বাংলাদেশে কওমি মাদ্রাসা ও কারিগরী শিক্ষায় মাওলানা মাদানী (র) এর নির্দেশনা

প্রকাশিত: ১০:৪১ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ৩, ২০২০

বাংলাদেশে কওমি মাদ্রাসা ও কারিগরী শিক্ষায় মাওলানা মাদানী (র) এর নির্দেশনা

মাওলানা ইমদাদুল হক নোমানী:
কওমি মাদরাসার ছাত্রদেরকে কারিগরী শিক্ষা দেয়ার সুস্পষ্ট তাগিদ দিয়ে শায়খুল ইসলাম আল্লামা হুসাইন আহম মাদানী রাহ. বলেন, “মাধ্যমিক ও উচ্চতর ক্লাসের ছাত্রদেরকে অবশ্যই হাতের কাজ বা হস্তশিল্প শিখতে এবং শিখাতে হবে। যেমন- চরকী চালানো, কাপড় বোনা, ঘড়ি মেরামত, বই-খাতা বাঁধাই, চামড়া রং করা, লোহার কাজ, স্বর্ণের কাজ, ইলেকট্রিকের কাজ ইত্যাদি। অবশ্য বিষয় নির্ধারণে ছাত্রদের স্বাধীনতা থাকবে। (সূত্র: নেসাবে তা’লীম-১৭)

মাদানী রাহ. ‘নেসাবে তা’লীম’ বইটি লিখেছেন আজ থেকে প্রায় ৮০ বছর আগে। তখনকার যুগে কারিগরী বিদ্যার তালিকায় এ বিষয়গুলোই প্রাধান্য পেয়েছিল। তিনি বইটিতে এও উল্লেখ করেছেন, ‘তিন বছর পর পর সিলেবাস যুগোপযোগী করতে হবে।’ মাদানী রাহ.-এর নির্দেশনা অনুসারে সিলেবাস যুগোপযোগী করা হলে বর্তমানে কারিগরী শিক্ষার তালিকায় আরও কি কি বিষয় সংযোজিত হতে পারে; তা বিজ্ঞজনদের ভাবার বিষয়। যেমন- কম্পিউটার প্রশিক্ষণ, ড্রাইভিং শিক্ষা, দর্জি বিজ্ঞান (সেলাই মেশিন), গার্হস্থ্য বিজ্ঞান, হস্ত শিল্প, প্রাথমিক চিকিৎসা, ইলেকট্রনিকস ইত্যাদি।

কওমি মাদ্রাসার ছাত্রদেরকে কেন কারিগরী শিক্ষা দিতে হবে? এ প্রশ্নের সুন্দর উত্তর পাওয়া যায় “দেওবন্দ আন্দোলনঃ ইতিহাস ঐতিহ্য অবদান” বইটির ১৭৬ পৃষ্ঠায়। এতে লেখা হয়েছে, ‘জীবিকার প্রয়োজনে শিক্ষা সমাপনের পর এ প্রতিষ্ঠানের সনদপ্রাপ্তরা যাতে আদর্শ বিক্রি করতে বাধ্য না হয় এবং জীবন সমস্যায় হাবুডুবু না খায়, এজন্য উপযোগী কারিগরী প্রশিক্ষণের ব্যবস্থাও এ প্রতিষ্ঠানে রাখা হয়।’

এখানে যে আদর্শের কথা বলা হয়েছে, তার মূল সূত্র হচ্ছে মহানবী সা.-এর পবিত্র হাদীস। নবী কারীম সা. ইরশাদ করেন, ‘যে ব্যক্তি মানুষের কাছ থেকে খাবার গ্রহণের উদ্দেশ্যে কুরআন পড়বে, কিয়ামতের দিন সে এমন অবস্থায় আসবে যে তার মুখে শুধু হাড় থাকবে; কোন গোস্ত থাকবে না। (বায়হাকী, মিশকাত-১৯৩)
রাসূল সা. আরও বলেন, ‘যে ব্যক্তি জাগতিক সুবিধা অর্জনের উদ্দেশ্যে দ্বীনি ইলম শিখবে, কেয়ামতের দিন সে জান্নাতের সুঘ্রাণও পাবে না।’ (আবু দাউদ, মিশকাত-৩৪)

জীবিকা নির্বাহের পথ ও পদ্ধতি সম্পর্কে বাস্তব উদাহরণ রেখে গেছেন আমাদের আকাবীর হযরতগণ। বিশ্বনন্দিত ইসলামী পন্ডিত আল্লামা ত্বাকী উসমানী হাফিজাহুল্লাহ তাঁর আব্বা আল্লামা মুফতী শাফী রাহ.-এর সম্পর্কে জীবনী গ্রন্থে লিখেন, “দুনিয়ার সাথে তাঁদের যে সম্পর্ক তা দুনিয়া প্রীতির নয় বরং প্রয়োজন পূরণের।” বুজুর্গদের এই কথার বাস্তব রূপ আমার আব্বাজান রাহ.-এর জীবনে লক্ষ্য করেছি। আল্লাহপাক আব্বাকে ব্যবসা, কৃষিফার্ম ও ইজারা এসব সুন্নতের উপর আমল করার তাওফীক দান করেছিলেন। মাত্র পাঁচ টাকা মূলধনে ‘দারুল এশায়াত’ নামে একটি সফল প্রকাশনী প্রতিষ্ঠানের প্রতিষ্ঠাতা ছিলেন। দারুল উলূম দেওবন্দে অবস্থানকালে সেখানে গড়ে তুলেছিলেন একটি কৃষি ফার্ম । এছাড়াও আব্বা রাহ. ছাপার কাজের জন্য হস্তলিপি এবং বই বাাঁধাইয়ের কাজ করেছেন। (সূত্র: আমার আব্বা আমার মুর্শিদ-১৩০)

হযরত আদম আ. থেকে শুরু করে রাসূল সা., সাহাবায়ে কিরাম এবং উলামায়ে দেওবন্দ পর্যন্ত সবাই কৃষি, পশুপালন, শিল্প-বাণিজ্য ইত্যাদি পরিশ্রমভিত্তিক, কর্মমূখী পেশার মাধ্যমে জীবিকা নির্বাহ করেছেন। প্রতিষ্ঠানের স্বার্থে অধিকতর সময় ও শ্রম দেয়ার জন্য কর্তৃপক্ষ অনুরোধ করে অনেককে নিজস্ব পেশা থেকে ছাড়িয়ে এনেছেন এমন উদাহরণও আছে।

কর্মজীবী আলেম হিসেবে গড়ে তোলার জন্যই শায়খুল ইসলাম আল্লামা হুসাইন আহম মাদানী রাহ. তাগিদ দিয়েছেন মাদারাসা ছাত্রদেরকে কারিগরী শিক্ষা দেয়ার জন্য। আর সে লক্ষ্যেই দারুল উলূম দেওবন্দে কুরআন, হাদীস, তাফসীর,আদব, ফিকাহ ইত্যাদি বিষয়ের পাশাপাশি কারিগরী শিক্ষা, চিকিৎসা বিদ্যা ইত্যাদি পেশাভিত্তিক বিষয় অন্তর্ভূক্ত করা হয়।

দুঃখজনক হলেও সত্য, আমরা যারা আকাবীর আকাবীর বলে তাসবীহ যপন করি, দারুল উলূম দেওবন্দের উত্তরসূরী পরিচয়ে তৃপ্তির ঢেকুর দেই, গর্ববোধ করি দারুল উলূমের সূর্য সন্তান বলে, শ্লোগানে শ্লোগোনে মুখরিত করি ‘সিলসিলায়ে মাদানী’ বলে বলে, সেই আমরা আজ কোথায়? আসলেই কী আমরা কাজেকর্মে দেওবন্দের যোগ্য উত্তরসূরী!

দারুল উলূম দেওবন্দের ঐতিহ্যের ধারক ও বাহক আমাদের দেশের উলামা হযরত, সকল শিক্ষাবোর্ড এবং কওমী মাদরাসাসমূহ যত শীঘ্র দারুল উলূম দেওবন্দের মূল ধারার পরিপূর্ণ অনুসারী হবেন, তত দ্রুত মঙ্গল হবে দেশ ও জাতির। উৎপাদন ও কর্মমূখী কওমি তালাবা-আলেম গঠন এবং উম্মাহর কাঙ্খিত কল্যাণে আমাদের আলেম সমাজ এবং মাদরাসা কর্তৃপক্ষ আরও মনোযোগী হবেন আশাকরি। আল্লাহ আমাদেরকে স্বনির্ভর আলেম, দাঈ, দ্বীনের খাদেম এবং সমাজসেবক হিসেবে গড়ে উঠার তাওফীক দান করুন। আমীন।

এই সংবাদটি 119 বার পঠিত হয়েছে

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

[latest_post][single_page_category_post]

WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com