রবিবার, ০৪ সেপ্টে ২০১৬ ০৬:০৯ ঘণ্টা

জাতীয় ক্রীড়া পুরস্কার পেলেন শেখ কামাল

Share Button

জাতীয় ক্রীড়া পুরস্কার পেলেন শেখ কামাল

 

ক্রীড়াক্ষেত্রে বাংলাদেশ সরকারের সর্বোচ্চ সম্মাননা জাতীয় ক্রীড়া পুরস্কার (মরণোত্তর) পেয়েছেন জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের বড় ছেলে শেখ কামাল।

আবাহনী ক্রীড়া চক্রের এই প্রতিষ্ঠাতাকে ক্রীড়াবিদ ও ক্রীড়া সংগঠক হিসেবে ২০১১ সালের জাতীয় ক্রীড়া পুরস্কার (মরণোত্তর) দেয়া হয়।

রোববার রাজধানীর ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তনে শেখ কামালসহ ৩২ জনকে ২০১০, ২০১১ ও ২০১২ সালের জাতীয় ক্রীড়া পুরস্কার প্রদান করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

প্রধানমন্ত্রীর হাত থেকে শেখ কামালের পদক গ্রহণ করেন তার বন্ধু বাংলাদেশ অলিম্পিক অ্যাসোসিয়েশনের মহাসচিব ও ঢাকা ক্লাবের সভাপতি সৈয়দ শাহেদ রেজা।

এর আগে যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয় আয়োজিত জাতীয় ক্রীড়া পুরস্কারের জন্য মন্ত্রিসভা কমিটির চূড়ান্ত তালিকায় ৩৩ ক্রীড়াব্যক্তিত্ব ঠাঁই পেয়েছিলেন। এদের মধ্যে জুম্মন লুসাই পরে মারা যান।

শেখ কামাল ক্রিকেট, বাস্কেটবল ও ব্যাডমিন্টন খেলতেন। পাশাপাশি তিনি ছিলেন একজন অ্যাথলেট।

পুরস্কার প্রাপ্ত অন্যরা হলেন
২০১০
সাঁতার: হারুন-অর-রশিদ, তকবির হোসেন (মরণোত্তর)
শুটিং: আতিকুর রহমান
অ্যাথলেটিকস: মাহমুদা বেগম, ফরিদ খান চৌধুরী, নেলী জেসমিন, নিপা বোস
জিমন্যাস্টিকস: দেওয়ান নজরুল হোসেন
সংগঠক: মিজানুর রহমান মানু, এ এস এম আলী কবীর

২০১১
জিমন্যাস্টিকস: রওশন আরা ছবি
বক্সিং: মো. কাঞ্চন আলী
কুস্তি: মো. আশরাফ আলী
ভলিবল: হেলেনা খান ইভা
ক্রিকেট: খালেদ মাসুদ পাইলট
শরীর গঠন: রবিউল ইসলাম
হকি: জুম্মন লুসাই
সংগঠক: কুতুবুদ্দিন মোহাম্মদ চৌধুরী, আশিকুর রহমান মিকু
ক্রীড়াবিদ ও ক্রীড়া সংগঠক: শেখ কামাল

২০১২
অ্যাথলেটিকস: ফিরোজা খাতুন
ক্রিকেট: সাকিব আল হাসান
ফুটবলে: মো. মহসীন, খুরশীদ আলম বাবুল, আশীষ ভদ্র, আবদুল গাফ্ফার ও সত্যজিৎ দাশ রুপু
হকি: মামুনুর রশিদ
ব্যাডমিন্টন: নাজিয়া আক্তার যূথী
সংগঠক: রাজীব উদ্দীন আহমেদ চপল, নুরুল আলম চৌধুরী, উম্মে সালমা রফিক (মরণোত্তর)

দেশের ক্রীড়াঙ্গনে বিশেষ অবদানের স্বীকৃতি দিতে ১৯৭৬ সালে জাতীয় ক্রীড়া পুরস্কার চালু করা হয়। ১৯ জন ক্রিকেটারসহ মোট ১৮৮ জন এ পর্যন্ত পুরস্কারে ভূষিত হয়েছেন।

এই সংবাদটি 1,061 বার পড়া হয়েছে

WP2FB Auto Publish Powered By : XYZScripts.com