শুক্রবার, ২২ মার্চ ২০১৯ ০৩:০৩ ঘণ্টা

বালাগঞ্জে গণধর্ষণে জড়িতদের ফাঁসি চেয়ে সিলেটে মানববন্ধন

Share Button

বালাগঞ্জে গণধর্ষণে জড়িতদের ফাঁসি চেয়ে সিলেটে মানববন্ধন

সিলেট রিপোর্ট :

বালাগঞ্জ উপজেলায় ৭ম শ্রেণীর মাদরাসা ছাত্রীকে নিজ ঘর থেকে জোর করে তুলে নিয়ে দলবেধে ধর্ষণ করে প্রতিবেশী বখাটেরা। ন্যাক্কার জনক এই ঘটনায় জড়িদের গ্রেফতার ও দ্রুত গ্রেফতার করে ফাঁসির দন্ড কার্যকর করার দাবিতে জাস্টিস ফর তাহিয়া ইসলাম গহরপুর যুব সমাজের উদ্যোগে সিলেটে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করা হয়েছে।২১মার্চ বৃহস্পতিবার দুপুরে সিলেট নগরীর কোর্ট পয়েন্ট, বন্দরবাজার ও জেলা পরিষদের সামনে অনুষ্টিত মানববন্ধনে জামেয়া ইসলামিয়া হুসাইনিয়া গহরপুর, দেওয়ান বাজার হাই স্কুল এন্ড কলেজ, খয়রুন নেছা মহিলা মাদরাসা, ছমিরুন নেছা উচ্চ বিদ্যালয়, নর্থ ইস্ট বালাগঞ্জ কলেজের শিক্ষক-শিক্ষার্থীসহ বিভিন্ন সামাজিক সংগঠনের পক্ষ থেকে ব্যানার, ফেস্টুন ও প্লেকার্ড নিয়ে উপস্থিত হয়ে জড়িতদের গ্রেফতারের দাবি জানান।

মানববন্ধন শেষে একই দাবিতে দাবিতে সিলেটর জেলা প্রশাসক ও পুলিশ সুপারের নিকট স্মারকলিপি দেয়া হয়। মানবন্ধনে ক্ষোভ প্রকাশ করে বক্তারা বলেন, গণধর্ষণের শিকার মাদরাসা ছাত্রীর ভবিষ্যত নিয়ে তার পরিজন-পরিজন উদ্বিগ্ন রয়েছেন। পরিবারের নিরাপত্তা নিয়েও প্রশ্ন ওঠেছে। মেয়েটি শারীরিক ও মানষিক ভাবে বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে। তার পড়ালেখাও বন্ধ রয়েছে। প্রতিবেশী কয়েকজন মিলে মেয়েটিকে নিজ ঘরের বারান্দা থেকে জোর করে উঠিয়ে নিয়ে এই ঘটনা ঘটিয়েছে। স্থানীয় মাদরাসায় ৭ম শ্রেণীতে পড়–য়া ১৩ বছরের ওই শিক্ষার্থীর মেডিকেল পরীক্ষায় গণধর্ষণের বিষয়টি সুষ্পষ্ট ভাবে প্রতীয়মান হয়েছে। মেয়েটি নির্যাতনকারীদের চিনতে পেরেছে এবং তাদের নামও প্রকাশ করেছে। প্রমাণ থাকা সত্ত্বেও অপরাধীদের ধরতে পুলিশ প্রশাসন তালবাহানা করছে। দুইজনকে গ্রেফতার করলেও তাদের দেয়া জবানবন্দির বিষয়টি এখনো খোলাসা করা হচ্ছে না। এতে প্রতিয়মান হয় কার্য্য নিয়ে কালক্ষেপণ করা হচ্ছে। শিশুটিকে পাশবিক নির্যাতনকারী সকল অপরাধীকে প্রেফতার করে তাদের ফাঁসি নিশ্চিত করতে হবে।

মানবন্ধনে বক্তৃতা করেন, অ্যাডভোকেট জুয়েল আহমদ, সমাজ সেবক এনায়েতুর রহমার রাজু, হারুন মিয়া, আছলম খা, খালেদ মিয়া, ময়নুল হক, ছমির মিয়া, মাও: ফয়জুর রহমান, আব্দুল হামিদ, তজমুল আরী, শামীম আহমদ, রায়হান আহমদ, মাও: ছালাম, শাহীনুর পাশা, সিলেট বিভাগ জনস্বার্থ সংরক্ষণ পরিষদের সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা রাজিউল ইসলাম তালুকদার রাজু, সাধারণ সম্পাদক শহিদুর রহমান জুনু ও যৌন নিপিড়ন বিরোধী শিক্ষার্থী জোটের আহবায়ক এবিএম মাহমুদুল হাসান সিদ্দিকী প্রমুখ।

প্রসঙ্গত, গত বছরের ২২ নভেম্বর সন্ধ্যার দিকে উপজেলার শিওর খাল গ্রামের ৭ম শ্রেণীর ওই মাদরাসা ছাত্রীকে নিজ ঘরের বারান্দা থেকে জোর করে উঠিয়ে নিয়ে বাড়ির নির্জন স্থানে গণধর্ষণ করে প্রতিবেশী বখাটেরা। এই ঘটনায় ভিকটিমের পিতা বাদি হয়ে ২৩ নভেম্বর রাতে বালাগঞ্জ থানায় মামলা দায়ের করেন, মামলা নং-৮। ঘটনার পর থেকে গণধর্ষণের সাথে জড়িতদের সর্বোচ্ছ শাস্তির দাবিতে স্থানীয় বাসিন্দা, সামাজিক সংগঠন ও বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্টানের উদ্যোগে প্রতিবাদ সমাবেশ, বিক্ষোভ ও মানববন্ধনসহ অব্যাহত কর্মসূচিতে উত্তাল হয়ে ওঠে পুরো উপজেলা।

এই সংবাদটি 1,229 বার পড়া হয়েছে

WP Facebook Auto Publish Powered By : XYZScripts.com