ইমরান খানকে প্রধানমন্ত্রীর পদে বসানোর পেছনে সেনাবাহিনীর হাত ছিলো

প্রকাশিত: ৯:২৯ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ১৮, ২০২০

ইমরান খানকে প্রধানমন্ত্রীর পদে বসানোর পেছনে সেনাবাহিনীর হাত ছিলো

 

ডেস্ক রিপোর্ট :

 

পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফের কঠোর সমালোচনা করেছেন বর্তমান প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান।

সেনাবাহিনীর সাবেক প্রধানের বিরুদ্ধে নির্বাচনে কারচুপি ও ইসলামাবাদে ‘পুতুল সরকার’ বসানোর অভিযোগ করায় শনিবার তিনি নওয়াজ শরিফকে একহাত নিয়েছেন। খবর পিটিআইয়ের।

পাকিস্তানের পাঞ্জাবপ্রদেশে গত শুক্রবার এক বিক্ষোভ সমাবেশে ভার্চুয়ালি যোগ দিয়ে নওয়াজ অভিযোগ করেন, তার সরকার উৎখাত করেছিলেন সেনাবাহিনীর তৎকালীন প্রধান জেনারেল কামার জাভেদ বাজওয়া।

বিচার বিভাগকে চাপে রাখা এবং ২০১৮ সালের নির্বাচনের মাধ্যমে ইমরান খানকে প্রধানমন্ত্রীর পদে বসানোর পেছনেও সেনাবাহিনীর হাত রয়েছে।

নওয়াজ পাকিস্তান মুসলিম লিগের (পিএমএল-এন) সর্বোচ্চ নেতা। দুর্নীতির অভিযোগে ২০১৭ সালে দেশটির সুপ্রিমকোর্টের আদেশে তিনি ক্ষমতা থেকে অপসারিত হন।

২০১৮ সালের নির্বাচনে হস্তক্ষেপের মাধ্যমে ইমরান খানের বিজয় নিশ্চিত করার জন্য এই প্রথম দেশটির সেনাবাহিনীর তৎকালীন প্রধানের নাম মুখে নিয়ে সরাসরি অভিযোগ করলেন নওয়াজ।

আগে তিনি এ ব্যাপারে আকারে-ইঙ্গিতে অভিযোগ করলেও শুক্রবার সরাসরি সাবেক সেনাপ্রধানের নামোল্লেখ করে অভিযোগ করেন।

২০১৮ সালের নির্বাচনের পর সবচেয়ে বড় ওই বিক্ষোভ সমাবেশে নওয়াজ বলেন, ‘জেনারেল কামার জাভেদ বাজওয়া, আপনিই আমাদের সরকারকে উৎখাত করেছিলেন। অথচ সরকার সঠিকভাবে দায়িত্ব পালন করছিল। আপনার ইচ্ছাপূরণে জাতি ও দেশের ক্ষতি করেছিলেন।

তার সরকারের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রে পাকিস্তানের গোয়েন্দা সংস্থা আইএসআইও জড়িত ছিল বলে অভিযোগ করেন নওয়াজ শরিফ।

নওয়াজের এমন অভিযোগের পর পাল্টা জবাব দেন ইমরান। তিনি বলেন, জেনারেল জিয়া-উল হকের জুতা পলিশ করে রাজনীতিতে এসেছিলেন নওয়াজ।

এই সংবাদটি 65 বার পঠিত হয়েছে

WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com