শুক্রবার, ০৭ সেপ্টে ২০১৮ ১০:০৯ ঘণ্টা

হোয়াইট হাউসের ভেতরেই ট্রাম্পকে সরানোর চেষ্টা !

Share Button

হোয়াইট হাউসের ভেতরেই ট্রাম্পকে সরানোর চেষ্টা !

ডেস্করিপোর্ট : উপ-সম্পাদকীয় পাতায় লেখা নিবন্ধের লেখকের নাম প্রকাশ করতে নিউ ইয়র্ক টাইমসের প্রতি আহবান জানিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প। তিনি এই ধরনের লেখাকে রাষ্ট্রদ্রোহ হিসেবে আখ্যায়িত করেছেন। তিনি নিউ ইয়র্ক টাইমসেরও সমালোচনা করেন। খবর আল-জাজিরা ও রয়টার্সের

প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প বেনামী লেখককে ‘ভীরু’ বলে উল্লেখ করেছেন। আর তার প্রেস সেক্রেটারি সারাহ স্যান্ডার্স লেখককে ‘কাপুরুষ ও স্বার্থপর’ উল্লেখ করে ‘বেদনাদায়ক’ লেখা বলে আখ্যায়িত করেন।

প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প বলেন, সত্যিই যদি ওই ধরনের কোনো লেখকের অস্তিত্ব থাকে তাহলে নিউ ইয়র্ক টাইমসের উচিত জাতীয় নিরাপত্তার স্বার্থে তার নাম প্রকাশ করা। তবে এই ধরনের লেখা হলেও আমরা জয়ী হবো। তিনি নিউ ইয়র্ক টাইমসের সমালোচনা করে বলেন, এটা ভুয়া। তারা ট্রাম্পকে পছন্দ করেন না, আমিও তাদের পছন্দ করি না।

বুধবার নিউ ইয়র্ক টাইমসে বেনামে একটি লেখা প্রকাশিত হয়। নিউ ইয়র্ক টাইমস জানায়, ওই লেখক ট্রাম্প প্রশাসনের সিনিয়র কর্মকর্তা। লেখক জানিয়েছেন, হোয়াইট হাউসের ভেতরেই ট্রাম্পকে সরানোর চেষ্টা চলছে। ট্রাম্পের জাতীয় স্বার্থবিরোধী বিভিন্ন কাজে বাধা দেয়া হয়।

এর আগে সাংবাদিক বব উডওয়ার্ডের একটি বইয়ে জানানো হয়, এক সিনিয়র সহযোগী নথি সরিয়ে ফেলেছিলেন যাতে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প স্বাক্ষর করলে দেশের ক্ষতি হতো। নিউ ইয়র্ক টাইমসের নিবন্ধে এর সত্যতা পাওয়া গেল।

এদিকে মার্কিন ভাইস প্রেসিডেন্ট মাইক পেন্স বলেছেন, তিনি এই ধরনের লেখা লেখেননি কিংবা এটাকে সমর্থনও করেন না। একই কথা বলেছেন মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পিও।

–ইত্তেফাক

এই সংবাদটি 1,008 বার পড়া হয়েছে

WP Facebook Auto Publish Powered By : XYZScripts.com