শুক্রবার, ০২ আগ ২০১৯ ০৪:০৮ ঘণ্টা

দেশব্যাপী ছাত্র জমিয়তের সদস্য সংগ্রহ অভিযান উদ্বোধন করলেন আল্লামা কাসেমী

Share Button

দেশব্যাপী ছাত্র জমিয়তের সদস্য সংগ্রহ অভিযান উদ্বোধন করলেন আল্লামা কাসেমী

ডেস্ক রিপোর্ট :
ছাত্র জমিয়ত বাংলাদেশ এর মাসব্যাপী সদস্য সংগ্রহ অভিযান ২০১৯-এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে জমিয়ত মহাসচিব আল্লামা নূর হোসাইন কাসেমী বলেছেন, দেশের সর্বস্তরের ছাত্রজনতার কাছে ছাত্র জমিয়তের দাওয়াতকে পৌছে দিতে হবে।

তিনি আরো বলেন, আমাদের আক্বাবিররা ছিলেন বাস্তবমুখী, উনারা কম কথা বলে বেশি কাজ করতেন, আমরাও যদি তাদের মত কথা কম বলে বেশি কাজ করি তবেই আমাদের সংগঠন আগে বাড়বে। সমস্যার সমাধান দিতে পারলে জাতি আগে বাড়ে, সত্যিকারের কর্মমুখী সিদ্ধান্ত নিয়ে জাতি গঠনে সময় ব্যয় করতে হবে। অসহায় নিপীড়িত জনগোষ্ঠির পাশে দাঁড়াতে হবে।

গতকাল (১ আগস্ট) বৃহস্পতিবার বিকাল ৩টায় পল্টনস্থ কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে সংগঠনের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি এখলাছুর রহমান রিয়াদ এর সভাপতিত্বে ছাত্র জমিয়ত বাংলাদেশ-এর দেশব্যাপী সদস্য সংগ্রহ অভিযান উদ্বোধন করা হয়। এতে মূল সংগঠন জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম বাংলাদেশ’র কেন্দ্রীয় মহাসচিব আল্লামা নুর হোসাইন কাসেমী প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন।

ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক মঈনুদ্দীন মানিক ও যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আব্দুল হামিদ খান এর যৌথ পরিচালনায় পবিত্র কোরআন তিলাওয়াতের মাধ্যমে মূল অনুষ্ঠানপর্ব শুরু হয়। এরপর ব্যক্তিগত সফরে দেশের বাহিরে অবস্হানরত কেন্দ্রীয় সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের আভিনন্দন বার্তা পড়ে শোনানো হয়।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে কেন্দ্রীয় জমিয়তের সহ-সভাপতি আল্লামা আব্দুর রব ইউসুফী বলেন, সাংগঠনিক কাঠামো মজবুত করতে পারলে জমিয়তের বর্তমান অগ্রযাত্রা কেউ রুখতে পারবে না। তিনি ছাত্র জমিয়তের তরুণ নেতৃবৃন্দ ও কর্মীদেরকে দাওয়াত ইলাল্লাহ এবং রাষ্ট্রে ও সমাজে ইনসাফ, সুবিচার এবং সম্পদের সুষমবণ্টন নিশ্চিতের মহান লক্ষ্য পুরণে ত্যাগী মানসিকতা নিয়ে সাংগঠনিক শৃঙ্খলা মেনে কাজ করার প্রতি আহ্বান জানান।

প্রধান আলোচকের আলোচনায় কেন্দ্রীয় জমিয়তের সাংগঠনিক সম্পাদক হাফেজ মাওলানা নাজমুল হাসান কাসেমী বলেন, জমিয়তের জন্য বাংলাদেশের জমি এখন উর্বর। দেশের যেকোনো জায়গায় আমাদের মহাসচিব আল্লামা নূর হোসাইন কাসেমীকে সামনে রেখে কাজ করা সম্ভব।

অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন ছাত্র জমিয়ত বাংলাদেশের সাবেক সভাপতি মুফতি নাসির উদ্দিন খান, সাবেক সভাপতি মুফতি শরিফুল ইসলাম, কেন্দ্রীয় জমিয়তের প্রচার সম্পাদক জয়নাল আবেদীন, দপ্তর সম্পাদক আব্দুল গফফার ছয়ঘরী,কেন্দ্রীয় যুব জমিয়তের সাবেক সাধারন সম্পাদক মুফতি গোলাম মাওলা, ঢাকা মহানগর জমিয়তের প্রচার সম্পাদক আলহাজ্ব মুফতি ইমরানুল বারী সিরাজী, ঢাকা মহানগর ছাত্র জমিয়তের সাবেক সভাপতি হাফেজ বোরহান উদ্দিন ছাত্র জমিয়তের কেন্দ্রীয় সহ-সভাপতি লুৎফুর রহমান, আব্দুল ওয়াহাব হামিদী, চৌধুরী নাসির, সহ-সম্পাদক হাফেজ তোহা হুসাইন, সাংগঠনিক-সম্পাদক আহমদুল হক উমামা সহ বিভিন্ন জেলা পর্যায়ে প্রতিনিধিগণ বক্তব্য রাখেন। এতে উপস্থিত ছিলেন সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক জুবায়ের আহমেদ, রাজিব আহমেদ,অর্থ-সম্পাদক আবু খয়ের, প্রকাশনা সম্পাদক ফুজায়েল আহমেদ, প্রচার-সম্পাদক মাহফুজুর রহমান ইয়ামিন, প্রশিক্ষণ-সম্পাদক রেদওয়ান মমাজাহারী, দপ্তর-সম্পাদক কাউসার আহমেদ, মাদরাসা- বিষয়ক সম্পাদক সাব্বির আহমেদ, সদস্য মোস্তাফিজুর রহমান , জামিল কাঞ্চনপুরী, রাকিবুল ইসলাম, প্রমুখ।

সভাপতির বক্তব্যে এখলাছুর রহমান রিয়াদ বলেন, আমাদের সদস্য সংগ্রহ অভিযান আজ ১লা আগষ্ট-১৯ থেকে শুরু করে নভেম্বর-১৯ পর্যন্ত ৪ মাস ব্যাপি পর্যায়ক্রমে দেশের সকল জেলা/মহানগর, উপজেলা সহ প্রতিটি ইউনিটে কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে। এবং ডিসেম্বর-১৯ এ মূল (মুড়া) কপি কেন্দ্রে, মধ্যম কপি জেলায় ও প্রতিটি শাখায় তালিকা সংগ্রহের মাধ্যমে সদস্য ফরম হালনাগাদ করা হবে।

তিনি বাংলাদেশের স্বাধীনতা সার্বভৌমত্বের প্রতি আস্তাসিল ও আমাদের আদর্শের প্রতি শ্রদ্ধাশীল দেশের সকল শিক্ষা- প্রতিষ্টানের শান্তিকামী শিক্ষার্থী (ছাত্র/ছাত্রী) দেরকে “ছাত্র জমিয়ত বাংলাদেশ”এর সুশীতল ছায়া তলে সমবেত হওয়ার আহ্বান জানান। এবং তিনি আগামী চার মাসে সারা দেশে ১ লাখ সদস্য সংগ্রহের ঘোষনা প্রদান করেন।

এই সংবাদটি 1,018 বার পড়া হয়েছে

বিশ্বের প্রভাবশালী ১শ নারীর তালিকা প্রকাশ করেছে ফোর্বস ম্যাগজিন। এই তালিকার শীর্ষ একশ নারীর মধ্যে প্রথম অবস্থানে রয়েছেন জার্মানির চ্যান্সেলর অ্যাঙ্গেলা মেরকেল। তালিকার ২৯তম অবস্থানে রয়েছেন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।  বাংলাদেশের ইতিহাসে দীর্ঘকালীন সময় ধরে প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কন্যা শেখ হাসিনা। তিনি চতুর্থবারের মতো জয়ী হয়ে টানা তিনবার প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। গত নির্বাচনে তার দল ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ সংসদের ৩শ আসনের মধ্যে ২৮৮টিতেই জয় লাভ করে।  ১৯৮১ সাল থেকে টানা প্রায় ৩৮ বছর ধরে বাংলাদেশের বৃহত্তম রাজনৈতিক দল আওয়ামী লীগের দলীয় প্রধানের দায়িত্ব পালন করছেন শেখ হাসিনা। ১৯৯৬ সালের ২৩ জুন প্রথমবার দেশের প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব নেন তিনি। এরপর থেকেই শক্ত হাতে দলকে নিয়ন্ত্রণ করছেন শেখ হাসিনা। দেশের খাদ্য নিরাপত্তা, শিক্ষার উন্নয়ন এবং স্বাস্থ্যসেবার প্রতি জোর দিচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী।  ফোর্বসের তালিকায় প্রভাবশালী শীর্ষ ১০ নারীর তালিকায় আছেন অ্যাঙ্গেলা মেরকেল, ক্রিস্টিনে লেগারদে, নেন্সি পেলোসি, আরসুলা ভন দের লেয়েন, মেরি বারা, মেলিন্ডা গেটস, আবিগেইল জনসন, আনা পেট্রিসিয়া বোটিন, গিনি রোমেটি এবং মেরিলিন হিউসন। ২০১৮ সালে ফোর্বসের প্রভাবশালী ১শ নারীর তালিকায় শেখ হাসিনার অবস্থান ছিল ২৬তম।
বিশ্বের প্রভাবশালী ১শ নারীর তালিকা প্রকাশ করেছে ফোর্বস ম্যাগজিন। এই তালিকার শীর্ষ একশ নারীর মধ্যে প্রথম অবস্থানে রয়েছেন জার্মানির চ্যান্সেলর অ্যাঙ্গেলা মেরকেল। তালিকার ২৯তম অবস্থানে রয়েছেন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বাংলাদেশের ইতিহাসে দীর্ঘকালীন সময় ধরে প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কন্যা শেখ হাসিনা। তিনি চতুর্থবারের মতো জয়ী হয়ে টানা তিনবার প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। গত নির্বাচনে তার দল ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ সংসদের ৩শ আসনের মধ্যে ২৮৮টিতেই জয় লাভ করে। ১৯৮১ সাল থেকে টানা প্রায় ৩৮ বছর ধরে বাংলাদেশের বৃহত্তম রাজনৈতিক দল আওয়ামী লীগের দলীয় প্রধানের দায়িত্ব পালন করছেন শেখ হাসিনা। ১৯৯৬ সালের ২৩ জুন প্রথমবার দেশের প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব নেন তিনি। এরপর থেকেই শক্ত হাতে দলকে নিয়ন্ত্রণ করছেন শেখ হাসিনা। দেশের খাদ্য নিরাপত্তা, শিক্ষার উন্নয়ন এবং স্বাস্থ্যসেবার প্রতি জোর দিচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী। ফোর্বসের তালিকায় প্রভাবশালী শীর্ষ ১০ নারীর তালিকায় আছেন অ্যাঙ্গেলা মেরকেল, ক্রিস্টিনে লেগারদে, নেন্সি পেলোসি, আরসুলা ভন দের লেয়েন, মেরি বারা, মেলিন্ডা গেটস, আবিগেইল জনসন, আনা পেট্রিসিয়া বোটিন, গিনি রোমেটি এবং মেরিলিন হিউসন। ২০১৮ সালে ফোর্বসের প্রভাবশালী ১শ নারীর তালিকায় শেখ হাসিনার অবস্থান ছিল ২৬তম।
WP2FB Auto Publish Powered By : XYZScripts.com