করোনা ভাইরাস সম্পর্কে গুরুত্বপূর্ণ ফাতওয়ার গ্রন্থ রচনা করেছেন হাটহাজারীর মুফতী আব্দুস সালাম চাটগামী

প্রকাশিত: ৫:৫৩ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ২৩, ২০২০

করোনা ভাইরাস সম্পর্কে গুরুত্বপূর্ণ ফাতওয়ার গ্রন্থ রচনা করেছেন হাটহাজারীর মুফতী আব্দুস সালাম চাটগামী

এইচ.এম. জুনাইদ:

হাটহাজারী মাদরাসা পরিচালনা কমিটির প্রধান,বর্তমান বাংলাদেশের গ্রান্ড মুফতী হযরত মাওলানা মুফতী আব্দুস সালাম চাঁটগামী (দা.বা)। বয়স আশি’র কোটা ছুঁইছুঁই করছে। এই বয়োবৃদ্ধ বয়সেও হাটহাজারী মাদরাসা পরিচালনার মতো গুরু দায়িত্ব আঞ্জাম দিচ্ছেন। নিয়মিত উচ্চতর ইসলামি আইন গবেষণা বিভাগের ছাত্রদের লিখিত ফাতওয়া দেখে সেগুলোর ভুল ক্রুটি শোধরে দিচ্ছেন।

পাশাপাশি তিনি হাদীসের কিতাব ইবনে মাজাহ শরীফের পাঠদান করছেন। ফাতওয়া বিভাগেও বিশেষ দরস প্রদান করেন। মুফতী আব্দুস সালাম চাঁটগামী এশিয়ার এক উজ্জল নক্ষত্র। হাদীস ও ফিকাহ উভয় শাস্ত্রে রয়েছে তাঁর অসাধারণ পাণ্ডিত্য। অনেক মুফতী সাহেব আছেন তবে হাদীসে মাহারাত বা দক্ষতা রয়েছে এমন মুফতী বর্তমান সময়ে খুবি কম পাওয়া যায়। আল্লামা চাটগাঁমী সাহেব হাদীসে দক্ষ একজন বিজ্ঞ ফকীহ।

সমসাময়িক বিষয়াবলীর সমাধান দিতে পারা একজন মুফতীর বড় গুণ। একজন বিজ্ঞ মুফতীই পারেন আদিল্লায়ে আরবায়ার আলোকে নতুন সৃষ্ট শরয়ী সমস্যার গ্রহনযোগ্য সমাধান দিতে।

করোনা ভাইরাস কোভিড 19 । পুরো পৃথিবীকে হায়রান করে দিয়েছে৷ আধুনিক চিকিৎসা বিজ্ঞানও এর কাছে হার মেনেছে। নিজেদের অক্ষমতা প্রকাশ করতে বাধ্য হয়েছে। করোনা ভাইরাস মানুষের স্বাভাবিক জীবনযাপনেও ব্যাপক পরিবর্তন এনে দিয়েছে।

করোনার প্রাদুর্ভাব ঠেকাতে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার পরামর্শ অনুযায়ী যখন সরকারিভাবে নিত্যনতুন নির্দেশনার জারি হয়েছে তখন ইসলামের বিধিবিধান পালনেও মানুষ নতুন নতুন মাসআলার সম্মুখীন হতে হয়েছে। করোনার দরূন সৃষ্ট নতুন মাসআলার সমাধান দিতে মুফতীয়ানে কেরামের অনেক হিমশিম খেতে হয়েছে।

সরকারী ঘোষণায় মসজিদে জুমার নামাজ পড়া বন্ধ হওয়ার পর জুমার নামাজ আদায়ের পদ্ধতি কেমন হবে ? মসজিদে মুসাল্লিদের সীমাবদ্ধতা, এ ব্যাপারে শরীয়তের বিধান কি? নামাজের কাতার ফাঁক করে দাঁড়ানো,মাস্ক পড়ে নামায আদায় করা যাবে কিনা? এসব নিত্যনতুন শরঈ সমস্যার সমাধানে বাংলাদেশের অধিকাংশ ধর্মপ্রাণ মুসলমানদের দৃষ্টি ছিলো হাটহাজারী মাদরাসা ও মুফতীয়ে আযম আল্লামা মুফতী আব্দুস সালাম চাঁটগামী দা. বা. এর ফাতওয়ার দিকে।

নতুন সৃষ্ট এসব শরয়ী সমস্যার সমাধান দিতে যখন অনেকেই হিমশিম খাচ্ছিলেন এমনকি অনেক ভুল ফাতওয়ারও ছড়াছড়ি হচ্ছিল সেই নাজুক পরিস্থিতিতে কুরআন- হাদীস ও ফাতওয়ার নির্ভরযোগ্য কিতাবপত্র ঘেঁটে করোনায় সৃষ্ট শরয়ী সমস্যার সমাধান দিয়েছেন বাংলাদেশের গ্রান্ড মুফতী আল্লামা আব্দুস সালাম চাঁটগামী হাফিযাহুল্লাহু।মৌখিকভাবে ফাতওয়ার পাশাপাশি লিখিত অনেক ফতোয়াও দিয়েছেন তিনি। বারাকাল্লাহু ফি হায়াতিহিম,আমিন।
করোনায় সৃষ্ট শরয়ী সমস্যার সমাধানে আল্লামা চাটগাঁমী হুজুরের ফাতওয়া শুধু বাংলাদেশ নয় ভারত পাকিস্তানেও বিশাল প্রভাব ফেলেছে। এমনকি করোনায় জুমার নামাজ বিষয়ে প্রথমে অনেক মুফতীয়ানে কেরামের ভিন্ন মত বা ভিন্ন ফাতওয়া থাকলেও সর্বশেষ সকলেই আল্লামা মুফতী আব্দুস সালাম চাঁটগামী প্রদত্ত ফাতওয়ার উপর-ই ঐক্যমত পোষণ করেছিেলেন।

আল্লামা জুনায়েদ বাবুনগরী হাফিযাহুল্লাহুর খেদমত ও সাহচর্যে থাকার সুবাধে মুফতী আব্দুস সালাম চাঁটগামী দা.বা. কে খুব কাছ থেকে দেখার সুযোগ হয়। করেনার সময়ও মাদরাসায় ছিলাম।
আমি স্বচক্ষে দেখেছি- বয়সের ভারে ন্যুব্জ আল্লামা চাঁটগামী সাহেব হুজুর দিনরাত বালিশের মধ্যে ঠেক লাগিয়ে গভীর মোতালায়ার মাধ্যমে করোনায় সৃষ্ট শরয়ী সমস্যার সমাধান খোঁজে বের করতেন এবং নিজ হাতে লিখতেন। করোনার সময়ের সৃষ্ট শরয়ী সমস্যার সমাধানে আল্লামা মুফতী আব্দুস সালাম চাঁটগামী দা.বা. এর স্বহস্তে লিখিত ফাতওয়া ও এ সংক্রান্ত অন্যান্য বিষয়াবলী নিয়ে উর্দু ভাষায় রচনা হয়েছে ” মাওজুদাহ কারোনা ভাইরাস আওর উস কে শরঈ আহকাম”।

আলহামদুলিল্লাহ! দীর্ঘ প্রতীক্ষার পর প্রকাশিত হওয়া সাড়া জাগানো এ কিতাম সমকালীন করোনা ভাইরাস সম্পর্কে যুগচাহিদা পূরণে যথেষ্ট হবে,ইনশাআল্লাহ।

এই গ্রন্থের বৈশিষ্টসমূহ:

✍ ভাইরাস সম্পর্কে ইতোপূর্বে এমন তাৎপর্যপূর্ণ কোন কিতাব লেখা হয়নি
✍ করোনা ভাইরাস সম্পর্কে কিছু গুরুত্বপূর্ণ ফাতওয়া দলীলসহ আলোচনা করা হয়েছে।যেমন,
✍ মসজিদে মুসাল্লিদের সীমাবদ্ধতা। এ ব্যাপারে শরীয়তের বিধান কি?
✍ কাতার ফাঁক করে দাঁড়ানো
✍ মাস্ক পড়ে নামায আদায় করা
✍ সুস্থদের মসজিদে না যাওয়া
✍ ছোঁয়াচে রোগ সম্পর্কে ইসলামী আক্বীদা
✍ করোনায় আক্রান্ত রোগীদের পাশে দাঁড়ানো
✍ উলুল-আমর কে? কখন উলুল-আমরের ইতাআত বা আনুগত্য করা আবশ্যক ?
✍ করোনা ভাইরাস সম্পর্কে দেওবন্দের ফতোয়া এবং হাটহাজারীর ফতোয়ার মাঝে পার্থক্য এবং এর দলিল ভিত্তিক জবাব। এ ছাড়াও ১৯২ পৃষ্ঠার এই বইয়ে করোনা ভাইরাস সম্পর্কে বিশদ আলোচনা ও প্রশ্নোত্তর রয়েছে।

ফুরিয়ে যাওয়ার আগেই আপনার মূল্যবান কপিটি সংগ্রহ করুন।যোগাযোগ -দারুল উলুম হাটহাজারী
শফিক মঞ্জিল,রুম নং-৩৩৬।যোগাযোগ-01829523290
মাকতাবাতুল ইত্তেহাদ,হাটহাজারী।

(শিক্ষার্থী : ইফতা বিভাগ, দারুল উলুম হাটহাজারী।)

এই সংবাদটি 526 বার পঠিত হয়েছে

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

[latest_post][single_page_category_post]

WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com