বৃহস্পতিবার, ১১ জুলা ২০১৯ ০৯:০৭ ঘণ্টা

আঞ্জুমানে তা’লীমুল কুরআন বোর্ডের ফল প্রকাশ

Share Button

আঞ্জুমানে তা’লীমুল কুরআন বোর্ডের ফল প্রকাশ


সিলেট রিপোর্টঃ

আঞ্জুমানে তা’লীমুল কুরআন বাংলাদেশ ২০১৯ শিক্ষাবর্ষ’র (১৪৪০হিজরী) দেশব্যাপী অনুষ্ঠিত কেন্দ্রীয় পরীক্ষার ফলাফল আজ ১১ জুলাই ২০১৯ বিকেল ৫ টায় প্রকাশ করা হয়। ফলাফল প্রকাশ উপলক্ষ্যে সিলেট মহানগরীর গোটাটিকরস্থ আঞ্জুমান কমপ্লেক্স কেন্দ্রীয় দফতরে পরীক্ষা কমিটির এক সভা কেন্দ্রীয় সভাপতি মাওলানা ক্বারী শাহ নজরুল ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয়। সভায় কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক ও পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক মাওলানা ক্বারী ইমদাদুল হক পরীক্ষার বিস্তারিত ফলাফল আঞ্জুমান সভাপতি মাওলানা ক্বারী শাহ নজরুল ইসলামের নিকট হস্তান্তর করেন।

এ সময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, আঞ্জুমান কেন্দ্রীয় সহ-সভাপতি মাওলানা ক্বারী জালাল উদ্দীন গবীনপুরী, সহ-সাধারণ সম্পাদক মাওলানা ক্বারী ইনাম বিন সিদ্দিক, দফতর সম্পাদক মাওলানা ক্বারী হারুনুর রশীদ, অর্থ সম্পাদক মাওলানা ক্বারী জুবায়ের আহমদ আনোয়ারী, সহকারী পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক মাওলানা ক্বারী মুজাহিদুল ইসলাম, সিলেট মহানগর সেক্রেটারি মাওলানা ক্বারী হিফজুর রহমান, পরীক্ষা কমিটির সদস্য মাওলানা ক্বারী ফয়জুল্লাহ মায়মুন, মাওলানা ক্বারী নিয়াজুর রহমান নিজাম, মাওলানা ক্বারী আবুল হুসাইন শরীফ, মাওলানা ক্বারী জুবায়ের আহমদ, মাওলানা ক্বারী মামুনুর রশীদ মাছুম, মাওলানা ক্বারী হাবিবুর রহমান হাবিব, মাওলানা ক্বারী নাঈমুল হাছান নাজিম প্রমুখ।

বিগত রমযান মাসে সারাদেশে ১৫৭৮টি ক্বিরাআত প্রশিক্ষণ কেন্দ্রে ২,৩৬,৫২৩ জন ছাত্র-ছাত্রী ইলমুল ক্বিরাআত শিক্ষা গ্রহণ করে। তম্মধ্যে তিনটি ক্লাসে ১২৭৯৩ জন ছাত্র-ছাত্রী কেন্দ্রীয় পরীক্ষায় অংশ গ্রহণ করে ১০৩৪৩ জন উত্তীর্ণ হয়। এবারের পাসের হার ৮০.৮৪%।

সনদ জামাআতে ১৯৪৬ জন ছাত্র-ছাত্রী পরীক্ষায় অংশ গ্রহণ করে ১৭২৫ জন উত্তীর্ণ হয়, পাশের হার ৮৮.৬৪%।পুরুষদের মধ্যে মেধা তালিকায় প্রথম ক্বারী আল-আমীন [২০৪] (আঞ্জুমান কমপ্লেক্স, গোটাটিকর, সিলেট)। দ্বিতীয়, ক্বারী আমীরুল ইসলাম [৪৫৮] (জামিয়া ফিরুজাবাগ বালাগঞ্জ, সিলেট), তৃতীয়, ক্বারী রাকিবুল হাসান [১৪৮] (আঞ্জুমান কমপ্লেক্স, গোটাটিকর, সিলেট)। মহিলাদের মধ্যে মেধা তালিকায় প্রথম ক্বারী ছামিনা আক্তার [৬০৭] (আঞ্জুমান কমপ্লেক্স, গোটাটিকর, সিলেট)। দ্বিতীয়, ক্বারী আবিদা ইয়াসমিন [৭৫৬] (মার্কাজুল উলূম পঞ্চগ্রাম মহিলা মাদ্রাসা, দোয়ারাবাজার, সুনামগঞ্জ), তৃতীয়, ক্বারী হাজেরা খানম [১৯২৩] (বাঘা গৌরাবাড়ী মহিলা মাদ্রাসা, গোলাপগঞ্জ, সিলেট)।

খামিছ জামাআতে ৪৬৬৯ জন ছাত্র-ছাত্রী পরীক্ষায় অংশ গ্রহণ করে ৩৬৬৭ জন উত্তীর্ণ হয়, পাশের হার ৭৮.৫৩%। রাবে জামাআতে ৬১৭৮ জন ছাত্র-ছাত্রী পরীক্ষায় অংশ গ্রহণ করে ৪৯৫১ উত্তীর্ণ হয়, পাশের হার ৮০.১৩%।
সনদ জামাআতে মুমতাজ [A+] প্রাপ্তদের রোল নম্বর
পুরুষ:০৫, ০৬, ০৮, ১০, ১৫, ৩২, ১১৬, ১৪৮, ১৭৩, ১৭৮, ১৭৯, ১৮০, ১৯৫, ১৯৬, ২০৪, ২৪২, ২৬০, ২৭২, ৩১৫, ৩৬১, ৩৮৭, ৩৯১, ৪০৯, ৪৫৮, ৪৬৮, ৫০৮।
মহিলা: ৬০৪, ৬০৫, ৬০৭, ৬০৮, ৬০৯, ৬১৬, ৭৩০, ৭৫৪, ৭৫৫, ৭৫৬, ৭৯৩, ৮৪৮, ৮৬১, ৯১৭, ৯৪৫, ৯৮৩, ১০১১, ১০৩৭, ১০৫৭, ১০৫৯, ১০৬০, ১১০৪, ১১১১, ১১২০, ১১৫৯, ১১৮১, ১২৩৫, ১২৩৭, ১২৬৭, ১২৭৯, ১৩১৮, ১৩২১, ১৩৪৯, ১৩৯৯, ১৪৪৩, ১৫৪০, ১৫৬৬, ১৬৩২, ১৭৪৭, ১৭৬৩, ১৭৮৬, ১৮০০, ১৮২৬, ১৮৩১, ১৮৯২, ১৯২৩।

বিস্তারিত ফলাফল জানতে ভিজিট করুন www.anjumanbd.org এই ওয়েবসাইটে। আঞ্জুমানের অফিসিয়াল ফেসবুক আইডিতে www.facebook.com/anjumanbd. আগামী ২০ জুলাইয়ের মধ্যে সারাদেশে পরীক্ষা সেন্টার সমূহে পাওয়া যাবে পরীক্ষায় অংশগ্রহণকারী শাখা কেন্দ্রের বিস্তারিত ফলাফলসিট। শাখা কেন্দ্রসমূহ সনদ (মহিলা), খামিছ ও রাবের বিস্তারিত ফলাফল/মার্কসিট স্ব স্ব মারকায থেকে সংগ্রহ করতে পারবেন। এছাড়া শীঘ্রই সনদ, খামিছ ও রাবে জামাআতের বিস্তারিত ফলাফল নিয়ে গেজেট প্রকাশিত হবে ইনশাআল্লাহ। ফলাফল সংক্রান্ত কোন অভিযোগ থাকলে বা পুন: নিরীক্ষণ (নযরে সানী) করতে হলে পরীক্ষা সমপরিমাণ ফি দাখিল করত: সরাসরি কেন্দ্রীয় পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক বরাবরে আগামী ১৫ যিলহজ্ব এর মধ্যে লিখিত আবেদন করতে হবে।

এই সংবাদটি 1,053 বার পড়া হয়েছে

WP2FB Auto Publish Powered By : XYZScripts.com