শনিবার, ১৪ সেপ্টে ২০১৯ ০৩:০৯ ঘণ্টা

‘শান্তির সংস্কৃতি’ ধারণা কাজে লাগানোর আহ্বান

Share Button

‘শান্তির সংস্কৃতি’ ধারণা কাজে লাগানোর আহ্বান

ডেস্ক রিপোর্ট :
জাতিসংঘের এজেন্ডা ২০৩০ অর্জনের জন্য সদস্য দেশগুলোকে ‘শান্তির সংস্কৃতি’ ধারণাটি কাজে লাগানোর আহ্বান জানিয়েছেন রাষ্ট্রদূত মাসুদ বিন মোমেন।

শুক্রবার (১৩ সেপ্টেম্বর) জাতিসংঘ সদরদপ্তরে ‘শান্তির সংস্কৃতি’ ধারণাটির ২০ বছর পূর্তি উপলক্ষে আয়োজিত উচ্চ পর্যায়ের ফোরামের সাধারণ আলোচনায় অংশ নিয়ে এ আহ্বান জানান জাতিসংঘে নিযুক্ত বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি রাষ্ট্রদূত মাসুদ বিন মোমেন। উচ্চ পর্যায়ের এই ইভেন্টের আয়োজন করেন ৭৩তম জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের সভাপতি মারিয়া ফার্নান্দে এস্পিনোসা গার্সেজ।

শনিবার (১৪ সেপ্টেম্বর) জাতিসংঘে বাংলাদেশের স্থায়ী মিশন থেকে পাঠানো এক বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়, অনুষ্ঠানে রাষ্ট্রদূত মাসুদ বিন মোমেন বলেন, আজ থেকে ২০ বছর আগে তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দূরদর্শী নেতৃত্বে ‘শান্তির সংস্কৃতি’র মতো আদর্শিক রেজ্যুলেশনটি গ্রহণের প্রক্রিয়া শুরু করে বাংলাদেশ, যা ছিল দেশের জন্য অত্যন্ত মর্যাদার বিষয়।

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ১৯৯৭ সালে ‘শান্তির সংস্কৃতি’ ধারণাটি জাতিসংঘে উত্থাপন করেন। ওই বছরই সাধারণ পরিষদ তা এজেন্ডা হিসেবে গ্রহণ করে এবং পরবর্তীতে ১৯৯৯ সালের ১৩ সেপ্টেম্বর সর্বসম্মতিক্রমে চূড়ান্তভাবে গৃহীত হয়। ভাবতে ভালো লাগে আজ আমরা যখন এই রেজ্যুলেশনটির ২০ বছর পূর্তি উদযাপন করছি, এমন সময়েও তিনি প্রধানমন্ত্রী হিসেবে বাংলাদেশকে শান্তি ও উন্নয়নের পথে এগিয়ে নেওয়ার নেতৃত্ব দিচ্ছেন। যা জাতি হিসেবে আমাদের জন্য অত্যন্ত গৌরবের।

জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের সভাপতি মারিয়া ফার্নান্দে এস্পিনোসা গার্সেজ উচ্চ পর্যায়ের এই ইভেন্টটির সভাপতিত্ব করেন এবং এতে উদ্বোধনী ভাষণ দেন। অনুষ্ঠানটিতে অব্যাহত শান্তির প্রতি একাত্মতা প্রকাশ করে বক্তব্য রাখেন নোবেল শান্তি পুরস্কার বিজয়ী লেইমা জিবোয়ি এবং কি-নোট বক্তব্য দেন ঘানার আসান্তি জনগোষ্ঠীর রাজা ওতুম্ফুও ওসেই টুটু-২। উচাঙ্গ যন্ত্রসঙ্গীত পরিবেশন করেন নিউইয়র্ক প্রবাসী খ্যাতনামা বাংলাদেশি সেতার বাদক ওস্তাদ মোরশেদ খান ও তবলা বাদক তপন মোদক।

এদিকে ‘শান্তির সংস্কৃতি’ রেজ্যুলেশনটির ২০ বছর পূর্তি উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানমালার অংশ হিসেবে শুক্রবার ইন্টারন্যাশনাল পিস ইনস্টিটিউটে (আইপিআই)-অনুষ্ঠিত হয় ‘টেকসই উন্নয়ন অর্জনের পথে: ‘শান্তির সংস্কৃতি’র ২০ বছর পূর্তি উদযাপন’- শীর্ষক সাইড ইভেন্ট। সাধারণ পরিষদের সভাপতি মমারিয়া ফার্নান্দে এস্পিনোসা গার্সেজ, আইপিআই এর সহ-সভাপতি ড. আমিম লিউপেল, জাতিসংঘের সাবেক আন্ডার সেক্রেটারি জেনারেল ও জাতিসংঘে নিযুক্ত বাংলাদেশের সাবেক স্থায়ী প্রতিনিধি রাষ্ট্রদূত আনোয়ারুল করিম চৌধুরী এবং জাতিসংঘে নিযুক্ত বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি রাষ্ট্রদূত মাসুদ বিন মোমেন সাইড ইভেন্টটির আলোচনায় অংশ নেন।

এই সংবাদটি 1,004 বার পড়া হয়েছে

WP2FB Auto Publish Powered By : XYZScripts.com