আল্লামা শাহ আহমদ শফী রহ.সহ চার বিশিষ্ট আলেম স্মরণে জামিয়া মাদানিয়া বিশ্বনাথে দোয়া মাহফিল অনুষ্টিত

প্রকাশিত: ১১:৪৪ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ২৭, ২০২০

আল্লামা শাহ আহমদ শফী রহ.সহ চার বিশিষ্ট আলেম স্মরণে জামিয়া মাদানিয়া বিশ্বনাথে দোয়া মাহফিল অনুষ্টিত

সিলেট রিপোর্ট:
আল্লামা আশরাফ আলী শায়খে বিশ্বনাথী (র) স্মৃতিবিজড়িত সিলেটের ঐতিহ্যবাহী দ্বীনী শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান জামিয়া ইসলামিয়া দারুলউলুম মাদানিয়া বিশ্বনাথের উদ্যোগে হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের আমির,দারুল উলুম মঈনুল ইসলাম হাটহাজারী ‘র মহাপরিচালক, খলীফায়ে মাদানী,শায়খুল ইসলাম আল্লামা শাহ আহমদ শফী রহ.,জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম বাংলাদেশের সাবেক কেন্দ্রীয় সভাপতি, খলীফায়ে মাদানী আল্লামা আব্দুল মোমিন শায়খে ইমামবাড়ি,শায়খুল হাদীস ওয়াত তাফসীর আল্লামা হাফিজ তাফাজ্জুল হক্ব হবিগঞ্জী রহ. ও শায়খুল হাদীস আল্লামা আব্দুশ শহীদ গলমুকাপনী রহ.’র স্মরণে আলোচনা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্টিত হয়েছে। রবিবার (২৭ সেপ্টেম্বর) বাদ জোহর মাদানিয়া জামি মসজিদে এ মাহফিল অনুষ্টিত হয়। জামিয়ার প্রিন্সিপাল মাওলানা শিব্বীর আহমদ বিশ্বনাথীর সভাপতিত্বে ও শিক্ষক হাসান বিন ফাহিমের পরিচালনায় মাহফিলে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন জামিয়ার শায়খুল হাদীস আল্লামা ফযলুর রহমান খান বানিয়াচঙ্গী। বক্তব্য রাখেন জামিয়ার সহকারি শায়খুল হাদীস মুফতী আমিরুল ইসলাম দিগলবাগী, জামিয়ার মুহাদ্দীস মাওলানা সালীম আহমদ চৌধুরী,মুফতী ইব্রাহিম খলীল,জামিয়ার শুরা সদস্য মাওলানা সামছুল ইসলাম,হাজ্বী ফজলুর রহমান,শিক্ষক হাফিজ মাওলানা শাহেদ আহমদ প্রমূখ।

বক্তারা বলেছেন-২০২০ সালে এ পর্যন্ত দেশের শীর্ষ বেশ কয়েকজন আলেমকে আমরা হারিয়েছি।তারা ছিলেন মুসলিম জাতির অভিবাবকতূল্য।তাদের হারিয়ে আজ পুরো জাতি শোকে মূহ্যমান।দেশের ইসলামি অঙ্গণের শীর্ষ নেতা আল্লামা শাহ আহমদ শফী রহ.’র ইন্তেকাল এ শোককে আরো গভীর করেছে।আল্লামা শাহ আহমদ শফী রহ.ছিলেন ইসলামি শক্তির ঐক্যের প্রতিক।তাঁর রহ.’র নেতৃত্বে এ দেশে নাস্তিক্যবাদের ভয়ংকর ষড়যন্ত্র বুমেরাং হয়েছিলো।তাঁরই হাত ধরে ক্বাওমী অঙ্গণে দীর্ঘ দিনের দাবি ক্বাওমী সনদের স্বীকৃতি বাস্তবায়ন হয়েছিলো।
তিনি ছিলেন আদর্শ মানুষ গড়ার সফল কারিগর।আট দশকেরও বেশি সময় শিক্ষকতার মহান পেশায় আত্ননিয়োগ করেছিলেন।এ দীর্ঘ সময়ে দেশের সর্ববৃহৎ মাদরাসা থেকে তিনি গড়েছেন লাখো আলেম,মুফতী,মুহাদ্দীস,মুফাক্কির,মুছান্নিফ।
আধ্যাত্নিক জগতে তিনি ছিলেন স্বীয় উস্তায কুতবে আলম সায়্যিদ হুসাইন আহমদ মাদানী রহ.’র উত্তরসূরী।স্বীয় শায়খের আদর্শে উদ্ভূদ্ধ হয়ে আজীবণ সর্বস্থরের মানুষকে তাক্বওয়াপূর্ণ জীবণ শিক্ষা দিয়ে গেছেন।

সভাপতির বক্তব্যে শায়খুল ইসলাম আল্লামা শাহ আহমদ শফী রহ.,আল্লামা আব্দুল মোমিন শায়খে ইমামবাড়ি রহ.আল্লামা তাফাজ্জুল হক্ব হবিগঞ্জী রহ.ও আল্লামা আব্দুশ শহীদ গলমুকাপনী রহ.’র জীবণের বিভিন্ন দিক আলোচনা করে প্রিন্সিপাল মাওলানা শিব্বীর আহমদ বিশ্বনাথী বলেছেন- জামিয়া মাদানিয়া বিশ্বনাথের প্রতিষ্টাতা মুহতামীম,জমিয়তের সাবেক কেন্দ্রীয় সভাপতি আল্লামা শায়খ আশরাফ আলী বিশ্বনাথী রহ.’র সাথে আল্লামা শাহ আহমদ শফী রহ.’র ছাত্র জীবণ থেকে ঘনিষ্ট সম্পর্ক ছিলো।শায়খে বিশ্বনাথী রহ.’র জীবদ্দশায় তিনি অনেক বার জামিয়া মাদানিয়ায় এসেছেন।শায়খে বিশ্বনাথী রহ.’র ইন্তেকালের পরও তিনি জামিয়ার খোঁজ নিতেন।সর্বশেষ ২০১৩সালে তিনি জামিয়া মাদানিয়া পরিদর্শণ করেন।শায়খে বিশ্বনাথী রহ.’র সাথে আল্লামা ইমামবাড়ি রহ.,মুহাদ্দীসে হবিগঞ্জী রহ.,শায়খে গলমুকাপনী রহ.’র গভীর সম্পর্ক ছিলো।শায়খের ইন্তেকালের পর জামিয়া মাদানিয়া বিশ্বনাথের অন্যতম অভিবাবক ছিলেন এ চার বুযূর্গ।তাদের ইন্তেকালে আমরা যোগ্য অভিবাবক হারিয়েছি।তারা প্রত্যেকেই আদর্শ ব্যক্তি গঠণ,তাক্বওয়াভিত্তিক সমাজ ও রাষ্ট্রব্যবস্থা প্রতিষ্টার লক্ষ্যে আজীবণ সংগ্রাম করে গেছেন।তাদের শূণ্যস্থান পূরণ হবার নয়।
মাহফিলে শায়খুল ইসলাম আল্লামা শাহ আহমদ শফী রহ.,সদরে জমিয়ত আল্লামা আব্দুল মোমিন শায়খে ইমামবাড়ি রহ.,আল্লামা তাফাজ্জুল হক্ব হবিগঞ্জী রহ. ও আল্লামা আব্দুশ শহীদ শায়খে গলমুকাপনী রহ.’সহ মুর্দেগানের মাগফিরাত ও দরজাবুলন্দি কামনা করে মুনাজাত করেন শায়খুল হাদীস আল্লামা ফযলুর রহমান খান বানিয়াচঙ্গী।
এ সময় জামিয়ার শিক্ষক-শিক্ষার্থী,মুসল্লীগণসহ বিভিন্ন শ্রেণী-পেশার লোকেরা উপস্থিত ছিলেন।

এই সংবাদটি 105 বার পঠিত হয়েছে

WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com