প্রধানমন্ত্রীর স্বাক্ষাত পেয়ে কি বলবেন খাদিজা ?

প্রকাশিত: ১:৪৩ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ২৯, ২০১৬

প্রধানমন্ত্রীর স্বাক্ষাত পেয়ে কি বলবেন খাদিজা ?

সিলেট রিপোর্ট: ছাত্রলীগ নেতা বদরুলের প্রেমের প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করায় গত ৩ অক্টোবর সিলেটের এমসি কলেজ ক্যাম্পাসে চাপাতির কোপে গুরুতর আহত হন খাদিজা আক্তার নার্গিস। মরণাপন্ন খাদিজাকে তাৎক্ষণিক নেওয়া হয় সিলেটের ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে। পরদিন ভোরে তাকে আনা হয় রাজধানীর স্কয়ার হাসপাতালে। সেই দিনই তার মাথায় এক দফা অস্ত্রোপচার করা হয়। প্রায় দুই মাস চিকিৎসা শেষে রাজধানীর স্কয়ার হাসপাতাল থেকে সোমবার সকালে সাভারের সিআরপিতে আনা হয় খাদিজাকে। সেখানে তাকে আরো ১৫ দিন ফিজিওথেরাপি দেওয়া হবে। পরে চিকিৎসকদের পরামর্শে পরবর্তী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।
জানাগেছে, খাদিজা এখন আশঙকা মুক্ত। স্বজনদের সাথে কথা বলছে,সাংবাদিক সম্মেলনে তাকেহোসতেও দেখাগেছে।
আরেকটু সুস্থ হয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে দেখা করতে চান সিলেট মহিলা কলেজের ছাত্রী খাদিজা আক্তার নার্গিস। সোমবার সকালে সাভারের পক্ষাঘাত গ্রস্তদের পুনর্বাসন কেন্দ্রে (সিআরপি) আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে খাদিজা এই আশা ব্যক্ত করেন বলে জানাগেছে।
প্রধানমন্ত্রীর সাথে কেনো দেখা করতে চান,কি কথা বলতে চান খাদিজা ?  নিজের নিরাপত্তা,উন্নত চিকিৎসা, বদরুলের শাস্তি নাকি অন্য কিছু ? সবশেষে প্রধানমন্ত্রীর দেখা পাবেন তো খাদিজা ? এসব প্রশ্নই এখন ঘোরপাক খাচ্ছে। সময়েই বলে দিবে এসবের জবাব।
(২৮ নভেম্বর) সোমবার সকাল ১১.২০ মিনিটে একটি সরকারি অ্যাম্বুলেন্স যোগে ঢাকার স্কয়ার হাসপাতাল থেকে সিআরপিতে আসেন খাদিজা। এসময় তার সঙ্গে ছিলেন তার বাবা মাশুক মিয়া ও তিন জন নার্স।
এরপর ৪০ মিনিট নিবিঢ় পর্যবেক্ষণের পর তাকে নিয়মিত রোগী হিসেবে খাদিজাকে ভর্তি করেন সিআরপির হেড অফ মেডিকেল সার্ভিস অ্যান্ড কনসালটেন্ট নিউরোসার্জেন বিশেষজ্ঞ ডা. সাঈদ উদ্দিন হেলাল।
এ সময় সংবাদ সম্মেলনে খাদিজার চিকিৎসক জানান, এই তরুণীর বর্তমান অবস্থা স্বাভাবিক হলেও মাথায় গুরুতর আঘাতজনিত কারণে বাম হাত এখনো স্বাভাবিক হয়নি। মস্তিকের ইনজুরির কারণে বলা যাচ্ছে না কত দিনে তিনি সুস্থ হবেন।

এই সংবাদটি 209 বার পঠিত হয়েছে

WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com