সোমবার, ০৬ আগ ২০১৮ ০৪:০৮ ঘণ্টা

আন্দোলন নেতিবাচক প্রভাব ফেলছে অর্থনীতিতে

Share Button

আন্দোলন নেতিবাচক প্রভাব ফেলছে অর্থনীতিতে

অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ নিরাপদ সড়কের দাবিতে ছাত্রদের চলমান আন্দোলন প্রভাব ফেলেছে দেশের অর্থনীতিতেও। চলমান আন্দোলন দেশের ব্যবসা-বাণিজ্যে নেতিবাচক প্রভাব ফেলবে বলে মন্তব্য করেছেন ব্যবসায়ীদের শীর্ষ সংগঠন এফবিসিসিআই। একই সঙ্গে রাস্তায় ফিটনেসবিহীন গাড়িও দেখতে চায় না বলে মত দিয়েছেন ব্যবসায়ীদের শীর্ষ এই সংগঠন।

সংগঠনটি বলছে, এ ধরনের আন্দোলন বিনিয়োগ সম্ভাবনা, নিত্যপণ্যের সরবরাহ বাধাগ্রস্ত হয়ে মূল্যস্ফীতির সম্ভাবনা তৈরি হওয়া, সর্বোপরি দেশের ভাবমূর্তিতে নেতিবাচক প্রভাব ফেলবে। দেশের চলমান পরিস্থিতি নিয়ে এফবিসিসিআই রবিবার এক জরুরী সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে এই উদ্বেগ প্রকাশ করেন এফবিসিসিআইয়ের সভাপতি শফিউল ইসলাম মহিউদ্দিন।

আন্দোলনের শফিউল ইসলাম মহিউদ্দিন বলেন, গত এক সপ্তাহ ধরে ছাত্র আন্দোলন এবং এ আন্দোলন থেকে উদ্ভূত পরিবহন ধর্মঘটের কারণে দেশের জনগণের স্বাভাবিক জীবনযাত্রা ব্যাহত হচ্ছে। সামগ্রিকভাবে দেশের অর্থনৈতিক বিবেচনায় যা অত্যন্ত ক্ষতিকর। আমরা ব্যবসায়ী সমাজ স্বাভাবিক জীবন-যাত্রা ও পরিবহনকে ব্যাহত করে এমন কোন ধরনের ধর্মঘট বা আন্দোলনকে সমর্থন করিনি এবং আগামীতেও করব না। বিশেষ করে এ আন্দোলনকে কেন্দ্র করে দূরপাল্লার যানবাহন ভাংচুর এবং আওয়ামী লীগ অফিস ভাংচুরসহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে যে সহিংসতা ঘটেছে তা কোনভাবেই সমর্থনযোগ্য নয়। আমরা সকলে চাই দেশে শান্তি শৃঙ্খলাপূর্ণ পরিবেশ পরিস্থিতি বিরাজ করুক।

দেশের সার্বিক পরিস্থিতি বিশেষ করে রফতানি প্রবৃদ্ধি এবং রেমিটেন্স প্রবাহ মন্দা থেকে ঘুরে দাঁড়ানোর চেষ্টা করছে ঠিক সেই সময় এ ধরনের অনাকাঙ্খিত পরিস্থিতি কোনভাবেই কাম্য হতে পারে না। বিশেষ করে বর্তমান আমদানি-রফতানি পরিস্থিতি, কর্মসংস্থান, স্থিতিশীলতার বিষয়কে বিবেচনায় রেখে যেকোন কর্মসূচী পরিচালনা করা প্রয়োজন বলে মনে করে এফবিসিসিআই।

এফবিসিসিআইয়ের এই নেতা আরও বলেন, দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়ন, জিডিপি প্রবৃদ্ধি সমুন্নত রাখা, রফতানি বাণিজ্য সচল রাখতে, বিনিয়োগ উৎসাহিত করতে আমরা বিভিন্নভাবে উদ্যোগ ও প্রচেষ্টা নিয়েছি। এ পরিস্থিতিতে পরিবহন ধর্মঘট বিনিয়োগ সম্ভাবনা এবং দেশের ভাব-মূর্তির ওপর নেতিবাচক প্রভাব ফেলবে। বিশেষ করে ছাত্র আন্দোলন এবং পরিবহন ধর্মঘটের ফলে যান চলাচল বন্ধ থাকার কারণে সকল নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যের সরবরাহ বিঘিœত হওয়ায় মূল্যস্ফীতির হার আবারও বৃদ্ধি পাওয়ার সম্ভাবনা তৈরি হয়েছে। ফলে ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী, উদ্যোক্তাগণ ব্যাপকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে। একই সঙ্গে চট্টগ্রামসহ অন্যান্য সকল বন্দরের আমদানি-রফতানি কার্যক্রম ব্যাহত হচ্ছে। এতে আন্তর্জাতিক ক্ষেত্রে দেশের ব্যবসা বাণিজ্যে স্থবিরতা দেখা দিয়েছে বলেও জানান এই নেতা।

আসন্ন কোরবানির ঈদের পূর্বে এ ধরনের পরিস্থিতি শ্রমিকদের বেতন-বোনাস দেয়াতে ব্যত্যয় না ঘটে সে বিষয়টি বিবেচনায় রাখার কথাও বলেন তিনি। একই সঙ্গে এই পরিস্থিতি মোকাবেলায় নীতি নির্ধারণী পর্যায়ের কঠোর নজরদারির প্রয়োজন বলে মনে করেন তিনি।

শফিউল ইসলাম বলেন, মূলত অপ্রাপ্ত বয়স্ক এবং অদক্ষ চালকের মাধ্যমে গাড়ি চালানোর ফলে প্রায় সড়ক দুর্ঘটনা ঘটছে যা কোনভাবেই কাম্য হতে পারে না। আমরা তৈরি পোশাক খাতকে সম্পূর্ণ শিশুশ্রম মুক্ত করতে সক্ষম হয়েছি। শ্রম আইনের সঙ্গে সঙ্গতি রেখে তৈরি পোশাক খাতের মতো পরিবহনসহ অন্যান্য সকল খাতেও শিশু শ্রমের ব্যবহার বন্ধ হওয়া প্রয়োজন। যা অনভিপ্রেত দুর্ঘটনা এড়াতে সহযোগিতা করবে। সরকার শিশুদের লেখাপড়ায় উৎসাহ প্রদানের জন্য বিনামূল্যে লেখাপড়ার সুযোগসহ বিভিন্ন সুবিধা প্রদান করছেন। তাই শিশুদের শ্রমিক হিসেবে ব্যবহার না করে তাদের লেখাপড়ায় উৎসাহিত করা প্রয়োজন বলেও জানান তিনি। তিনি বলেন, জনগণের কল্যাণে এবং জাতীয় উন্নয়নে যে কোন বিষয় আলোচনার মাধ্যমে সমাধানই সর্বোত্তম পন্থা বলে ব্যবসায়ী সমাজ মনে করে। সড়কের দাবিতে বিদ্যমান আন্দোলন কর্মসূচী থেকে কোমলমতি ছাত্র-ছাত্রীদের ঘরে ফেরার জন্য এবং পরিবহন শ্রমিকসহ অন্যদের আন্দোলন থেকে বিরত থাকার আহ্বান জানান।

আন্দোলনে আর্থিক ক্ষতির পরিমাণ জানতে চেয়ে সাংবাদিকদের করা এক প্রশ্নের উত্তরে এফবিসিসিআই সভাপতি বলেন, এ ধরনের আন্দোলনে দুই ধরনের ক্ষতি হয়। আর্থিক ও সুনামের ক্ষতি। তাজরিনের জন্য সুনামের যে ক্ষতি হয়েছিল, বিলিয়ন ডলার বিনিয়োগ করেও সেই ক্ষতি কাটিয়ে উঠা সম্ভব হয়নি। সাধারণত হরতালে প্রতিদিন ৩০০ কোটি টাকার ক্ষতি হয়। এ ধরনের আন্দোলনে তো কিছু যানবাহন চলেছে, আবার কিছু চলেনি। সংগঠনের পক্ষে এখনও ক্ষতির পরিমাণ নিরূপণ করা হয়নি। স্বাভাবিক অবস্থা ফিরিয়ে আনতে পরিবহন খাতের নেতাদের সঙ্গে বসতে পারেন বলেও জানিয়েছেন শফিউল ইসলাম মহিউদ্দিন। মূলত অপ্রাপ্ত বয়স্ক এবং অদক্ষ চালকের মাধ্যমে গাড়ি চালানোর ফলে প্রায়ই সড়ক দুর্ঘটনা ঘটছে যা কোনভাবেই কাম্য নয়। অদক্ষ চালকের অনৈতিক প্রতিযোগিতার কারণে রাস্তায় দুর্ঘটনা ঘটছে।

এই সংবাদটি 1,015 বার পড়া হয়েছে

WP Facebook Auto Publish Powered By : XYZScripts.com