কামরানের জানাযায় অংশ গ্রহনকারীদের কোয়ারেন্টাইনে রাখার দাবি

প্রকাশিত: ৭:৪০ পূর্বাহ্ণ, জুন ১৬, ২০২০

কামরানের জানাযায় অংশ গ্রহনকারীদের কোয়ারেন্টাইনে রাখার দাবি

সিলেট রিপোর্টঃঃ আওয়ামীলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য, সিলেটেরক মেয়র বদর উদ্দীন আহমদ
কামরানের জানাজায় যারা অংশগ্রহণ করেছেন তাদেরকে ১৪ দিন কোয়ারান্টাইনে রাখার দাবি জানিয়েছেন জমিয়তে উলামায়েইসলামবাংলাদেশ সিলেট মহানগরীর সাংগঠনিকসম্পাদক হাফিজ মাওলানা সৈয়দ সালিম কাসেমী। তিনি তার ফেসবুক আইডি থেকে সিলেট বাসীকে করোনা থেকে সুরক্ষায় এই আহবান জানান। জমিয়ত নেতা সালিম কাসেমী বলেনঃ

“কামরান সাহের জানাজায় যারা অংশগ্রহণ করেছেন তাদেরকে ১৪ দিন কোয়ারান্টাইনে রাখা হোক। এবং করোনা সংক্রমণ হয়েছে কি না পরীক্ষা করা হোক।
জানাজার স্হান সহ আশপাশের এলাকা কে লকডাউন করা হোক।আপনারা মাস্ক ব্যবহার না করার কারনে অনেক নিরিহ মানুষের উপর এক হাজার থেকে পাচ হাজার টাকা জরিমানা করেছেন,অনেক গরীব দিনমজুর কে ১৪ দিন কোয়ারান্টাইন পালন করতে বাধ্য করেছেন।
এসমস্ত অযৌক্তিক বাড়াবাড়ি বিগত তিন মাস যাবত
আপনারা চালিয়ে আসছেন।
আমরা বিশ্বাস করি সবকিছু আল্লাহর হুকুমে হয়, আমরাতো প্রথম দিন থেকে সবকিছু স্বাভাবিক রাখার পক্ষে।
আপনারা আপনাদের বিশ্বাস অনুযায়ী আমাদেরকে মসজিদ,মাদ্রাসা, শীর্ষ আলেমদের জানাজা এমনকি
সুন্নত অনুযায়ী ঈদের নামাজও আদায় করতে দেননি।
আওয়ামিলীগ আর বস্তুবাদীদের যন্ত্রনায় শহরের অসংখ্য মসজিদে শারীরিক দুরত্ব বজায় রেখে পাচ ওয়াক্ত নামাজের জামাত আদায় করতে হয়, যা মাক্বরুহে তাহরীমি।
আর মসজিদের বাহিরে যেখানে শারীরিক দুরত্ব বজায় রাখলে মাকরূহ হবেনা,সেখানে শারীরিক দুরত্ব বজায় রাখার কোন আইন নাই।
অতএব মোসল্লিদের জন্য উচিৎ চাপিয়ে দেয়া অযৌক্তিক আইনের অমান্য করা।
সরকারের প্রতি অনুরোধ রাসুল সাঃ এর হাদীস অনুযায়ী সংক্রমণ বলতে কোন রোগ নাই,বিশ্বাস করে সবকিছু বন্ধ রাখার অযৌক্তিক সিদ্ধান্ত থেকে বেরিয়ে আসা।
আল্লাহ সঠিক এবং সাহসী সিদ্ধান্ত নেয়ার তাওফিক দান করুন।
নতুবা কামরান সাহেবের জানাজায় আইন বাস্তবায়ন করুন।”

এই সংবাদটি 761 বার পঠিত হয়েছে

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

[latest_post][single_page_category_post]

WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com