বৃহস্পতিবার, ১৯ জুলা ২০১৮ ০৪:০৭ ঘণ্টা

প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সচিব হিসেবে সাজ্জাদুল হাসানের যোগদান

Share Button

প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সচিব হিসেবে সাজ্জাদুল হাসানের যোগদান

ডেস্করিপোট:  বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ে ভারপ্রাপ্ত সচিব হিসেবে কর্মরত পাঁচজন কর্মকর্তাকে পদোন্নতি দিয়ে সচিব করা হয়েছে। তাদের বর্তমান দপ্তরেই রাখা হয়েছে।বৃহস্পতিবার এ-সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন জারি করেছে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়।  (১২জুলাই ২০১৮ ) সচিব হিসেবে পদোন্নতি পাওয়া পাঁচ কর্মকতা হলেন খাদ্য মন্ত্রণালয়ের ভারপ্রাপ্ত সচিব শাহাবুদ্দিন আহমেদ; পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রণালয়ের ভারপ্রাপ্ত সচিব আবদুল্লাহ আল মোহসীন চৌধুরী; মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের ভারপ্রাপ্ত সচিব মো. রইছউল আলম মণ্ডল; প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত সচিব সাজ্জাদুল হাসান এবং পরিসংখ্যান ও তথ্য ব্যবস্থাপনা বিভাগের ভারপ্রাপ্ত সচিব সৌরেন্দ্র নাথ চক্রবর্তী।

সাজ্জাদুল হাসান:

প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত সচিব হিসাবে যোগদান করলেন সাজ্জাদুল হাসান। এর আগে তিনি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার একান্ত সচিব-১ এর দায়িত্বে ছিলেন। আজ সকালে যোগদানের পর কার্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগের কর্মকর্তা ও কর্মচারীরা ফুল দিয়ে তাকে শুভেচ্ছা জানান। সাজ্জাদুল হাসান সকলের সহযোগিতা কামনা করেন।

সাজ্জাদুল হাসান স্বাধীনতা যুদ্ধের অন্যতম সংগঠক এবং সাবেক গণ পরিষদ সদস্য মরহুম ডাঃ আখলাকুল হোসেন আহমেদের ২য় পুত্র। তার মাতার নাম বেগম হোসনে আরা হোসাইন।
তিনি নেত্রকোণা জেলার মোহনগঞ্জ পাইলট সরকারী উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এসএসসি পরীক্ষায় ১ম শ্রেণীতে উত্তীর্ণ হন। পরবর্তীতে তিনি ঢাকা কলেজ থেকে এইচএসসি এবং বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে কৃষি অর্থনীতিতে ১ম শ্রেণীতে বিএসসি (অনার্স) এবং প্রডাকশন ইকনমিক্স এন্ড ফার্ম ম্যানেজমেন্ট-এ কৃতিত্বের সাথে মাস্টার্স ডিগ্রী অর্জন করেন। ১৯৮৮ সালে তিনি বিসিএস (প্রশাসন) ক্যাডারে যোগদান করেন।
পরবর্তীতে তিনি ইউনিভার্সিটি অব ওয়েস্টার্ন সিডনি, অস্ট্রেলিয়া থেকে কৃতিত্বের সাথে মাস্টার্স অব সায়েন্স (অনার্স) ডিগ্রী অর্জন করেন। তার গবেষণালব্ধ ফলাফল ইন্ডিয়া এবং অস্ট্রেলিয়ার জার্নালে প্রকাশিত হয়। তিনি বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়, ময়মনসিংহের সিন্ডিকেট সদস্য। সাজ্জাদুল হাসান মন্ত্রণালয়সহ মাঠ প্রশাসনের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ পদে দীর্ঘদিন কাজ করেছেন। তার মধ্যে উল্লেখযোগ্য কক্সবাজার এবং সিলেটের জেলা প্রশাসক হিসেবে দায়িত্ব পালন। এছাড়া তিনি জনপ্রশাসন, যোগাযোগ ও কৃষি মন্ত্রণালয়েও দায়িত্ব পালন করেন।
অতঃপর মাঠ প্রশাসনের সর্বোচ্চ পদ বিভাগীয় কমিশনার হিসেবে সিলেটে দায়িত্ব পালন করেন। সর্বশেষ তিনি প্রধানমন্ত্রীর একান্ত সচিব হিসেবে কর্মরত ছিলেন। ব্যক্তিগত জীবনে তিনি বিবাহিত এবং দুই পুত্র সন্তানের জনক।

এই সংবাদটি 1,383 বার পড়া হয়েছে

WP Facebook Auto Publish Powered By : XYZScripts.com