মঙ্গলবার, ৩০ অক্টো ২০১৮ ১২:১০ ঘণ্টা

মৌলভীবাজারে ইজতেমা নিয়ে মতবিরোধ

Share Button

মৌলভীবাজারে ইজতেমা নিয়ে মতবিরোধ

আমজাদুস সামাদ উজ্জল:মৌলভীবাজারে জেলা তাবলীগি ইজতেমা নিয়ে চরম মতানৈক্য দেখা দিয়েছে। সা’দ পন্হী তাবলীগের সাথীরা বাংলাদেশের তাবলীগী মুরব্বিদের চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত ; “এবারের ইজতেমা কেবলমাত্র টঙ্গীতেই হবে ” মর্মে সিদ্ধান্তকে অমান্য করে মৌলভীবাজারে ইজতেমা করার ঘোষনা দেয়ার পর থেকেই জেলার উলামায়ে কেরাম তা আমলে আনেন এবং এটা ভবিষ্যতের জন্য একটা ফিতনা হয়ে দাড়াবে উল্লেখ করে তা বন্ধ করার ঘোষনা দেন। উলামায়ে কেরাম ও তাবলীগের প্রবীণ সাথিদের মন্তব্য হল, যেহেতু এ বৎসর কেবলমাত্র ঢাকার টঙ্গীতে ইজতেমা হবে মর্মে কেন্দ্রীয় মুরব্বী ও সমস্ত উলামায়ে কেরামের সম্মিলিত সিদ্ধান্ত হয়েছে, অতএব মৌলভীবাজারে ইজতেমা মানে কেন্দ্রীয় মুরব্বী ও উলামায়ে কেরামের সিদ্ধান্ত অমান্য করার রাস্তা বাহির করা। কোন সত্যিকার অর্থে দ্বীনের জন্য তাবলীগ কারীর পক্ষে এটা মেনে নেয়া কিভাবে সম্ভব?
তাবলীগের নামে মাওলানা সা’দ সাহেবের ভ্রান্ত মতবাদের প্রচার করা হবে আর আমরা বসে বসে দেখতে থাকব, এটা কখনো হতে পারেনা। এই জেলায় বিভিন্ন মতাদর্শের লোকেরা মাহফিল করে, আমরা কখনও বাধা দেইনি। কিন্তু যখন কেউ আমাদের আকাবির,আসলাফ ও মুরব্বিয়ানদের রেখে যাওয়া আমানত দাওয়াত ও তাবলীগের এই মোবারক মেহনতকে নিয়ে ছিনি মিনি খেলবে, তাবলীগের নাম করে তাদের দল গরমের চেষ্টা করবে, কিংবা নবীজী সল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামের ওয়ারিস উলামায়ে কেরাম -এর প্রতি মানুষকে উস্কে তুলার চেষ্টা করবে, তখন দ্বীনের নামে এই বদদ্বীনিকে আমরা কখনো মেনে নিতে পারিনা। এই জেলার সকল প্রবীণ ও মুখলিস তাবলীগী সাথিদের এবং হক্কানী উলামায়ে কেরামের এটাই শেষ কথা। উলামায়ে কেরাম বলেনঃ আমরা আমাদের এই দাওয়াত ও তাবলীগের মেহনতকে তার মৌলিকত্ব ও সঠিক ধারার উপর টিকিয়ে রেখে জনগণকে পথ প্রদর্শণ করার ব্যাপারে আল্লাহ ও রাসুলের পক্ষ থেকে দ্বায়িত্ব প্রাপ্ত। অতএব, আমরা আমাদের দ্বায়িত্ব আদায়ে সর্বাত্বক সচেষ্ট থাকব ইনশাআল্লাহ। মাওলানা সা’দ সাহেবের অনুস্বারীদের ডাকা জেলা ইজতেমার বিরুদ্ধে জেলার তাবলীগি সাথিরা ও গণ্যমান্য উলামায়ে কেরাম ইতিমধ্যে সাংবাদিক সম্মেলন করেছেন এবং তাদের দাবী দাওয়া ও অবস্থান পরিস্কার করেছেন। তাদের পরিস্কার কথা, সা’দ সাহেবের অনুস্মরণ করতে গিয়ে তাবলীগ জামাতে বিভ্রান্তি ছড়ানো হবে আবার তার নামও দেয়া হবে তাবলীগ, এটা উলামায়ে কেরাম মেনে নিতে পারেনা। এধরণের বিভ্রান্তি সারা দেশ থেকে প্রতিহত করা হবে ইনশাআল্লাহ। গত ২৯/১০/২০১৮ তারিখে, জেলার সুলতানপুর জামেমসজিদে, এক জরুরী মাশওয়ারায় জেলার তাবলীগের সাথি ও উলামায়ে কেরামগণ উক্ত বক্তব্য গুলো আরো জোরালোভাবে ব্যক্ত করেন। উক্ত মাশওয়ায় উপস্থিত ছিলেন- মুফতি শামসুদ্দোহা,মুহতামিম, দারুলউলুম মাদরাসা। মাওলানা গিয়াসুদ্দিন, মুহতামিম, রায়পুর মাদরাসা। মাওলানা আবদুল মুগনি, জগন্নাথপুর। মুফতি হাবীবুর রহমান, মুহতামিম, জামেয়া আরাবিয়া। মাওলানা জামিল আহমদ আনসারী, মুহতামিম, জামেয়া রাহমানিয়া। মাওলানা মুজাহিদ আহমদ শ্রীমঙ্গলী। মাওলানা ফারুক আহমেদ, জগন্নাথপুর মাদরাসা। মাওলানা সাইফুর রহমান ফয়সল, মাওলানা আবদুল মুনীম, মাওলানা আহমদ কবীর খলীল, মাওলানা বদরুজ্জামান, মাওলানা আবুল কালাম, প্রবীণ সাথি জনাব এ কে এম আজাদ, প্রবীণ সাথি জনাব জিয়াউর রহমান, প্রবীণ সাথি জনাব জুবায়ের আহমদ, জনাব ওমর ফারুক, জনাব আশিকুর রহমান, জনাব শাহ আলম, জনাব মুন্সি নুরুল ইসলাম, হাফিজ আনোয়ার প্রমুখ। উক্ত মাশওয়ারায় আগামী বুধবার শহরে বিক্ষোভ মিছিলের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

এই সংবাদটি 1,023 বার পড়া হয়েছে

WP Facebook Auto Publish Powered By : XYZScripts.com