শুক্রবার, ১৪ সেপ্টে ২০১৮ ১০:০৯ ঘণ্টা

প্রধানমন্ত্রীর সফর ঘিরে লন্ডনে আওয়ামী লীগ-বিএনপির ব্যাপক প্রস্তুতি

Share Button

প্রধানমন্ত্রীর সফর ঘিরে লন্ডনে আওয়ামী লীগ-বিএনপির ব্যাপক প্রস্তুতি

আগামী ২১ সেপ্টেম্বর দুদিনের সফরে লন্ডন আসছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তাকে স্বাগত জানাতে ব্যাপক প্রস্তুতি শুরু করেছে যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগ। অন্যদিকে প্রধানমন্ত্রীর সফরের সময় বিক্ষোভ প্রদর্শনের প্রস্তুতি নিচ্ছে যুক্তরাজ্য বিএনপি।

জাতিসংঘের ৬৯তম সাধারণ অধিবেশনে যুক্তরাষ্ট্র যাওয়ার পথে যুক্তরাজ্যে যাত্রাবিরতি করবেন প্রধানমন্ত্রী। আগামী ২১ সেপ্টেম্বর, ঢাকা থেকে একটি বিশেষ ফ্লাইটে তিনি লন্ডনের হিথ্রো বিমানবন্দরের উদ্দেশে রওনা হবেন। ২৩ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত তিনি লন্ডনে পরিবারের সঙ্গে একান্ত সময় কাটাবেন। এ সময় দলীয় বা সরকারি কোনও সভা-সমাবেশে অংশগ্রহণ না করলেও যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের সঙ্গে সাক্ষাতের সম্ভাবনা রয়েছে শেখ হাসিনার। ২৩ সেপ্টেম্বর তিনি হিথ্রো থেকে নিউ ইয়র্কের উদ্দেশে রওনা হবেন। জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের অধিবেশন শেষে ২৯ সেপ্টেম্বর তার দেশে ফেরার কথা রয়েছে।
প্রধানমন্ত্রীর এ সফরের ব্যাপারে বৃহস্পতিবার রাতে বাংলা ট্রিবিউনের সঙ্গে যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগের সভাপতি সুলতান মাহমুদ শরীফের আলাপ হয়। তিনি বলেন, ‘নেত্রীর (শেখ হাসিনা) বয়স হয়েছে। এখন আর তিনি ছয় ঘণ্টার বেশি একনাগাড়ে ভ্রমণ করতে চান না। এজন্যই লন্ডনে যাত্রাবিরতি। এখানে যেহেতু তার পরিবারের সদস্যরা আছেন, তাদের সঙ্গে তিনি কিছুটা সময় কাটাবেন। এ সফরে দলীয় কোনও কর্মসূচি নেই। তবে আমরা তাকে অভ্যর্থনা জানাবো।’
যুক্তরাজ্য যুবলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জামাল আহমেদ খান বলেন, ‘নির্বাচনের আগে প্রধানমন্ত্রীর এটি শেষ লন্ডন সফর। এজন্য ব্যাপক আয়োজনে নেত্রীকে স্বাগত জানাতে যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের পক্ষ থেকে বর্ধিত সভা করে আমরা প্রস্তুতি নিচ্ছি। দেশে অবস্থানরত যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ সাজিদুর রহমান ফারুক ও যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আনোয়ারুজ্জামান চৌধুরীও নেত্রীর সফর উপলক্ষে শুক্রবার লন্ডনে আসছেন। প্রধানমন্ত্রী কোন হোটেলে থাকবেন তা চূড়ান্ত হয়নি এখনও। হোটেল লবিতে তাকে স্বাগত জানাবে যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগ।’

প্রধানমন্ত্রীর গত সফরের সময় যুক্তরাজ্য বিএনপির বিক্ষোভ (ফাইল ফটো)

অন্যদিকে যুক্তরাজ্য স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি নাসির আহমদ শাহীন বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রীর সফরে এবার যুক্তরাজ্য বিএনপি সর্বোচ্চ বিক্ষোভ প্রদর্শনের প্রস্তুতি নিয়েছে। এজন্য বিএনপির সহযোগী সংগঠনগুলোর পক্ষ থেকে ধারাবাহিকভাবে প্রস্তুতি সভা অনুষ্ঠিত হচ্ছে।’
যুক্তরাজ্য বিএনপির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক কামাল উদ্দীন জানান, যুক্তরাজ্য বিএনপির সভাপতি এম এ মালেক সাংগঠনিক সফরে জার্মানিতে রয়েছেন। তিনি শুক্রবার ফিরলে যুক্তরাজ্য বিএনপি সর্বশেষ প্রস্তুতি সভা করবে।
প্রধানমন্ত্রীর সফরের সময় লন্ডনে বিক্ষোভ প্রদর্শন, গাড়িবহরে ডিম ছোড়ার মতো কর্মকাণ্ডের ব্যাপারে বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক মাহিদুর রহমান বলেন, ‘দেশে সরকারের দুঃশাসনের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করলে গুম করা হচ্ছে। এখানে সে অবস্থা নেই। মানুষের পিঠ দেয়ালে ঠেকে গেছে। তাই প্রধানমন্ত্রী যে দেশে যাচ্ছেন, প্রবাসীরা সেখানেই বিক্ষোভ দেখাচ্ছেন। লন্ডনে প্রধানমন্ত্রীকে বিক্ষোভ দেখানোর নজির অতীতে বিএনপি আমলে আওয়ামী লীগই শুরু করেছিল।’
বিএনপির বিক্ষোভের ব্যাপারে যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগের সভাপতি সুলতান মাহমুদ শরীফ বলেন, ‘অশোভন, অমার্জিত ও অসভ্য আচরণ আর বিক্ষোভ এক জিনিস নয়। দেশের প্রধানমন্ত্রীর কাছে দাবি-দাওয়া থাকলে সেটি তারা শোভনভাবে জানাতে পারেন। আমি চল্লিশ বছরের বেশি সময় ধরে এ দেশে (যুক্তরাজ্য) আওয়ামী লীগ করছি। আমরা কখনও রাজনীতির নামে অসভ্যতা করি না।’
উল্লেখ্য, প্রায় দেড় দশক ধরে যুক্তরাজ্যে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীর সফরের সময় বিক্ষোভ প্রদর্শনের কর্মসূচি পালন করছে বিরোধী দলের নেতাকর্মীরা। প্রধানমন্ত্রীর গাড়িবহরে ডিম, পানির বোতল, এমনকি জুতা ছুড়ে মারার নামে কথিত ‘বিক্ষোভ প্রদর্শন’ চলে আসছে। সর্বশেষ গত এপ্রিলে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কমনওয়েলথ শীর্ষ সম্মেলনে যোগ দিতে লন্ডনে আসেন।

১৮ এপ্রিল প্রধানমন্ত্রীর সফরসঙ্গী ক্রীড়া উপমন্ত্রী আরিফ খান জয়ের ওপর হামলা চালায় বিএনপি নেতাকর্মীরা (ফাইল ফটো)
গত ১৮ এপ্রিল ওই সফরে প্রধানমন্ত্রীর সফরসঙ্গী ক্রীড়া উপমন্ত্রী আরিফ খান জয়ের ওপর হামলা চালায় বিএনপি নেতাকর্মীরা। বিদেশের মাটিতে বাংলাদেশের প্রবাসী রাজনৈতিক নেতাকর্মীদের এমন আচরণে লজ্জিত হন সাধারণ প্রবাসীরা।

এই সংবাদটি 1,019 বার পড়া হয়েছে

WP Facebook Auto Publish Powered By : XYZScripts.com