সোমবার, ০৬ জুন ২০১৬ ০৬:০৬ ঘণ্টা

তামিমের সেঞ্চুরিতে সুপার সিক্সে আবাহনী

Share Button

তামিমের সেঞ্চুরিতে সুপার সিক্সে আবাহনী

e7496bd3a7993ef80be482bd3422e324-5755647ca795eপ্রথম বাংলা নিউজ : তামিম ইকবালের দুর্দান্ত এক সেঞ্চুরিতে ঢাকা প্রিমিয়ার ডিভিশন ক্রিকেট লিগের সুপার সিক্স নিশ্চিত করেছে আবাহনী লিমিটেড। বৃষ্টিবিঘ্নিত ম্যাচে ক্রিকেট কোচিং স্কুলকে (সিসিএস) নয় উইকেটে উড়িয়ে দেয় তারা। ফলে ১১ ম্যাচে সাত জয়ে ১৪ পয়েন্ট নিয়ে শিরোপা লড়াইয়ে ভালোভাবেই টিকে রইলো ধানমণ্ডির দলটি। অপরদিকে এ পরাজয়ে রেলিগেশন এক প্রকার নিশ্চিত হয়ে গেল সিসিএসের।

সাভারের বিকেএসপিতে টস হেরে প্রথমে ব্যাটিং করতে নামে সিসিএস। ব্যাটিংয়ে নেমে শুরু থেকেই উইকেট হারিয়ে চাপে পড়ে। মাত্র ৪৬ রানে তিন উইকেট হারায় তারা। তবে চতুর্থ উইকেট জুটিতে সাইফুদ্দিনের সঙ্গে দারুণ এক জুটি গড়ে তোলেন অধিনায়ক রাজিন সালেহ। তাদের করে ১২৩ রানের জুটিতে ভোর করেই দুই শতাধিক রান পায় সিসিএস।

এ দুই ব্যাটসম্যান ছাড়া সিসিএসের আর কোন ব্যাটসম্যান থিতু হতে না পারলে সব কটি উইকেট হারিয়ে ২০৫ রান করে তারা। দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ৯৫ রান করেন রাজিন সালেহ। ১৩৫ বলে ৫টি চার ও ৪টি ছক্কায় এ রান করেন তিনি। এছাড়া সাইফুদ্দিন করেন ৫০ রান। আবাহনীর পক্ষে ৩৫ রান দিয়ে ৩টি উইকেট নেন সাকিব আল হাসান। এছাড়া তাসকিন আহমেদ, আবুল হোসেন ও মোসাদ্দেক হোসেন ২টি করে উইকেট নেন।

সিসিএসের দেওয়া ২০৬ রানের লক্ষ্যে খেলতে নেমে প্রথম ওভারে ভারতীয় ব্যাটসম্যান ইউসুফ পাঠানকে হারায় আবাহনী। এরপর নাজমুল হোসেন শান্তকে নিয়ে দলের হাল ধরেন অধিনায়ক তামিম ইকবাল। ১২ ওভারে ৬২ রান সংগ্রহ করার পর মাঠে বৃষ্টি নামে। প্রায় দুই ঘন্টা পর আবার খেলা শুরু হলে ৩৫ ওভারে তাদের লক্ষ্যমাত্রা দাঁড়ায় ১৬৮ রান।

তবে তামিম ও শান্তর দায়িত্বশীল ব্যাটিংয়ে সে লক্ষ্য খুব সহজেই উতরে যায় আবাহনী। ৫০ বল বাকি থাকতেই জয়ের বন্দরে পৌঁছে যায় আকাশী-হলুদ শিবির। দলের পক্ষে দুর্দান্ত এক সেঞ্চুরি হাঁকান তামিম ইকবাল। ৮৬ বলে ১০৫ রানের দারুণ এক অপরাজিত ইনিংস খেলেন তিনি। এ রান করতে ১১টি চার ও ৪টি ছক্কা মারেন তিনি। এছাড়া ৭০ বলে ৫৩ রানে অপরাজিত থাকেন শান্ত।

এই সংবাদটি 1,028 বার পড়া হয়েছে

WP2FB Auto Publish Powered By : XYZScripts.com