বেদাতীদের পোষ্টারে মাওলানা ওলিপুরীর নাম !

প্রকাশিত: ৬:১৩ অপরাহ্ণ, মার্চ ২৩, ২০১৭

বেদাতীদের পোষ্টারে মাওলানা ওলিপুরীর নাম !

সিলেট রিপোর্ট: বিশিষ্ট ওয়ায়েজ ‘আহলে সুন্নাত ওয়াল জামাতের ভাষ্যকার’ হিসেবে পরিচিত মাওলানা নুরুল ইসলাম ওলিপুরী কওমী অঙ্গণের এক পরিচিত মুখ।  বেদাত-কুসংস্কারের বিরুদ্ধে তার জ্বালাময়ী বক্তব্য ব্যাপক আলোচিত। ১৯৯৭ সালে নেত্রকোনায় আকবর আলী রেজভির সাথে বাহাস করে তিনি হক্বপন্থী হিসেবে বিজয়ী হয়েছিলেন। ইদানিং সেই নেত্রকোনায় ‘বেদাতী’দের আমন্ত্রণে মাওলানা ওলিপুরী নেত্রকোনা যাচ্ছেন-এমন সংবাদে কওমী পন্থী উলামায়ে কেরামের মধ্যে নানা প্রশ্ন দেখা দিয়েছে।
নাগড়া নিবাসী আব্দুর রব জানান, ‘ নেত্রকোনায় বিদাআতীদের প্রধান পৃষ্ঠপোষক আল মদিনা ট্রাভেলসের মালিক আব্দুল্লাহর মাহফিলের পোষ্টারে ওলিপুরী হুজুরের  নাম দেখে আমরা হতবাগ হয়েছি।
তিনি উক্ত আব্দুল্লাহর কিছু বিদাআতের নমুনা মাওলানা ওলিপুরীর নিকট প্রেরিত এক পত্রে তুলেধরেছেন । যা আমাদের হস্তগত হয়েছে। পত্রে উল্লেখ করা হয়, আপনার সদয় বিবেচনার জন্য পেশ করছি:
১. আব্দুল্লাহ শর্ষীণার মুরীদ এবং নেত্রকোনার অন্যতম প্রধান দায়িত্বশীল। ২.আব্দুল্লাহ গত বছর তার পিতার (যিনি অবসরপ্রাপ্ত জেলা রেজিষ্ট্রার, শর্ষীণার মুরীদ এবং নেত্রকোনায় শর্ষীণার প্রধান পৃষ্ঠপোষক ছিলেন) নামে ইছালে ছোওয়াব মাহফিল করেছে। স্থানীয় উলামায়ে কিরাম তার এই বিদাআতী ইছালে ছোওয়াব মাহফিল বন্ধ করতে পারেননি সত্য কিন্তু কেউই তার এই বিদআতী মাহফিলে অংশগ্রহন করেননি। ৩. আব্দুল্লাহ নেত্রকোনায় মিলাদ-কিয়ামের প্রর্বতক এবং জেলার প্রধান পৃষ্ঠপোষক। বৃহত্তর মোমেনশাহীর মিলাদ-কিয়াম পার্টির প্রধান সেন্টার হচ্ছে জামালপুর জেলার শৈলাকান্দার পীরের আস্তানা যার নাম দিয়েছে তারা “ছালাম আবাদ শরীফ” (যদিও আমরা মক্কা শরীফ- মদীনা শরীফ ছাড়া আর কোন স্থানের নামের সাথে “শরীফ” শব্দটির প্রয়োগ দেখিনি। মূলত সরলমনা ঈমানদারদেরকে বিভ্রান্ত করতেই তাদের  এই অপচেষ্টা)। সেই তথাকথিত ছালাম আবাদ শরীফের স্থানীয় ভক্ত – আশেকানদের এক ওয়াজ-জিকির ও দোয়া মাহফিল গতকাল নেত্রকোনায় অনুষ্ঠিত হয় আর আল মদিনা ট্রাভেলসের ব্যানারে যার প্রকাশ্য পৃষ্ঠপোষকতা করে আব্দুল্লাহ।(মাহফিলের পোষ্টারের কপি সংযুক্ত)। ৪. ১০ প্রকার মান্নতের প্রবক্তা ঝালকাঠির এন.এস. কামিল মাদ্রাসার প্রিন্সিপিালকে দিয়ে নেত্রকোনায় মাহফিল করায় উক্ত আব্দুল্লাহ। ৫.বিগত কয়েক বছর পূর্বে এই আবদুল্লাহর উদ্যোগে নাগড়ায় (যেখানে আগামী ৩১ মার্চ আপনার উপস্থিত থাকার কথা প্রচার করা হচ্ছে) একটি ওয়াজ মাহফিলে আপনি প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন । সেই একই মাহফিলে আব্দুল্লাহ কুমিল্লার পীরজাদা নামধারী ভন্ড-বিদাআতি শফিকুল ইসলামকে দিয়ে ওয়াজ করায়। এইভাবেই সে হক্বপন্থী উলামায়ে কিরামের সাথে ভন্ড- বিদাআতীদেরকে একসাথে করে এদেরকে বৈধতা দেয়ার অপচেষ্টা করে। এই অপকর্মে তার অন্যতম প্রধান সহযোগী নাগড়া দারুসসুন্নাহ হাফিজিয়া মাদ্রাসার মুহতামিম খ্যাত হাফেজ দেলোয়ার হোসেনও হরহামেসাই এসব কাজ করে থাকে। বিগত বছর ২০ ডিসেম্বর সে তার মাহফিলে হক্বপন্থী উলামায়ে কিরামের সাথে বরিশালের ভন্ড-বিদাআতী -ক্বিয়ামী আরিফ রব্বানী সিদ্দীকিকে দিয়ে ওয়াজ করিয়েছে।
৬. রাসুলুল্লাহ (সাঃ) র্সবত্র হাজির-নাজির আব্দুল্লাহ ও তার দল এই ভ্রান্ত আকিদায় বিশ্বাসী। ৭. আমরা জানি “সীরাত” শব্দটি শুধুমাত্র রাসুলুল্লাহ (সাঃ) এর জীবনীর ক্ষেত্রে খাস। কিন্তু আব্দুল্লাহ তার মরহুম পিতার জীবনী গ্রন্থের নাম দিয়েছে “সিরাতে উসমানীয়া”।
৮. আসন্ন মাহফিলের পোষ্টারেও সে তার ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠান আল মদিনা ট্রাভেলসের সাথে আপনার নাম ব্যবহার করে অবৈধ ফায়দা হাসিলের অপচেষ্টা করছে। মূলত অত্র এলাকায় সে বিদআতি হিসাবে পরিচিত বিধায় বৈধতার সংকটে ভুগছে। আর এই বৈধতার সংকট থেকে উত্তরণের হীন উদ্দেশ্যেই আব্দুল্লাহ আপনার উপস্থিতি ও ইমেজকে কাজে লাগাতে চাচ্ছে। আল্লাহ না করুন সে যদি এই কাজে সফল হয় তবে সে তার বিদআতি মিশন ভয়াবহ গতিতে এগিয়ে নিয়ে যাবে । আশা করি উপরোক্ত বিষয়গুলো যাচাইপূর্বক আপনি এই ভন্ড- বিদাআতীর মাহফিলে অসার সিদ্ধান্ত পরিবর্তন করবেন। আর মাহফিলের সভাপতি হযরত মাওঃ আজিজুর রহমান সাহেবের ব্যাপারে আমার মত নাদান মানুষের পক্ষে যেকোন কিছু বলাই বেয়াদবী। তবে আপনার জ্ঞাতার্থে শুধু এতটুকু বলব উনাকে যেকোন মাহফিলেই সভাপতি হিসাবে পাওয়া যায়। আমার সামর্থ এতটুকুই অর্থাৎ আপনাকে অবহিত করা। আল্লাহ আপনাকে আমাকেসহ পৃথিবীর সকল মুসলমানকে হেফাজত করুন।”
সিলেট রিপোর্ট ডটকম/মুআন,আ-বা,ই ২৩-০৩-২০১৭

এই সংবাদটি 369 বার পঠিত হয়েছে

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

[latest_post][single_page_category_post]

WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com