রবিবার, ০২ সেপ্টে ২০১৮ ১২:০৯ ঘণ্টা

আসাদ নুরের ফাঁসির দাবীতে হাটহাজারীতে হেফাজতের বিক্ষোভ

Share Button

আসাদ নুরের ফাঁসির দাবীতে হাটহাজারীতে হেফাজতের বিক্ষোভ

মাহমুদ আল আজাদ হাটহাজারী(চট্টগ্রাম) :
পনের দিনের আল্টিমেটামের সময় ও গ্রেফতার পূর্বক ফাঁিসর দাবিতে উত্তাল হাটহাজারীর রাজপথ। শুক্রবার (৩১ আগষ্ট) জুমার নামাজের পর চট্টগ্রাম-নাজিরহাট সড়কে বিক্ষোভ মিছিল পালন করে। বিক্ষোভ মিছিল পূর্বে ডাক বাংলোক চত্বরে প্রতিবাদ সমাবেশ করেন হাটহাজারী উপজেলা শাখার হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশ। কুখ্যাত নাস্তিক আসাদ নুরকে পুন:রায় গ্রেফতার পূর্বক ফাঁসির দাবীতে স্থানীয় ডাকবাংলো চত্বরে অনুষ্ঠিত বিক্ষোভ মিছিলপূর্ব সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে সংগঠনের মহাসচিব আল্লামা জুনাইদ বাবুনগরী বলেছেন, আসাদ নুরকে গ্রেফতার করে সর্বোচ্চ শাস্তি দিতে হবে। কোন নাস্তিককে প্রকাশ্যে চলাচলের সুযোগ দেয়া যাবেনা। আসাদ নুর একজন আত্মস্বীকৃত নাস্তিক। সে পবিত্র কুরআন নিয়ে জঘন্য অবমাননাকর উক্তি করেছে। ইসলামের বিভিন্ন মৌলিক বিষয়ে প্রকাশ্যে কটুক্তি করেছে। হয়তো তাকে গ্রেফতার করে জেলে ঢুকাতে হবে না হয় দাউদ হায়দার ও তাসলিমার মতো দেশান্তর করতে হবে।
তিনি বলেন, সরকার তাকে গ্রেফতার করে কয়েক দিন পর রাতের আঁধারে ছেড়ে দিয়েছে। বৃহত্তর ধর্মপ্রাণ, নবী প্রেমিক, কুরআন প্রেমিক জনগণের দাবীকে উপেক্ষা করে এক আসাদ নুরকে জেল থেকে মুক্তি দিয়ে অন্য নাস্তিকদের সাহস বাড়িয়ে দিচ্ছে এবং রাষ্ট্রীয়ভাবে মদদ যোগাচ্ছ। তিনি বলেন, এই কুখ্যাত নাস্তিককে অবিলম্বে গ্রেফতার করে সর্বোচ্চ শাস্তি মৃত্যুদন্ড দিতে হবে। অন্যথায় হেফাজতে ইসলাম দেশের ঈমানদার জনগণকে সাথে নিয়ে কঠোর কর্মসূচী দিতে বাধ্য হবে।

তিনি বলেন, ধর্মাবমাননার অভিযোগে ইসলামবিদ্বেষী আসাদ নূরসহ সকল নাস্তিককে গ্রেপ্তার করে শাস্তি দিন। নাস্তিকবাদকে প্রশ্রয় দিলে সরকারের জন্য তা সুদূর প্রসারী বিপদ ডেকে আনবে। আমাদের কোন রাজনৈতিক উদ্দেশ্য নেই। কিন্তু নাস্তিক মুরতাদদের শাস্তির ব্যাপারে কোন আপোষ নেই।

হাটহাজারী উপজেলা সহ-সভাপতি মেখল মাদরাসার মুফতি মোহাম্মদ আলীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত মিছিলপূর্ব সমাবেশে অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক মাওলানা আজিজুল হক ইসলামাবাদী, প্রচার সম্পাদক মাওলানা আনাস মাদানী, মুফতি হাবিবুর রহমান কাসেমী, মাওলানা হাবিবুল্লাহ নদভি, মাষ্টার আহসান উল্লাাহ, মাওলানা জাহাঙ্গীর মেহদী, মাওলানা মোহাম্মদ শফিউল আলম, মাওলানা এমরান সিকদার, মাওলানা কামরুল কাসেমী, মাওলানা হাফেজ মাসউদুর রহমান,হাফেজ আব্দুল মাবুদ প্রমুখ।

মিছিল পূর্বক বক্তবে হেফাজতের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক মাওঃ আজিজুল হক ইসলামাবাদী বলেন, আসাদ নুর ছাড়া পেয়ে প্রকাশ্যে নাস্তিকতা ছড়াচ্ছে। নাস্তিকদের সাথে আড্ডায় মেতেছে উঠেছে। আল্লাহ, মহানবী সা., কুরআন অবমাননা কারীদের ফাঁসিতে না দিয়ে তাদের নিরাপদে বিচরণের সুযোগ দিয়ে ৯২% ভাগ মুসলমানদের অন্তরে চরমভাবে আঘাত করা হয়েছে। যা কোন মু’মিন মুসলমান মেনে নিতে পারেনা।

হেফাজত কেন্দ্রীয় প্রচার সম্পাদক মাওঃ আনাস মাদানী বলেন, কেউ মহান আল্লাহ, নবীজী সা. ও কুরআন অবমাননা করলে আমরা ঘরে বসে থাকতে পারিনা। এদের প্রতিরোধ করা ঈমানী দায়িত্ব। তাই অবিলম্বে কুলাঙ্গার,নাস্তিক আসাদ নুরকে পুন:রায় গ্রেফতার পূর্বক দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি প্রদানের জন্য আমরা সরকারের নিকট জোর দাবী জানাচ্ছি।

বিক্ষোভ মিছিলটি ঢাকবাংলো চত্বর থেকে বের হয়ে চট্টগ্রাম-নাজিরহাট সড়কের মডেল থানা মোড়, বাস স্টেশন জিরো পয়েন্ট , জাগৃতি , কাচারী রোড় হয়ে হাটহাজারীর মাদরাসার গেইটে এসে মুনাজাতের মাধ্যমে শেষ হয়। মুনাজাত পরিচালনা করেন মুফতি মোহাম্মদ আলী।

এই সংবাদটি 2,639 বার পড়া হয়েছে

WP Facebook Auto Publish Powered By : XYZScripts.com