বুধবার, ০১ জুন ২০১৬ ১১:০৬ ঘণ্টা

অপপ্রচার চালিয়ে বঙ্গবন্ধুর আদর্শ থেকে কেউ আমাকে সরাতে পারবে না : আফছার খান সাদেক

Share Button

অপপ্রচার চালিয়ে বঙ্গবন্ধুর আদর্শ থেকে কেউ আমাকে সরাতে পারবে না : আফছার খান সাদেক

02 03যুক্তরাজ্যের মাটিতে প্রথমবারের মতো জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ভাস্কর্য  লন্ডনের ব্যস্ততম এলাকা ঐতিহাসিক সিডনি স্ট্রিটে স্থাপনের প্রক্রিয়াধীন। যুক্তরাজ্যের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী তেরেসা এর উদ্বোধন করবেন। লন্ডন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক আফসার খান সাদেক ২০১৪ সালের প্রথম দিকে যুক্তরাজ্যের স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ে বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য স্থাপনের অনুমতি চেয়ে আবেদন করেন। এর দুই বছর পর দেশটির মন্ত্রণালয় থেকে সিডনি স্ট্রিটে বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য বসানোর অনুমতি দেওয়া হয়। জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ভাস্কর্য  তৈরি ও এ মহান নেতার স্মৃত্বি ধরে রাখার মুল উদ্যোগক্তা আফসার খান সাদেকের বিরুদ্ধে একটি চক্র দেশে ইউনিয়ন নির্বাচনকে কেন্দ্র করে অপপ্রচার চালাচ্ছে। মিডিয়া ব্যক্তিত্ব জননেতা আফছার খান সাদেক বলেন, অপপ্রচার  চালিয়ে বঙ্গবন্ধুর আদর্শ থেকে কেউ
আমাকে সরাতে পারবে না -‘একটি মহল আমার বিরুদ্ধে অপপ্রচার চালিয়ে নির্বাচন ব্যবস্থাকে বিতর্কিত করতে চাইছে। এরা বঙ্গবন্ধুর খুনী খন্দকার মোস্তাকের দোসর। মূলত আমার জনপ্রিয়তায় ঈর্ষাণ্বিত হয়ে দেশ-বিদেশে থাকা ওই চক্রের সদস্যরা এমনটি করছে বলে আমি মনে করি। তিনি বলেন,-‘আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ থেকে আমি নির্বাচন করতে চাই। যা মহল বিশেষের সহ্য হচ্ছেনা। বিয়ানীবাজারে আওয়ামীলীগের রাজনীতিতে ঘাপটি মারা থাকা সেই মোস্তাক চক্রের সদস্যরা আঞ্চলিকতার দোহাই দিয়ে রাজনীতিকে কুক্ষিগত করে রাখতে চায়। আমার রাজনৈতিক কৌশলের কাছে তারা পরাজিত হয়ে এখন অপপ্রচারের জগন্য খেলায় মেতেছে। আফছার খান সাদেক বলেন, আমি খেলতে নেমেছি, ঘুমটা পরে থাকবোনা। বিজয় আমার হবেই।’ সম্প্রতি শেওলা ইউনিয়নে আফছার খান সাদেক তার ভাইয়ের প্রচারণায় অংশ নিয়ে লাঞ্চিত হয়েছেন মর্মে যে তথ্য সরবরাহ করা হচ্ছে তার সাথে প্রতিবাদ জানিয়ে তিনি বলেন,- আমি আমার মায়ের অসুস্থতার সংবাদ পেয়ে দেশে এসেছি, ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে বঙ্গবন্ধুর হাতে গড়া আওয়ামীলীগের দলীয় নৌকা প্রতিকের প্রার্থী মো: জহুর উদ্দিন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন, তার সাথে একই ইউনিয়নে ধানের শীষ প্রতিকে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন আমার আপন ভাই তিন বারের জেলা পর্যায়ের শ্রেষ্ট্র চেয়ারম্যান হিসেবে পদক লাভকারী আখতার হোসেন খান জাহেদ। আমার ভাইয়ের প্রতিদ্বন্দ্বি প্রার্থীর পক্ষে আমি নিজে প্রচার প্রচারণায় অংশ গ্রহন করে আসলেও একটি চক্র ঘোলা পানিতে মাছ শিকারের জন্য আমাকে দলীয় ভাবে ঘায়েলের চক্রান্তে লিপ্ত রয়েছে। তারা বলছে আমি নাকি আমার ভাইয়ের পক্ষে মাঠে কাজ করছি। যারা এসব অপপ্রচার চালাচ্ছে,তাদের উদ্দেশ্যে করে বলতে চাই, আমি আওয়ামীলীগের রাজনীতি করি। দলের স্বার্থে আমি নিজে ভাইয়ের পক্ষে নয় নৌকা প্রতিকের পক্ষে সাধারণ ভোটারদের কাছে ভোট চেয়েছি, এতে প্রতিয়মান হয়, আমি দলের স্বার্থে কাজ করছি কিনা ? এলাকার সাধারণ মানুষরা তাদের গণতান্ত্রিক অধিকার ভোট দিয়ে তাদের জনপ্রতিনিধি নির্বাচিত করবে, এখানে কারো বিরুদ্ধে কেউ অপপ্রচার চালিয়ে ফায়দা হাসিল করতে পারবেন না। আফছার খান সাদেক আরো বলেন, ‘আমাদের খান পরিবার বিয়ানীবাজারের একটি ঐতিহ্যবাহী পরিবার। এ পরিবারের সদস্যরা নৈতিকভাবে পারিবারিক বন্ধনকে সুদৃঢ় রাখতে বদ্ধ পরিকর। একই সাথে রাজনীতির মঞ্চ কাপিয়ে দিয়ে আদর্শকে সমুন্নত রাখতে পিছপা হননা। সূতরাং মিথ্যা তথ্যকে পূঁজি করে ধূয়াশা সৃ্িষ্টর কোন কারণ নেই।’ তিনি বিভিন্ন ওয়েবসাইটে কাল্পনিক, মিথ্যা, বান্য়োাট এবং দেশী-বিদেশী রাজনৈতিক, আঞ্চলিক ও সাংগঠনিক ষড়যন্ত্রে প্রচারিত অপপ্রচারের নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান। একই সাথে এসব জগন্য মিথ্যাচার সম্বলিত কথিত সংবাদ প্রত্যাহার করে নি:শ্বর্ত ক্ষমা প্রার্থনার অনুরোধ করেন। অন্যতায় বর্তমান প্রচলিত তথ্য ও প্রযুক্তি আইনে তিনি অপপ্রচারকারীদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করবেন বলে জানান  । প্রেস-বিজ্ঞপ্তি।

এই সংবাদটি 1,035 বার পড়া হয়েছে

WP2FB Auto Publish Powered By : XYZScripts.com