সোমবার, ০৫ নভে ২০১৮ ০২:১১ ঘণ্টা

সিলেটে পুলিশ বাহিনীর নিয়মিত সদস্য হলেন ২২২ জন

Share Button

সিলেটে পুলিশ বাহিনীর নিয়মিত সদস্য হলেন ২২২ জন

স্টাফ রিপোর্টার :
সিলেটের দক্ষিণ সুরমার লালাবাজারস্থ রেঞ্জ রিজার্ভ ফোর্স (আরআরএফ)-এ নোয়াখালী সংযুক্ত ট্রেনিং সেন্টারে ট্রেইনি রিক্রুট কনস্টেবল (টিআরসি) ৫ম ব্যাচের প্রশিক্ষণার্থীদের সমাপনী কুচকাওয়াজ সম্পন্ন হয়েছে। এ উপলক্ষে গতকাল রোববার সকাল ১০ টায় এক বর্নাঢ্য অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। ২শ’২২জন টিআরসি ছয় মাসের কঠোর মৌলিক প্রশিক্ষণ শেষে সমাপনী কুচকাওয়াজে অংশ নেন। এ সকল টিআরসি বাংলাদেশ পুলিশের নিয়মিত সদস্য হিসেবে অন্তর্ভূক্ত হবেন।

কুচকাওয়াজে প্রধান অতিথি হিসেবে সিলেট রেঞ্জ এর ডিআইজি মোঃ কামরুল আহসান বিপিএম উপস্থিত থেকে অভিবাদন গ্রহণ ও প্যারেড পরিদর্শন করেন। প্যারেড অনুষ্ঠানে টিআরসিদের উদ্দেশ্যে তিনি ‘দুষ্টের দমন ও শিষ্টের পালন’ এই মূলনীতিতে অবিচল থেকে জনসেবায় আত্মনিয়োগ করার আহ্বান জানান। তিনি বলেন, বাংলাদেশ পুলিশ দেশের জন্য গৌরব অর্জন করে আসছে। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আহবানে সাড়া দিয়ে স্বাধীনতা যুদ্ধের সূচনা লগ্নে ২৫ মার্চের ভয়াল কালোরাতে পাকিস্তান সেনাবাহিনীর বিরুদ্ধে সর্বপ্রথম সশস্ত্র প্রতিরোধ গড়ে পুলিশ বাহিনী। দেশের জন্য জীবন উৎসর্গকারী বীর পুলিশ সদস্যদের শ্রদ্ধাভরে স্মরণ করেন ডিআইজি।

তিনি টিআরসিদের মনোমুগ্ধকর কুচকাওয়াজের ভূয়সী প্রশংসা করেন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দিক নির্দেশনায় পুলিশ বাহিনীকে দক্ষ, আধুনিক প্রযুক্তিতে সমৃদ্ধ করে তোলার উদ্যোগ নেয়া হয়েছে বলে জানান। তিনি পেশাদার পুলিশ হিসেবে ভবিষ্যতে জাতিসংঘ মিশনে দায়িত্ব পালনের সুযোগের কথা উল্লেখ করেন। পুলিশের অনলাইন ভিত্তিক সেবা প্রদানের পাশাপাশি ৯৯৯ সার্ভিস এর মাধ্যমে বিনা টোলে বাংলাদেশের যে কোন প্রান্ত থেকে পুলিশ, ফায়ার সার্ভিস ও এম্বুলেন্সের মত জরুরী সেবা গ্রহণের বিষয়টি অবহিত করেন প্রধান অতিথি।

আরআরএফ কমান্ড্যান্ট মোঃ মাহমুদুর রহমান পিপিএম’র দিক নির্দেশনায় ৬ মাস ব্যাপী টিআরসিদের প্রশিক্ষণ কার্যক্রম পরিচালিত হয়। সমাপনী কুচকাওয়াজে অধিনায়ক ছিলেন আরআরএফ এর সিনিয়র এএসপি জাকির হোসাইন এবং সহ-অধিনায়ক ছিলেন ইন্সপেক্টর (সশস্ত্র) বাহার উদ্দিন। টিআরসিদের মধ্যে টিআরসি/০৩ মোঃ নজরুল ইসলাম সকল বিষয়ে (আইন, প্যারেড, পিটি ও ফায়ারিং) শ্রেষ্ঠত্ব অর্জন করেন। এছাড়া, আইন বিষয়ে টিআরসি/১৭ রাকিব হোসেন, প্যারেডে টিআরসি/২৫ সাইফুল ইসলাম, পিটিতে টিআরসি/৬০ ইকবাল হোসেন, ফায়ারিং এ টিআরসি/১১২ মোঃ ইলিয়াস ১ম স্থান অর্জন করেন। শ্রেষ্ঠত্ব অর্জনকারী টিআরসিদের মাঝে প্রধান অতিথি ট্রফি বিতরণ করেন।

অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, এসএমপির পুলিশ কমিশনার গোলাম কিবরিয়া, মিসেস মুনমুন আহসান, সভানেত্রী পুনাক, সিলেট রেঞ্জের অতিরিক্ত ডিআইজি জয়দেব কুমার ভদ্র, অবসর প্রাপ্ত পুলিশ সুপার কাউসার আহমদ হায়দরী, মদন মোহন কলেজের অধ্যক্ষ ডক্টর আবুল ফতেহ ফাত্তাহ, সিলেটের পুলিশ সুপার মোঃ মনিরুজ্জামান, সুনামগঞ্জের পুলিশ সুপার মোঃ বরকতুল্লাহ, উপ-পুলিশ কমিশনার (দক্ষিণ) মোহাঃ সোহেল রেজা পিপিএম, রেঞ্জ কার্যালয়ের পুলিশ সুপার নূরুল ইসলাম, এনএসআই-এর যুগ্ম পরিচালক আলমগীর হোসেনসহ সিলেট রেঞ্জ ও এসএমপির অন্যান্য পুলিশ কর্মকর্তাবৃন্দ।

কুচকাওয়াজে মুন্সীগঞ্জ জেলার ৬৮ জন, নোয়াখালী জেলার ১৫৪ জন সহ মোট ২২২জন টিআরসি অংশগ্রহণ করেন। এসএমপির অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার মুহম্মদ আব্দুল ওয়াহাব প্রেরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

এই সংবাদটি 1,039 বার পড়া হয়েছে

WP Facebook Auto Publish Powered By : XYZScripts.com