সোমবার, ১৬ জুলা ২০১৮ ০৬:০৭ ঘণ্টা

কাতার জমিয়তের খাস কমিটির বৈঠক সম্পন্ন

Share Button

কাতার জমিয়তের খাস কমিটির বৈঠক সম্পন্ন

জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম কাতার শাখা-এর সার্বিক কার্যক্রমের উন্নতি এবং অগ্রগতির ধারাবাহিকতার অংশ হিসেবে গত ১৪ জুলাই শনিবার বাদ ইশা এক গুরুত্বপূর্ণ বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়।

সবজি মার্কেট জামে মসজিদের ইমাম ও খতিব হাফেজ খালিদ সাইফুল্লাহ’র বাস ভবনে অনুষ্ঠিত বৈঠকে সভাপতিত্ব করেন কাতার জমিয়তের সভাপতি হাফেজ মাওলানা জসিম উদ্দীন।

সম্পাদক মাওলানা আবদুশ শহীদের পরিচালনায় এবং হাফেজ মাওলানা মাহমুদ মাজহারীর তেলাওয়াতে কালামুল্লাহের মাধ্যমে বৈঠক শুরু হলে এতে সুনির্দিষ্ট কিছু এজেন্ডার উপর উপস্থিত সবাই যার যার অভিমত ব্যক্ত করলে সম্মিলিত পরামর্শের ভিত্তিতে কিছু গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়।

বৈঠকের এজেন্ডাসমুহ

১. কেন্দ্রীয় কমিটির উপদেষ্টা পরিষদকে শক্তিশালী করা।
২. কার্যক্রমকে আরও গতিশীল করার উপায় উদ্ভাবন।
৩. স্থানে স্থানে শাখা কমিটি গঠন সংক্রান্ত তৎপরতা।
৪. কেন্দ্রসহ প্রতিটি শাখা কমিটির মাসিক চাঁদা নির্ধারণ।

সিন্ধান্তাবলী: ১. কেন্দ্রীয় কমিটির উপদেষ্টা পরিষদে যাদের জমিয়তের নামে কাজ করতে ব্যক্তিগত উজর আপত্তি থাকবে তাদের পরিবর্তে বিশেষ পর্যবেক্ষনের মাধ্যমে এমন কিছু লোক যোগ করা যাদের জমিয়তের প্রতি আগ্রহ উৎসাহ, উদ্দীপনা আছে এবং সরাসরি ভিন্ন কোনো সংস্থা বা সংগঠনের সাথে জোরাল কোন সম্পৃক্ততা নেই।

এর জন্য আগামী এক সপ্তাহ সময় সীমা বেধে দিয়ে কেন্দ্রীয় সভাপতি হাফেজ মাওলানা জসিম উদ্দীন, সাধারণ সম্পাদক মাওলানা আবদুশ শহিদ এবং হাফেজ খালিদ সাইফুল্লাহকে দায়িত্ব দেয়া হয়।

২. (ক) দলীয় কার্যক্রমের কারগুজারী এবং অগ্রগতির লক্ষে সভাপতি, সাধারণ সম্পাদকসহ প্রেসিডিয়াম এবং সম্পাদকমণ্ডলীর প্রতি সদস্যদের যথা সম্ভব ঘন ঘন বৈঠক করা এবং প্রতি মাসের দ্বিতীয় শুক্রবার পূর্ন কমিটির বৈঠক হওয়া।

(খ) আগামীতে তিন বছর মেয়াদী একটি শক্তিশালী কেন্দ্রীয় কমিটি গঠনের সহায়ক ভূমিকা পালনের লক্ষ্যে আগত কুরবানীর ঈদের পুর্বেই খাস কমিটির প্রতিজন সদস্য কমপক্ষে ১০জন করে দলীয় কাজের জন্য উদ্যমী, যোগ্য, ত্যাগী কর্মী গঠন করা, চাই তা চলমান কমিটি থেকে হোক বা কমিটির বাইরে থেকে।

 

৩. আগামী ছয় মাসের ভিতরই সীমানা নির্ধারণ করত কাতারের প্রতিটি এলাকায় শাখা কমিটি গঠন করা। এর জন্য প্রতি ১৫ দিন পরপর খাস কমিটির তিন থেকে পাঁচ জন সদস্য টার্গেট পুর্বক এলাকা ভিত্তিক সফর করা।

৪. কেন্দ্রীয় কমিটির সকল সদস্য প্রতি ২০ রেয়াল ও প্রতিটি শাখা কমিটির সদস্য প্রতি ১৫ রিয়াল করে মাসিক চাঁদা ধার্য্য করা হয়েছে এবং তা আগামী মাস হতে কার্যকর করার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, প্রতি শাখা কমিটির সভাপতি এবং সেক্রেটারী কেদ্রীয় কমিটির আওতাভুক্ত থাকবেন।

৫. আগামী কোরবানীর ঈদের পরের বৃহস্পতিবার বাদ এশা সবজী মার্কেট জামে মসজিদ মিলনায়তন ঈদ পুনর্মিলনী ও কার্যক্রম তদারকী বৈঠক ব্যাপারে প্রাথমিক সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়।

খাস কমিটির সদস্য যারা-
১. হাফেজ মাওলানা জসিম উদ্দীন
২. আবু আফিফা মাওলানা আতিকুর রাহমান
৩. মাওলানা আবদুশ শহীদ
৪. হাফেজ খালিদ সাইফুল্লাহ
৫. মাওলানা আবুল কাসেম কাসেমী
৬. মাওলানা আবদুল মতিন
৭. মাওলানা শাব্বির আহমদ
৮. হাফেজ মাওলানা মাহমুদ মাজহারী
৯. এম আবু বকর সা’দী
১০. মাওলানা রুহুল আমীন
১১. হাফেজ আনোয়ার হোসাইন
১২. মাওলানা ইকবাল হোসেন

পরিশেষে সভাপতির দোআর মাধ্যমে বৈঠকের সমাপ্তি হয়।

এই সংবাদটি 1,020 বার পড়া হয়েছে

WP Facebook Auto Publish Powered By : XYZScripts.com