এমনটি আমেরিকার ষ্টেট আই ডি থেকেও উন্নত। বাংলাদেশ কোথায় অবস্থান করছে অনেকের ধারনা নেই উল্লেখ করে তিনি বলেন, আজ শেখ হাসিনার বিরোধীরাও স্বীকার করেন বাংলাদেশ অনেক এগিয়েছে।

আরও বক্তব্য রাখেন আওয়ামী লীগ নেতা নজরুল ইসলাম, নুরুল ইসলাম মানিক, আলফু কামালি, রাব্বি, মোরশেদ আহমদ, শফিকুল ইসলাম, সাহেদ আহমদ, সোলেমান, খালেদ হোসেন, আব্দুল মুকিত, মুছতাক আহমদ, জামাল খান, তারেক আহমদ, সুলতান জে শরিফ প্রমুখ।

রাত বারটায় আওয়ামী লীগের ৭৬তম প্রতিষ্টাবাষিকীর কেক কাটা হয়। সভাপতি ফারুক আহমদ চান, আবু আহমেদ মুসা, সাংবাদিক ও আওয়ামীলীগ নেতা গোলাম সাদত জুয়েল, আলফু কামালী, মোরশেদ আহমদ নেতাকর্মীদের নিয়ে কেক কাটেন।

এই সংবাদটি 1,024 বার পড়া হয়েছে