বৃহস্পতিবার, ০৭ মার্চ ২০১৯ ১২:০৩ ঘণ্টা

ওসমানীনগরে ডাকাত-পুলিশ গুলাগুলিতে আহত ৭

Share Button

ওসমানীনগরে ডাকাত-পুলিশ গুলাগুলিতে আহত ৭

ওসমানীনগর প্রতিনিধি

ওসমানীনগরের আন্তঃজেলা ডাকাত দলের সদস্য সোহেলকে সাথে নিয়ে অস্ত্র উদ্ধার অভিযানের সময় গুলাগুলিতে থানার ওসি ও এসআইসহ ৭পুলিশ সদস্য আহত হয়েছেন।

মঙ্গলবার ভোরে উপজেলার তাজপুর ইউনিয়নের চর ইসবপুর এলাকায় এই ঘটনা ঘটে।

আহতরা হচ্ছেন ওসমানীনগর থানার পরিদর্শক(ওসি) এসএম আল মামুন, এসআই সুজিত চক্রবর্ত্তী, মমিনুল ইসলাম পিপিএম ও সুপ্রাংশু দে দিলু, ইয়াছির আরাফাত, কন্সটেবল জীবন ও জমির।

এসময় ডাকাত সুহেল পায়ে গুলিবিদ্ধ হয়ে আহত হয়েছে। পুলিশ সদ্যসরা সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসা গ্রহণ করেছেন এবং সুহেল চিকিৎসাধীন রয়েছে।

পুলিশ জানায়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে মঙ্গলবার গভীর রাতে ওসমানীনগরের চর ইসবপুর গ্রামের ইর্শ্বাদ আলীর ছেলে সোহেলকে গ্রেফতারে বিশেষ অভিযান চালায় পুলিশ। অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ওসমানীনগর সার্কেল) মোহাম্মদ সাইফুল ইসলামের তদারকিতে এবং ওসমানীনগর থানার ওসির নেতৃত্বে একদল পুলিশ বিয়ানীবাজার থানা পুলিশের সহযোগিতায় বিয়ানীবাজার চন্দ্রগ্রাম গ্রাম এলাকায় শশুর বাড়িতে আত্মগোপনে থাকা সোহেলকে গ্রেফতারে সক্ষম হয় পুলিশ। তাকে গ্রেফতারের পর প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে অস্ত্রের সন্ধান দেয় সে।

বুধবার ভোরে সোহেলকে সাথে নিয়ে ওসমানীনগরের চর ইসবপুর গ্রামে অস্ত্র উদ্ধারে গেলে ডাকাতরা সোহলকে ছিনিয়ে নিতে পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি ও ইটপাটকেল ছুড়তে থাকে।

এসময় পুলিশ আত্মরক্ষার্থে ৯রাউন্ড গুলি ছুড়লে ডাকাতরা পালিয়ে যায়। ডাকাতদের ছুড়া গুলির স্পীংটার এবং ইটপাটকেলের আঘাতে পুলিশ সদস্যরা আহত হন। গুলাগুলিকালে ডান পায়ে গুলিবিদ্ধ হয়ে সোহেল আহত হয়।

এসময় ঘটনাস্থল থেকে দু’টি পাইপগান ও ৬ রাউন্ড গুলি উদ্ধার করে পুলিশ। এঘটনায় পুলিশ বাদী হয়ে একটি পুলিশ অ্যাসল্ট ও একটি অস্ত্র মামলা দায়ের করেছে।

ওসমানীনগর থানার পরিদর্শক (ওসি) এসএম আল মামুন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, কুখ্যাত ডাকাত সোহেলের বিরুদ্ধে ডাকাতি ও চুরির ঘটনায় ৮টি মামলা রয়েছে। তাকে সুকৌশলে ধরার পর অস্ত্র উদ্ধারে অভিযান চালালে পুলিশের ওপর অতর্কিত হামলা চালায় ডাকাতরা। তাদের হামলায় আমিসহ ৭পুলিশ সদস্য আহত হয়েছেন।

এই সংবাদটি 1,456 বার পড়া হয়েছে

WP Facebook Auto Publish Powered By : XYZScripts.com