মোহন ভগবতের পর সোনিয়া গান্ধীর সঙ্গেও সাক্ষাৎ করলেন আরশাদ মাদানী

প্রকাশিত: ১২:৩৫ পূর্বাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ৮, ২০১৯

মোহন ভগবতের পর সোনিয়া গান্ধীর সঙ্গেও সাক্ষাৎ করলেন আরশাদ মাদানী

ডেস্করিপোর্টঃ ভারতের জমিয়তে উলামায়ে হিন্দের প্রেসিডেন্ট, দারুল উলুম দেওবন্দের মুহাদ্দিস আল্লামা আরশাদ মাদানী হিন্দুত্ববাদী সংগঠন আরএসএস প্রধান মোহন ভাগবতের পর কংগ্রেস সভাপতি, রায়বরেলি উত্তর প্রদেশ সংসদ সদস্য সোনিয়া গান্ধীর সঙ্গে সাক্ষাত করেছেন।
ভারতের গণমাধ্যম দ্যা ইনকিলাব পত্রিকার বরাতে জানা যায়, গতকাল শুক্রবার সন্ধ্যায় জমিয়তে উলামা হিন্দের সভাপতি মাওলানা আরশাদ মাদিনী সোনিয়া গান্ধীর বাসভবনে এ বৈঠক করেন। বৈঠকে কংগ্রেসের প্রবীণ নেতা আহমেদ প্যাটেলসহ কংগ্রেসের অন্যান্য নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

নির্ভরযোগ্য সূত্র মতে জানা যায়, কংগ্রেস সভাপতি সোনিয়া গান্ধীর সাথে বৈঠককালে আল্লামা আরশাদ মাদানী ভারতের বর্তমান অবস্থা সম্পর্কে আলোচনা করেন। মোহন ভাগবতের সঙ্গে যে বিষয়ে আলোচনা করেছিলেন, সে বিষয়গুলো নিয়েই আলোচনা করেন তিনি।
বৈঠকটি অনেক গুরুত্বপূর্ণ ছিলো বলে মনে করেন রাজনীতিবদগণ। কারণ আরএসএস প্রধানের সঙ্গে সাক্ষাতের পর আল্লামা আরশাদ মাদানীর ব্যাপারে প্রচুর সমালোচনা করা হয়। কেন তিনি হিন্দুত্ববাদী সংগঠনের নেতার সঙ্গে দেখা করলেন। কিন্তু এ বৈঠকে কংগ্রেস নেতাদের সঙ্গে সাক্ষাত করায় সমালোচকদের আলোচনার মোড় ঘুরে গেছে।

সূত্রমতে কংগ্রেস সভাপতির সাথে মাওলানা আরশাদ মাদনির এ বৈঠক এ বার্তা দেওয়ার চেষ্টা করেছে যে দেশের বর্তমান পরিস্থিতি বিবেচনায় তারা যে কোনও দল বা সংস্থার সাথে কথা বলতে প্রস্তুত রয়েছে।
আল্লামা আরশাদ মাদানী এর আগে ৫ আগস্ট দিল্লির তালকাটোরা স্টেডিয়ামে ও ১৫ আগস্ট দারুল উলূম দেওবন্দে স্পষ্টভাবে বলেছিলেন, তিনি দেশের মঙ্গলার্থে যে কোনও দলের সাথে কথা বলতে প্রস্তুত, জনগণ রাজনীতিবিধরা এতে সমালোচনা করলেও তার কিছু করার নেই।
সংঘের প্রধান মোহন ভাগবতের সাথে দেখা করার পরে কংগ্রেসের একাধিক মুসলিম নেতার সামালোচনার মুখে পড়েছেন আল্লামা আরশাদ মাদানী। অনেক কংগ্রেস নেতাও বারবার তার সমালোচনা করছিলেন।
ভোপাল থেকে কংগ্রেস পার্টির বিধায়ক আরিফ মাসউদ মাওলানা আরশাদ মাদনীকে একটি চিঠি লিখে আরএসএস প্রধানের সাথে তিনি কী বিষয় নিয়ে আলোচনা করেছেন তা সমাজকে জানানোর দাবি করেছিলেন।
অন্যদিকে, উত্তর প্রদেশের সাহারানপুরের আরেক কংগ্রেস নেতা ইমরান মাসউদও মাওলানা আরশাদ মাদিনীকে লক্ষ্য করে, তাকে অভিযুক্ত করে বলেছিলেন যে মওলানা মাদানী সঙ্ঘের প্রধানের সাথে দেখা করে দারুল উলূম দেওবন্দের গৌরবময় ইতিহাসকে কলঙ্কিত করেছেন।
তবে গতকাল শুক্রবার মাওলানা মাদানী কংগ্রেস সভাপতি সোনিয়া গান্ধীর সাথে দেখা করায় সমালোচকদের প্রতিক্রিয়া পাল্টেছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।
সূত্র: দ্য ইনকিলাব

এই সংবাদটি 3 বার পঠিত হয়েছে

[latest_post][single_page_category_post]

WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com