শুক্রবার, ১২ জুলা ২০১৯ ১০:০৭ ঘণ্টা

পদ্মা সেতু নিয়ে গুজব ছড়ানোর অভিযোগে গ্রেফতার ৫

Share Button

পদ্মা সেতু নিয়ে গুজব ছড়ানোর অভিযোগে গ্রেফতার ৫

ডেস্ক রিপোর্টঃ ‘পদ্মা সেতু নির্মাণে মানুষের মাথা লাগবে’ সোশ্যাল মিডিয়ায় এমন গুজব ছড়ানোর দায়ে ঢাকাসহ বিভিন্ন জেলা থেকে ৫ জনকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব।

শুক্রবার র‌্যাব সদর দফতরের লিগ্যাল অ্যান্ড মিডিয়া উইংয়ের সিনিয়র সহকারী পরিচালক এএসপি মিজানুর রহমান এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, র‌্যাব-১ এর সাইবার মনিটরিং সেল কিছুদিন আগে Newseye24.Com নামে একটি নিউজ পোর্টাল শনাক্ত করে। নিউজ পোর্টালটির কার্যক্রম পর্যবেক্ষণের মাধ্যমে দেখা যায় যে, নিউজ পোর্টালটি রাষ্ট্রীয় বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ ইস্যুতে গুজব সৃষ্টি করে জনমানুষের মধ্যে ভীতি ছড়ানোসহ আইন-শৃঙ্খলা পরিপন্থি কার্যক্রম চালিয়ে আসছে।

অতি সম্প্রতি পদ্মা সেতু নির্মাণ কাজে মানুষের মাথা লাগবে যা সংগ্রহে দেশের বিভিন্ন স্থানে বিষাক্ত স্প্রে পার্টির ৪১টি দল বের হয়েছে। যারা স্প্রের মাধ্যমে দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে মানুষের মাথা কেটে নিয়ে যাচ্ছে বলে নিউজ পোর্টাল থেকে একটি ভিত্তিহীন গুজব পোস্ট করা হয়। নিউজটি সোশ্যাল মিডিয়ায় ব্যাপকভাবে ভাইরাল হয় এবং জনমনে ভীতি সঞ্চার করে।

এ ঘটনায় র‌্যাব-১ গোয়েন্দা নজরদারি অব্যাহত রাখে এবং গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তি জানতে পারে যে, আকরাম হোসেনকে (৩৩) আশুলিয়ার ইপিজেড রোড সংলগ্ন টঙ্গা বাড়ি এলাকা থেকে মোবাইল ও কম্পিউটারসহ গ্রেফতার করা হয়।

আকরাম হোসেন জিজ্ঞাসাবাদে জানায়, সে ২০০৫ সালে পাবনার একটি স্থানীয় মাদরাসা থেকে ফাজিল পাস করে। বর্তমানে আশুলিয়ার ইপিজেড এলাকায় একটি হেভি ইকুপমেন্ট মেশিনারিজের দোকানে কর্মরত।

এএসপি মিজানুর রহমান বলেন, একইভাবে ‘পদ্মা সেতু নির্মাণে মানুষের মাথা ও রক্ত লাগবে’ সোশ্যাল মিডিয়ায় এমন গুজব ছড়ানোর দায়ে দেশের বিভিন্ন এলাকা থেকে আরও কয়েকজনকে আটক করেছে র‌্যাব।

এদের মধ্যে নড়াইল থেকে মো. শহীদুল ইসলাম (২৫), চট্টগ্রাম থেকে আরমান হোসেন (২০), মৌলভীবাজার থেকে মো. ফারুক এবং কুমিল্লা থেকে হায়াতুন্নবীকে গ্রেফতার করা হয়। প্রত্যেকের বিরুদ্ধে ডিজিটাল সিকিউরিটি অ্যাক্টে মামলা হয়েছে।

এই সংবাদটি 1,029 বার পড়া হয়েছে

WP2FB Auto Publish Powered By : XYZScripts.com