ধর্ষক দাড়ি রেখে ধার্মিক সাজে! চিনে রাখুন ধর্ষক তারেককে

প্রকাশিত: ৯:৫২ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ২৯, ২০২০

ধর্ষক দাড়ি রেখে ধার্মিক সাজে! চিনে রাখুন ধর্ষক তারেককে

সিলেট রিপোর্ট, সৈয়দ উবায়দুররহমান :

চুল দাড়ি-গোঁফ কেটে চেহারার আমুল পরিবর্তণ করেও রেহাই পাননি এমসি কলেজের সংঘবদ্ধ ধর্ষক দলের সদস্য তারেকুল ইসলমা তারেক। ধর্ষক ধার্মিক বা হুজুর সাজে, কিন্তু হুজুরবা ধার্মিক সাজে না! তাকে সুনামগঞ্জের দিরাই গরমা জগদ্বল থেকে তাকে আটক করেছে র‌্যাব-৯ এর একটি দল।

লম্বা দাড়ি-গোঁফের অধিকারি তারেক মামলার দ্বিতীয় আসামী। তারেকই শুক্রবারে ভিকটিমসহ গাড়িটি চালিয়ে নিয়ে গিয়েছিল কলেজ হোস্টেল প্রাঙ্গন পর্যন্ত।

তারেক সুনামগঞ্জ শহরে সদর হাসপাতালের পাশে নিসর্গ-৫৭ নং বাসার মৃত রফিকুল ইসলামের ছেলে।

মামলার বর্ণণা অনুযায়ী আসামী তারেকুল ইসলাম তারেক ড্রাইভিং সিটে বসে। বাদী ও তাঁর স্ত্রীকে পিছনের সিটে ওঠিয়ে ১ নং আসামী সাইফুর রহমান ও অর্জুন লস্করকে পিছনের সিটে ও শাহ মো. মাহবুবুর রহমান রনি ড্রাইভিং সিটের পাশের সিটে নিয়ে তরিকুল ইসলাম গাড়ি চালিয়ে এমসি কলেজ হোস্টেল প্রাঙ্গনের ৭ নং ব্লকের ৫ তলা নতুন বিল্ডিং এর দুক্ষিণপূর্ব কোনে খালি জায়গায় দাঁড় করায়।

তারেক বাদীর মানিব্যাগ থেকে ২ হাজার টাকা ছিনিয়ে নেয় এবং মেয়েটিকে ধর্ষণ করে। ঘটনার পর থেকে সে চুল দাড়ি-গোঁফ কেটে চেহারার আমুল পরিবর্তণ করে ফেলে। কিন্তু শেষ রক্ষা হয়নি। তাকে সুনামগঞ্জের দিরাই গরমা জগদ্বল থেকে তাকে আটক করেছে র‌্যাব-৯ এর একটি দল।

উল্লেখ্য, শুক্রবার রাতে এমসি কলেজের মূল ফটক থেকে গাড়িসহ তুলে নিয়ে ছাত্রাবাস প্রাঙ্গনে স্বামীকে আটকে রেখে গাড়িতেই ধর্ষণ করেন বহু অপেকের্মর হোতা রঞ্জিত সরকারের অনুসারী ছাত্রলীগের কয়েকজন। ওই ঘটনায় শুক্রবার রাতেই ৬ জনের নাম উল্লেখসহ ৯ জনের বিরুদ্ধে মামলা করেন ধর্ষণের শিকার গৃহবধূর স্বামী। শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী অভিযান চালিয়ে একে একে এজহারভূক্ত ৬ আসামীসহ মোট ৮ জনকেই আটক করে।

এই সংবাদটি 1571 বার পঠিত হয়েছে

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

[latest_post][single_page_category_post]

WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com