মঙ্গলবার, ০৪ জুন ২০১৯ ০৩:০৬ ঘণ্টা

হাওরাঞ্চলে নেই পিঠাপুলির ধুম, কেনা হয়নি নতুন জামা

Share Button

হাওরাঞ্চলে নেই পিঠাপুলির ধুম, কেনা হয়নি নতুন জামা

সিলেট রিপোর্ট :

হাওরপাড়ে দেখা মিলছেনা ঈদ আনন্দের। এবছর ঈদকে সামনে রেখে নেই সেই চিরাচরিত পিঠাপুলি তৈরী ধুম। আবার অনেকেরই সাধ্য হয়নি নতুন জামা-কাপড় কেনার।

সাধারণত হাওরের অর্থনৈতিক কাঠামো নির্ভর করে উৎপাদিত একমাত্র বোরো ফসলের উপর। এবছর হাওরে বোরো ফলন ভালো হলেও ধানের ন্যায্যমূল্য না থাকায় এর প্রভাব পড়েছে কৃষকের ঈদ আনন্দে। অর্থাভাবে কষ্টে দিন কাটাচ্ছে হাওরের কৃষক। সামনে ঈদ। ঈদের বারতি খরচ যোগাতে হিমশিম খাচ্ছে তারা। অর্থাভাবে এবছর অনেক কৃষক পরিবারে কেনা হয়নি নতুন পোষাক।

একসময় ঈদকে সামনে রেখে হাওরের গ্রামগুলোতে চলতো বিভিন্ন বাহারী সাজের পিঠাপুলি তৈরীর ধুম। নানা রকম পিঠা তৈরীতে গ্রামের মহিলারা থাকতেন ব্যস্ত। কিন্তু গ্রামীণ অর্থনৈতিক মন্দার কারণে অনেকটা ভাটা পড়েছে এসব ঐতিহ্যের।

সুনামগঞ্জের শাল্লা উপজেলার বিভিন্ন গ্রামে খোঁজ নিয়ে জানা যায় ঈদকে সামনে রেখে হাতেগোনা কতক পরিবার ছাড়া অধিকাংশ পরিবারে নেই পিঠা তৈরীর ব্যস্ততা।

উপজেলার সুলতানপুর গ্রামের রাবেয়া খাতুন বলেন, “কি আর কমু ভাই, এবার ধানে দাম নাই, পিঠা বানামু কি দিয়া। কম দামে ধান বেচে ঈদ করলে বাকিদিন কেমনে চলুম”।

উপজেলার শাল্লা ইউনিয়নের চব্বিশা গ্রামের কোহিনুর বেগম বলেন, অভাবের লাগি তিন বছর ধইরা ঈদ কি বুঝি না। ঈদের পিঠাও বানাই না।শুধু রাবেয়া ও কোহিনুরই নন ; উপজেলার বিভিন্ন গ্রামের অনেক পরিবারেই দেখা গেছে এমন চিত্র।

একই ইউনিয়নের ইয়ারাবাদ গ্রামের কৃষক উসমান মিয়া জানান, সামনে ঈদ। ভাবছি কি দিয়া ঈদ করমু। এখন ধানের দাম একেবারে কম। ধানও বিক্রি করতে পারছিনা। তাই ছেলেমেয়েদের নতুন জামা-কাপড়ও কিনে দিতে পারিনি।

এবিষয়ে শাল্লা ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ জামান চৌধুরী বলেন, আমি নিজেও আমার ইউনিয়নের বিভিন্ন গ্রাম ঘুরে দেখেছি ঈদের সেই আনন্দ নেই। এর কারণ হিসেবে তিনি জানান, এবছর খোলা বাজারে ধানের মূল্য কম। আবার অনেক কৃষক মহাজনের কাছ থেকে ঋণ করে জমি আবাদ করছে এবং স্বল্পমূল্যে ধান বিক্রি করে বৈশাখ মাসেই সেই ঋণ পরিশোধ করেছে।

অপরদিকে সরকার ১হাজার ৪০টাকা মণ মূল্যে ধান কিনলেও সকল কৃষক সরকারি মূল্যে ধান বিক্রি করতে পারছেনা। ফলে আর্থিক সংকটের কারণেই ঈদ আনন্দ থেকে বঞ্চিত হয়ে পড়েছে হাওরপাড়ের কৃষক।

এই সংবাদটি 1,068 বার পড়া হয়েছে

WP2FB Auto Publish Powered By : XYZScripts.com