সিলেট নগরীতে এমসি কলেজের ছাত্র হাফিজ ইফজালের রহস্যজনক মৃত্যু,লাশ উদ্ধার

প্রকাশিত: ৬:১১ পূর্বাহ্ণ, জুন ২৬, ২০২০

সিলেট নগরীতে এমসি কলেজের ছাত্র হাফিজ ইফজালের রহস্যজনক মৃত্যু,লাশ উদ্ধার

সিলেট রিপোর্ট : সিলেট নগরীর শাহজালাল উপশহর এলাকা থেকে ইফজাল আহমদ নামে এক হাফেযে কুরআনের মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।নিহত ইফজাল উপশহর বি ব্লক ১৮নং রোডের ৩নং বাসা বাহার মঞ্জিলের ৩য় তলায় বোনের বাসায় থাকতেন।
বৃহস্পতিবার সকালে বাসার প্রাচীরের ভেতর ইফজালের মরদেহ পড়ে থাকতে দেখে পুলিশকে খবর দেন। খবর পেয়ে শাহপরাণ থানার পুলিশ লাশটি উদ্ধার করে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করেছে।
ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে শাহপরাণ থানার ওসি আব্দুল কাইয়ুম চৌধুরী বলেন, পুলিশ ঘটনাস্থলে রয়েছে। এটি পরিকল্পিত হত্যা বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে।
তিনি শাহবাগ জামিয়া ও উমরগঞ্জ মাদ্রাসা থেকে হিফজ সম্পন্ন করেছে বলে জানাগেছে। বর্তমানে এমসি কলেজে অনার্স তৃতীয় বর্ষের ছাত্র। কানাইঘাট উপজেলার ঝিংগাবাড়ী ইউনিয়নের কাপ্তানপুর গ্রামের মাওলানা কুতুব অালীর দ্বিতীয় ছেলে।


এদিকে,
হাফিয ইফজাল হত্যাকারীদের গ্রেফতার ও দৃষ্টান্ত মূলক শাস্থির দাবিতে ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়েছেন তার বন্ধুরা।
তাদের একজন হাফিজ মাওলানা খলিলুল্লাহ মাহবুব লেখেনঃ

একজন কুরআনে হাফিজ। প্রতি রমজানেই সে খৎমে তারাবিহর নামাজ পড়ায়। তার মৃত্যুর খবর শুনে হৃদয়ের রক্তক্ষরণ হচ্ছে। ছোটবেলা থেকেই থাকে চিনি। তার পরিবারের সাথে রয়েছে গভীর সম্পর্ক। তার বড়ভাই ইমাদ আমার এক গনিস্ট বন্দু। কথো কথা আজ শুধুই স্মৃতি। সদাহাস্যজ্বল, অমায়িক, সদালাপি টগবগে, সতেজ দেহ আজ লাশ-পরপারের যাত্রী।

শুনেছি ইফজাল চৌধুরীর সাধারণ মৃত্যু হয়নি। আশকরি প্রশাসনের সুষ্ঠু তদন্তের মাধ্যমে হত্যাকারীদের দ্রুত গ্রেফতার করা হবে। ফাঁসি দিতে হবে। ইফজাল হত্যার বিচার দাবিতে আন্দোলন গড়ে তোলা হউক।
যারা একজন হাফিজ হত্যার বিচার চান বা প্রয়োজনে আন্দোলন করতে চান। তাদের পরামর্শ চাই।

সিলেট নগরীর উপশহরের বি-ব্লকের ১৮ নাম্বার রোডের ৩ নাম্বার বাসা নিচতলা থেকে ইফজালের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। গত প্রায় ৫ বছর থেকে তার বড় বোনের সাথে ঐ বাসায় থাকতো সে।

সে শাহবাগ জামিয়া ও উমরগঞ্জ মাদ্রাসা থেকে হিফজ সম্পন্ন করেছে। বর্তমানে সে এমসি কলেজে অনার্স তৃতীয় বর্ষের ছাত্র। কানাইঘাট উপজেলার ঝিংগাবাড়ী ইউনিয়নের কাপ্তানপুর গ্রামের মাওলানা কুতুব অালীর দ্বিতীয় ছেলে।
আল্লাহ প্রিয় ভাইটিকে জান্নাতের মেহমান হিসাবে কবুল করুন। আমিন
ফয়েজ উদ্দীন ভাই।’

এই সংবাদটি 205 বার পঠিত হয়েছে

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

[latest_post][single_page_category_post]

WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com