ইবাদতের বসন্তকালে হৃদয়গলা আকুতি

প্রকাশিত: ৪:১৯ অপরাহ্ণ, মে ২২, ২০২০

মাওলানা শাহীনূর পাশা চৌধূরীঃ
আল্লাহর ভয়ে ক্রন্দন করছি তো?
আল্লাহর ভয়ে ক্রন্দন করলে আল্লাহ খুশি হন এবং ক্রন্দনকারীকে রক্ষা করেন।
যারা আল্লাহর ভয়ে কাঁদে তাদের প্রশংসায় আল্লাহ তা‘আলা বলেন—

وَيَخِرُّوْنَ لِلْأَذْقَانِ يَبْكُوْنَ وَيَزِيْدُهُمْ خُشُوْعًا، ‘

আর তারা কাঁদতে কাঁদতে মাটিতে লুটিয়ে পড়ে এবং তাদের বিনয়চিত্ততা আরও বৃদ্ধি পায়’।
(ইসরা ১৭/১০৯)।

রাসূল (সা.) বলেছেন,

لاَ يَلِجُ النَّارَ رَجُلٌ بَكَى مِنْ خَشْيَةِ اللهِ حَتَّى يَعُودَ اللَّبَنُ فِى الضَّرْعِ وَلاَ يَجْتَمِعُ غُبَارٌ فِىْ سَبِيلِ اللهِ وَدُخَانُ جَهَنَّمَ.

‘যে ব্যক্তি আল্লাহর ভয়ে কাঁদে সে জাহান্নামে যাবে না। দুধ যেমন গাভীর ওলানে ফিরে যাওয়া অসম্ভব। আল্লাহর পথের ধূলা এবং জাহান্নামের আগুন এক সাথে জমা হবে না’।
[তিরমিযী হা/১৬৩৩, ২৩১১; নাসাঈ হা/৩১০৮; মিশকাত হা/৩৮২৮; ছহীহুল জামে‘ হা/৭৭৭৮। ]

তিনি আরো বলেন-

عَيْنَانِ لاَ تَمَسُّهُمَا النَّارُ عَيْنٌ بَكَتْ مِنْ خَشْيَةِ اللهِ وَعَيْنٌ بَاتَ تَحْرُسُ فِى سَبِيلِ اللهِ.
‘দুই প্রকার চক্ষুকে জাহান্নামের আগুন স্পর্শ করবে না। যে চক্ষু আল্লাহর ভয়ে কাঁদে এবং যে চক্ষু আল্লাহর রাস্তায় পাহারা দেয়’।
[তিরমিযী হা/১৬৩৯; মিশকাত হা/৩৮২৯; ছহীহুল জামে‘ হা/৪১১৩।]

অন্যত্র উম্মতের দরদী কান্ডারী রাসূল সা. বলেন-

مَنْ خَافَ أَدْلَجَ وَمَنْ أَدْلَجَ بَلَغَ الْمَنْزِلَ أَلاَ إِنَّ سِلْعَةَ اللهِ غَالِيَةٌ أَلاَ إِنَّ سِلْعَةَ اللهِ الْجَنَّةُ-
“যে ব্যক্তি আল্লাহকে ভয় করে সে রাতে ইবাদত করে আর যে রাতে ইবাদত করে সে তার গন্তব্য স্থানে পৌঁছে যায়। মনে রেখ নিশ্চয়ই আল্লাহর সম্পদ দামী। মনে রেখ নিশ্চয়ই আল্লাহর সম্পদ হচ্ছে জান্নাত’।
[তিরমিযী, আত-তারগীব হা/৪৭৮৭।]

তাই আসুন– আর গাফলতি বা শয়তানের ধোকায় না থেকে তেলাওয়াত, নামাজ আর ইবাদতের মাধ্যমে আল্লাহর মকবুল কাছের বান্দা হতে শেষ চেষ্টাটুকু করি।

এই সংবাদটি 6 বার পঠিত হয়েছে

WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com