আসামে এনআরসি থেকে বাদ পড়াদের অবিলম্বে ‘রিজেকশন স্লিপ’ দেয়ার নির্দেশ কেন্দ্রের

প্রকাশিত: ১০:০৮ পূর্বাহ্ণ, মার্চ ২৯, ২০২১

আসামে এনআরসি থেকে বাদ পড়াদের অবিলম্বে ‘রিজেকশন স্লিপ’ দেয়ার নির্দেশ কেন্দ্রের

ডেস্ক রিপোর্ট :
আসামে নাগরিকপঞ্জি বা এনআরসি থেকে যাদের নাম চূড়ান্ত দফায় বাদ পড়েছে তাদেরকে অবিলম্বে ‘রিজেকশন স্লিপ’ ধরিয়ে দিতে রাজ্য সরকারকে নির্দেশ দিয়েছে ভারতের কেন্দ্রীয় সরকার। এনআরসিতে নিবন্ধিত হতে ওই রাজ্যে মোট ৩ কোটি ২৯ লাখ আবেদন পড়েছিল। তার মধ্য থেকে চূড়ান্ত দফায় ১৯ লাখের বেশি মানুষের আবেদন প্রত্যাখ্যাত হয়েছে। অর্থাৎ তারা ভারতের নাগরিক নন বলে চিহ্নিত করা হয়েছে। এসব মানুষকে অবিলম্বে ‘রিজেকশন স্লিপ’ ধরিয়ে দিতে আসাম সরকারকে নির্দেশ দিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার। এ খবর দিয়েছে ভারতের প্রভাবশালী অনলাইন দ্য হিন্দু। এতে বলা হয়েছে, ৫ বছর মেয়াদী এনআরসি প্রক্রিয়া সম্পন্ন করতে সরকারের মোট খরচ হয়েছে ১২২০ কোটি রুপি। ২৩শে মার্চ আসামের স্বরাষ্ট্র সচিব এসআর ভুইয়ার কাছে ভারতের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের অধীনে রেজিস্ট্রার জেনারেল অব ইন্ডিয়া (আরজিআই) অফিস একটি চিঠি লিখেছে।

এতে বলা হয়েছে, সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশনা অনুযায়ী ২০১৯ সালের ৩১ শে আগস্ট নাগরিকপঞ্জি বা এনআরসি থেকে যাদেরকে বাদ দেয়া হবে বা যাদেরকে এতে সংযুক্ত করা হবে তার একটি সম্পূরক তালিকা প্রকাশিত হয়েছে। তা সত্ত্বেও এনআরসি থেকে যাদেরকে বাদ দেয়া হয়েছে তাদেরকে এখনও রিজেকশন স্লিপ দেয়া শুরু হয়নি। এর আগে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বলেছিল, এনআরসি থেকে কোন ব্যক্তির নাম বাদ পড়া মানে এই নয় যে, তাকে বিদেশি হিসেবে ঘোষণা করা হবে। তাদেরকে এ বিষয়ে চূড়ান্ত সুযোগ দেয়া হবে। সেই সুযোগে তারা তাদের ঘটনাগুলোকে ফরেনার্স ট্রাইব্যুনালে তুলতে পারেন। এ জন্য সময় ৬০ দিন থেকে বাড়িয়ে ১২০ দিন করা হয়। উল্লেখ্য, ভারতে আসাম হলো একমাত্র রাজ্য যেখানে সুপ্রিম কোর্টের তত্ত্বাবধানে এনআরসি করা হয়েছে।

এই সংবাদটি 135 বার পঠিত হয়েছে

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

[latest_post][single_page_category_post]

WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com