বুধবার, ১৭ এপ্রি ২০১৯ ০৯:০৪ ঘণ্টা

দক্ষিণ সুরমায় ছাত্রী নিপীড়নের ঘটনায় শিক্ষক গ্রেপ্তার

Share Button

দক্ষিণ সুরমায় ছাত্রী নিপীড়নের ঘটনায় শিক্ষক গ্রেপ্তার

দক্ষিণ সুরমা প্রতিনিধি

দক্ষিণ সুরমার নৈখাই হাজী মোহাম্মদ রাজা চৌধুরী উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম ছাত্রীকে এক ছাত্রীকে যৌন নিপীড়নের ঘটনায় দায়েরকৃত মামলায় এক শিক্ষককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। আমিনুল ইসলাম চৌধুরী নামের ওই শিক্ষককে মঙ্গলবার আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

এর আগে সোমবার নিপীড়নের শিকার স্কুল ছাত্রীর ভাই বাদী হয়ে মহানগর পুলিশের মোগলাবাজার থানায় মামলা (নং-৫) দায়ের করেন। পরে দিবাগত রাত ৪টার দিকে পুলিশ অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেপ্তার করে। গ্রেপ্তার আমিনুল ইসলাম চৌধুরী ওই স্কুলের ইংরেজি বিষয়ে খন্ডকালীন শিক্ষক হিসেবে কর্মরত ছিলেন। তিনি সুনামগঞ্জ সদর উপজেলার আহমাবাদ গ্রামের মৃত আব্দুর রহিম চৌধুরী ছেলে।

মামলা সূত্রে জানা যায়, হাজী মোহাম্মদ রাজা চৌধুরী উচ্চ বিদ্যায়ের ইংরেজি বিষয়ে খন্ডকালীন শিক্ষক আমিনুল ইসলাম চৌধুরী বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকের রুমে গত ৬ এপ্রিল শনিবার সকাল সোয়া নয়টায় নবম শ্রেণির ওই ছাত্রীর স্পর্শকাতর স্থানে হাত দেন। পরের দিন ৭ এপ্রিল ওই ছাত্রী স্কুলে দেরিতে যায়। ৮ এপ্রিলও স্কুলে দেরিতে যায়। ওই দিন শিক্ষক আমিনুল ক্লাসে গিয়ে ছাত্রীকে উদ্দেশ্য করে বলেন, এই ক্লাসে একটি খারাপ মেয়ে রয়েছে। সময়মত আমি তা প্রকাশ করবো। এরপর ছাত্রীটি স্কুলের শিক্ষক সুমিন আহমদকে বিষয়টি জানায়। শিক্ষক সুমিন আহমদ দু’জন মহিলা শিক্ষককে ঘটনাটির সত্যতা যাচাই করতে বলেন।

লাঞ্ছিত ছাত্রী মহিলা শিক্ষকদের জানায়, গত ১ এপ্রিল সকালে শিক্ষক আমিনুল তার শরীরে হাত দেয়। এরপর ২ ও ৩ এপ্রিল তার স্পর্শকাতর স্থানে আমিনুল হাত দেয়। বিষয়টি পরে প্রধান শিক্ষককে জানানো হয়। প্রধান শিক্ষক বিষয়টি বিদ্যালয়ে এডহক কমিটির সভাপতিকে অবগত করেন। এরপর রোববার কমিটির সিদ্ধান্ত মোতাবেক শিক্ষক আমিনুল ইসলাম চৌধুরীকে বরখাস্ত করা হয়।

এ ঘটনায় উপজেলা জুড়ে ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া দেখা দিয়েছে। ১৭ এপ্রিল বুধবার বিদ্যালয়ের বর্তমান ও প্রাক্তন শিক্ষার্থী অভিযুক্ত শিক্ষকের সর্বোচ্চ শাস্তির দাবীতে বিক্ষোভ সমাবেশ করবেন বলে স্থানীয় সূত্র জানিয়েছে।

এই সংবাদটি 1,005 বার পড়া হয়েছে

WP2FB Auto Publish Powered By : XYZScripts.com