সিলেটে মন্দিরে তরুণীকে ধর্ষণের চেষ্টা, পুরোহিত গ্রেফতার

প্রকাশিত: ১১:০৪ অপরাহ্ণ, এপ্রিল ১৫, ২০২১

সিলেটে মন্দিরে তরুণীকে ধর্ষণের চেষ্টা, পুরোহিত গ্রেফতার

সিলেট রিপোর্ট ::সিলেটের গোলাপগঞ্জে মন্দিরে তরুণীকে ধর্ষণের চেষ্টার অভিযোগে গবিন্দ দাস বাবাজি ওরফে ফরেস্ট চৌহান (৪৬) নামে এক পুরোহিতকে গ্রেফতার করেছে গোলাপগঞ্জ মডেল থানা পুলিশ।

বুধবার (১৪ এপ্রিল) রাতে উপজেলার বাঘা ইউনিয়নের কালাকোনা এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেফতারকৃত আসামি টাংগাইল জেলার দেলদোহার থানার সিলিমপুর গ্রামের কালু চৌহানের ছেলে। দীর্ঘ দিন থেকে কালাকোনা গ্রামে শ্রী শ্রী গিরিধারী জিও মন্দিরের পুরোহিত হিসাবে দায়িত্ব পালন করছেন অভিযুক্ত আসামি।

স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, মন্দিরের পাশ্ববর্তী বাড়ির তরুণী অন্যান্য সময়ের মত গত ১৩ এপ্রিল সন্ধ্যা ৭ টায় ধর্মীয় শিক্ষা লাভের জন্য মন্দিরে যান। এসময় মেয়েটিকে মন্দির থেকে জরুরী কাজের কথা বলে মন্দিরের পাশে নিয়ে যায় পুরোহিত ও তার অপর সহযোগি দিপংকর দেব তপন।

সেখানে তারা মেয়েটির মুখে চেপে ধরে ধর্ষণের চেষ্টা করলে মেয়েটি তাদের কবল থেকে বাঁচতে ও নিজের সম্ভ্রম বাঁচাতে চিৎকার শুরু করে। এ সময় আশপাশ এলাকার লোকজন ও মেয়েটির আত্মীয়-স্বজন এগিয়ে এসে তাকে অর্ধনগ্ন অবস্থা উদ্ধার করেন।

পরে ভুক্তভোগী তরুণীর দেয়া তথ্য মতে মন্দিরের পুরোহিত গবিন্দ দাস বাবাজি ওরফে ফরেস্ট চৌহানকে এলাকাবাসী আটক করে গণধোলাই দিলে তরুণীকে ধর্ষণের চেষ্টার বিষয়টি পুরোহিত স্বীকার করে। এ সময় পুরোহিতের অপকর্মের সাথী কালাকোনা গ্রামের চতুল দেবের ছেলে দিপংকর দেব তপন (৩৮) পালিয়ে যায়।

ঘটনার পর ভুক্তভোগী তরুণী বাদি হয়ে অভিযুক্ত দুই জনের নাম উল্লেখ করে গোলাপগঞ্জ মডেল থানায় একটি মামলা (মামলা নং-১২) দায়ের করেছেন।

গোলাপগঞ্জ মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ হারুনূর রশীদ চৌধুরী ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, অভিযোগের প্রেক্ষিতে একজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে, অন্যজনকে গ্রেফতারের চেষ্টা অব্যাহত আছে।

এই সংবাদটি 307 বার পঠিত হয়েছে

WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com