আমাকে হত্যা করা হতে পারে: ভিপি নুর

প্রকাশিত: ৩:০০ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ৩১, ২০১৯

ডেস্ক রিপোর্ট :
ডাকসু ভিপি নুরুল হক নুর অভিযোগ করে বলেছেন, ডিজিটাল সিকিউরিটি অ্যাক্টে দায়ের হওয়া মামলায় গ্রেফতারের জন্যই তড়িঘড়ি করে হাসপাতাল থেকে রিলিজ দেওয়া হয়েছে।

আজ মঙ্গলবার (৩১ ডিসেম্বর) সকালে ঢামেক হাসপাতাল থেকে বের হয়ে সাংবাদিকদের কাছে এ অভিযোগ করেন তিনি।

নুর দাবি করেন, তিনি এখনও সুস্থ নন। এবং হাসপাতালে ভর্তির তিন দিন পর থেকে তিনি বেশি অসুস্থ বোধ করতে থাকেন।

ডাকসু ভিপি বলেন, তাকে হত্যার ষড়যন্ত্রে যেকোনও কিছুই করা হতে পারে এবং এসবই সরকারের ইশারায় ঘটছে।

তিনি বলেন, ‘আমি এখনও ঝাপসা দেখি। যারা এই হামলার সঙ্গে জড়িত, তাদের বিচারের আওতায় আনতে হবে।’

নুর জানান, ‘প্রথম তিন দিনের পর শরীর আরও খারাপ হয় আমার। মেরে ফেলার যেকোনও ধরনের ষড়যন্ত্র হতে পারে। এসব সরকারের ইশারাতেই হয়েছে বলে মনে করি। কারণ, আমরা সরকারের বিশ্বাসভাজন ছাত্রলীগের কার্যক্রমের প্রতিবাদ করি। বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন এর আগেও এরকম ঘটনা ঘটতে দেখেছে।’

তিনি বলেন, ‘আইসিটি আইনে মামলা করেছে, যাতে আমাকে কারাগারে রাখতে পারে। দুই মাসের আগে এই আইনে জামিন হয় না। ডাকসুর মেয়াদ আছে তিন মাস। আমাকে কারাগারে রাখার পরিকল্পনা। আমি মনে করি, আমাকে গ্রেফতার করার জন্যই হয়তো তড়িঘড়ি করে রিলিজ দেওয়া হয়েছে।’

ডাকসু ভিপি আরও বলেন, ‘দেশবাসির কাছে আহ্বান, আমরা নিজের পরিবারের জন্য কথা বলি না। সমাজের জন্য, রাষ্ট্রের জন্য কথা বলি। আমাদের এই বিপদের দিনে, ছাত্রলীগের নিপীড়নের বিরুদ্ধে মানুষ যদি না দাঁড়ায়, তাহলে কেউ প্রতিবাদ করতে এগিয়ে আসবে না।’

প্রসঙ্গত, গত ২২ ডিসেম্বর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ডাকসু ভবনে নিজ কক্ষে মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ ও ছাত্রলীগের যৌথ হামলার শিকার হন ভিপি নুরুল হক নুর। এ সময় আহত হন অন্তত ২৫ জন। তাদেরকে তাৎক্ষণিক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

এই সংবাদটি 0 বার পঠিত হয়েছে

WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com