বৃহস্পতিবার, ১৭ অক্টো ২০১৯ ০৮:১০ ঘণ্টা

এবার মসজিদ-মাদরাসায় ইসকন!

Share Button

এবার মসজিদ-মাদরাসায় ইসকন!

ডেস্করিপোর্ট:
নরসিংদী জেলায় একটি এতিমখানা উদ্বোধন নিয়ে মুসলিম সমাজে নানা প্রশ্ন উঠেছে। প্রতিষ্ঠানটির কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে কুরআনের পাশাপাশী গীতা পাঠকরায় ধর্মঅবমাননারও অভিযোগ করেন অনেকেই। এনিয়ে ফেসবুকে ঝড় উঠেছে। আলোমী মার্কাজ নিজামুদ্দীন নামক একটি ফেসবুক আইডি থেকে ভিডিও সহ একটি সংবাদ শেয়ার করা হয়। নিম্নে তা হুবহু তুলে ধরা হলো:

নরসিংদী জেলার রায়পুরা উপজেলার শ্রীরামপুর গ্রামে অবস্থিত মদিনাতুল উলুম তালিমুল কুরআন মাদরাসার ভবন নির্মাণ করলো হিন্দুত্ববাদী সংগঠন ইসকন। গত ২৮ সেপ্টেম্বর ভবনটির উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথী হিসেবে উপস্থিত ছিল নরসিংদী জেলা ইসকনের প্রধান শ্রীমান প্রহ্লাদ কৃষ্ণ দাস। অনুষ্ঠানে এই ইসকন নেতা শতাধিক ওলামা-তালাবা ও মুসল্লিদের সামনে আলোচনা রাখে। অনুষ্ঠান শুরু হয় কুরআন তিলাওয়াতের মাধ্যমে, এরপর পাঠ করা হয় গীতা থেকেও। অনুষ্ঠান চলাকালীন জোহরের নামাজের জামাত পিছিয়ে দুপুর ২টায় দেয়া হয়। এসময় ইসকনের আরও একাধিক নেতা উপস্থিত ছিল। নির্মাণকাজ চলাকালীন নির্মাণব্যয়ের উৎস গোপন রাখা হয়। পরে হিন্দু ব্যক্তির নামে ভবনের নামকরণের ফলে আসল রহস্য বেরিয়ে আসে। ভবনটির নামকরণ করা হয় ‘মুক্তিযোদ্ধা রাখাল ভট্টাচার্য স্মৃতি এতিম ছাত্রাবাস’।

নরসিংদীর রায়পুরা এলাকাটি আলেম-ওলামাদের চারণভূমি হিসেবে খ্যাত। সেইখানে এধরনের কর্মকান্ড সত্যিই আমাদের জন্য মারাত্মক হুমকিস্বরূপ। আর এই মাদরাসাটির পরিচালক ফজলুল হক সাহেব চট্টগ্রামের নানুপুরী হুজুরের খলিফা এবং অত্র অঞ্চলের সর্বজন শ্রদ্ধেয় একজন ব্যক্তিত্ব। ওরা আমাদের আস্থার জায়গাগুলোতে আঘাত হানছে। আমাদের আকাবিরদের সাইনবোর্ডধারী বড় বড় মাথাগুলোকে সুকৌশলে হাত করে নিচ্ছে। মসজিদ-মাদরাসায় হিন্দুদের ডোনেশন গ্রহণ জায়েয না নাজায়েয সেই প্রশ্ন এখানে নয়, এটা তো হিন্দুত্ববাদ প্রতিষ্ঠার ক্ষেত্রে সরাসরি আলেম-ওলামাদের অংশগ্রহণ।

এই সংবাদটি 5,089 বার পড়া হয়েছে

WP2FB Auto Publish Powered By : XYZScripts.com