সিলেটের সব নদীর পানি বিপদসীমার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে

প্রকাশিত: ১০:১৬ অপরাহ্ণ, জুলাই ১২, ২০১৯

সিলেট রিপোর্ট : সিলেটের ছয়টি উপজেলার নিম্নাঞ্চল উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢলে প্লাবিত হয়েছে। একই সঙ্গে অব্যাহত বৃষ্টিপাতের কারণে সুরমা, কুশিয়ারা এবং সারিসহ ভারত সীমান্তের সব নদীর পানি বিপদসীমার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে।

পানি উন্নয়ন বোর্ড (পাউবো) বলছে, উজানে ভারতের আসাম ও মেঘালয় রাজ্যে অব্যাহত বৃষ্টিপাতের কারণে সীমান্ত নদীগুলোতে পানি বাড়ছেই; একই সঙ্গে বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত থেকে সিলেট অঞ্চলে টানা বৃষ্টিপাতে নতুন করে একাধিক এলাকা প্লাবিত হয়েছে।

পাউবো নির্বাহী প্রকৌশলী মোহাম্মদ শহীদুজ্জামান সরকার বলেন, সিলেটের সুরমা ও কুশিয়ারার সবকটি পয়েন্টে বিপদসীমার ওপর দিয়ে পানি প্রবাহিত হচ্ছে। ফলে সব জায়গায় পানি বাড়ছে। নতুন করে কিছু উপজেলার নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হয়েছে। এ অবস্থা বিরাজমান থাকলে বন্যা পরিস্থিতির অবনতি হতে পারে বলে আশঙ্কা তার।

পাউবো সিলেটের কন্ট্রোল রুম থেকে পাওয়া তথ্যানুসারে, শুক্রবার বিকেল ৩টায় সিলেটের কানাইঘাটে সুরমা নদীর পানি বিপদসীমার ১১১ সেন্টিমিটার এবং সিলেটে ৩৬ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। একই সঙ্গে বিয়ানীবাজারের শেওলায় কুশিয়ারা নদীর পানি বিপদসীমার ১২৩ সেন্টিমিটার, জকিগঞ্জের আমলসীদে বিপদসীমার ৬৯ সেন্টিমিটার এবং মৌলভীবাজারের শেরপুর পয়েন্টে বিপদসীমার ২১ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। তাছাড়া জৈন্তাপুরের সারীঘাটে সারি নদীর পানি বিপদসীমার ২০ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে।

আবহাওয়া অফিস জানায়, শুক্রবার সকাল ৬টা থেকে বিকেল ৬টা পর্যন্ত সিলেটে ৩৯ দশমিক ৪ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড হয়েছে। এর আগের পূর্ববর্তী ২৪ ঘণ্টায় ৫৫ দশমিক ৮ মিলিমিটার রেকর্ড হয়। আগামী ২৪ ঘণ্টায় ব্যাপক বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনার কথা জানিয়েছে আবহাওয়া বিভাগ।

এই সংবাদটি 1 বার পঠিত হয়েছে

WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com