স্ত্রী অফিসে, গৃহকর্মীকে অন্তঃসত্ত্বা করলেন এনজিও কর্মকর্তা স্বামী

প্রকাশিত: ১২:০৯ অপরাহ্ণ, জুলাই ৩, ২০১৯

স্ত্রী অফিসে, গৃহকর্মীকে অন্তঃসত্ত্বা করলেন এনজিও কর্মকর্তা স্বামী

ডেস্করিপোর্ট: যশোরের মণিরামপুরে গৃহপরিচারিকাকে (১৩) ধর্ষণের অভিযোগে গোলাম কিবরিয়া নামে এক এনজিও কর্মকর্তাকে আটক করেছে পুলিশ। বর্তমানে ওই কিশোরী অন্তঃসত্ত্বা। পৌর এলাকার তাহের গ্রামের ভাড়া বাসা থেকে ওই এনজিও কর্মকর্তাকে আটকের পর মঙ্গলবার তাকে আদালতে সোপর্দ করা হয়।

আটক কিবরিয়া ঝিনাইদহ জেলার শৈলকূপা উপজেলার আসাননগর গ্রামের মৃত চাঁদ আলী বিশ্বাসের ছেলে। তিনি পল্লী দারিদ্র্য বিমোচন ফাউন্ডেশনের মণিরামপুর শাখার কর্মকর্তা।

এ ঘটনায় ধর্ষণের শিকার ওই কিশোরীর বাবা বাদী হয়ে মণিরামপুর থানায় ধর্ষণ মামলা করেছেন। যার মামলা নং-২।

মামলার এজাহার সূত্রে জানা যায়, গোলাম কিবরিয়া মণিরামপুর উপজেলার ফতেয়াবাদ গ্রামে বিয়ে করে চাকরিজীবী স্ত্রীকে নিয়ে পৌর এলাকার তাহেরপুর গ্রামে ভাড়া বাসায় বসবাস করেন। ওই বাসায় গৃহপরিচারিকা হিসেবে মণিরামপুরের এক কিশোরীকে রাখা হয়।

অভিযোগ রয়েছে স্ত্রীর অনুপস্থিতিতে বিভিন্ন প্রলোভন দেখিয়ে দীর্ঘদিন ধরে তিনি ওই কিশোরীকে ধর্ষণ করেছেন। এক পর্যায়ে ওই কিশোরী অসুস্থ হয়ে পড়লে চলতি বছরের ফেব্রুয়ারি মাসে সে বাবার বাড়িতে চলে যায়।

মামলার বাদী কিশোরীর বাবা জানান, মেয়েকে যশোরের একটি ক্লিনিকে নিয়ে চিকিৎসার জন্য গেলে চিকিৎসক জানান তার মেয়ে প্রায় ৫ মাসের অন্তঃসত্ত্বা। এরপর তিনি গত সোমবার রাতে মণিরামপুর থানায় গিয়ে ধর্ষণ মামলা করেন। ওই রাতেই পুলিশ অভিযান চালিয়ে পৌর এলাকার তাহেরপুর গ্রামের ভাড়াবাসা থেকে গোলাম কিবরিয়াকে আটক করে।

থানা পুলিশের ওসি (তদন্ত) এসএম এনামুল হক জানান, মঙ্গলবার আটক কিবরিয়াকে আদালতে চালান দেয়ার পাশাপাশি ওই কিশোরীকে পুলিশ হেফাজতে নিয়ে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়েছে।

এই সংবাদটি 7 বার পঠিত হয়েছে

WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com