‘নিউইয়র্ক বাংলাদেশ প্রেস ক্লাব’র বর্ণাঢ্য বনভোজন অনুষ্ঠিত

প্রকাশিত: ৮:১৯ পূর্বাহ্ণ, জুলাই ১৬, ২০২১

‘নিউইয়র্ক বাংলাদেশ প্রেস ক্লাব’র বর্ণাঢ্য বনভোজন অনুষ্ঠিত

সিলেট রিপোর্ট :

যুক্তরাষ্ট্রে বাংলাদেশী পেশাজীবী সাংবাদিকদের প্রথম ও সবচেয়ে বড় সংগঠন “নিউইয়র্ক বাংলাদেশ প্রেসক্লাব”। পেশাগত উৎকর্ষ ও দক্ষতা বৃদ্ধির পাশাপাশি পারস্পরিক সৌহার্দ্য এবং সম্প্রীতি বজায় রাখতে বিভিন্ন ধরণের অনুষ্ঠান করে আসছে সংগঠনটি। গত ১১ জুলাই, রোববার ছিলো নিউইয়র্ক বাংলাদেশ প্রেস ক্লাবের বনভোজন ও পুণর্মিলনী। করোনা মহামারির কারণে বিগত বছর কোন ধরণের অনুষ্ঠান করা সম্ভব হয়নি। সম্প্রতি জনজীবনে নতুন স্বাভাবিকতা ফিরে আসায় বনভোজন ও পুণর্মিলনীর আয়োজন করা হয়। লং আইল্যান্ডের সানকিন মেডো স্টেট পার্কে আয়োজিত বনভোজনে নিউইয়র্ক বাংলাদেশ প্রেস ক্লাবের সদস্যবৃন্দ ও তাদের পরিবারবর্গ অংশ নেন। এছাড়া বনভোজনে অংশ নেন আমন্ত্রিত অতিথিবৃন্দ। সকাল থেকেই নিজ নিজ গাড়ি যোগে সানকিন মেডো পার্কে রওয়ানা দেন বনভোজনে অংশগ্রহণকারীগণ। দুপুরের মধ্যে সবাই পৌছে যান বনভোজনস্থলে। মধ্যাহ্ন ভোজের পূর্বেই গোটা অনুষ্ঠানস্থল পরিণত হয় মিলন মেলায়। কমিউনিটির বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গের অংশগ্রহণে প্রেসক্লাবের অনুষ্ঠানটি হয়ে উঠে উৎসবমুখর ও প্রাণবন্ত।

অনুষ্ঠানের বিভিন্ন কর্মকান্ডের মধ্যে ছিলো- নারী-পুরুষ ও শিশুদের খেলাধুলা, আড্ডা, র‌্যাফল ড্র প্রভৃতি। ছিলো সকালের নাস্তা, দুপুরে মধ্যাহ্ন ভোজ আর বিকেলে ঝালমুড়ি সাথে চা। মধ্যাহ্নভোজের আইটেমগুলোর মধ্যে ছিল পোলাও, সাদা ভাত, নানরুটি, চিকেন ভূনা, বিফ রেজালা, সব্জি, চানা ডাল, সালাদ ও মিষ্টি হিসেবে ফিরনি। এসব খাবার সরবরাহ করেছে ঐতিহ্যবাহী সাগর রেস্টুরেন্ট। সকলেই সাগরের খাওয়ার আইটেমগুলোর প্রশংসা করেন। এছাড়া ছিল বাফেলো থেকে প্রেসক্লাবের সদস্য নিয়াজ মাখদুমের আনা রসগোল্লা আর গজা মিষ্টি। ছিলো। রং বে রং এর এক গুচ্ছ বেলুন উড়িয়ে দুপুরে এই অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করেন প্রধান পৃষ্ঠপোষক, বীর মুক্তিযোদ্ধা, বাংলা সিডিপ্যাপ এর কর্নধার,লেখক-গবেষক আবু জাফর মাহমুদ।

অনুষ্ঠানের উদ্বোধক আবু জাফর মাহমুদ নিউইয়র্ক বাংলাদেশ প্রেসক্লাবের প্রশংসা করে বলেন, বাংলাদেশী আমেরিকান কম্যুনিটিতে বড় ধরনের অবদান রেখে চলেছে সংগঠনটি। সম্প্রতি অনুষ্ঠিত ডেমোক্রেটিক প্রাইমারিতে বাংলাদেশী প্রার্থীদের বিজয়ে সাংবাদিকরা গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছেন। মূলধারার রাজনীতিতে নিজেদের অধিকার প্রতিষ্ঠায় সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে। এর আগে স্বাগত বক্তব্য রাখেন প্রেসক্লাবের সভাপতি ডা. ওয়াজেদ এ খান এবং শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন সাধারণ সম্পাদক মনোয়ারুল ইসলাম। এসময় ক্লাব কর্মকর্তা এবং অতিথিগণও শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন। কমিউনিটির কল্যাণে প্রেসক্লাবকে আরো এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার উপর গুরুত্বারোপও করেন তারা। পবিত্র কোরআন তেলাওয়াতের মাধ্যমে শুরু হয় আনুষ্ঠানিকতা। সাংবাদিকতায় পেশাদারিত্বে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করায় নিউইয়র্ক বাংলাদেশ প্রেসক্লাবের উচ্ছসিত প্রশংষা করেন অতিথিবৃন্দ। কমিউনিটির উন্নয়নে প্রেসক্লাবটি নিরলসভাবে কাজ করছে বলে উল্লেখ করেন তারা। সংগঠনের সভাপতি ডা: ওয়াজেদ এ খান অতিথিদের স্বাগত ও অভিনন্দন জানান। কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন অনুষ্ঠানের পৃষ্ঠপোষক ও প্রেসক্লাব কর্মকর্তাদের প্রতি।

পবিত্র কোরআন থেকে তেলাওয়াত ও বিশেষ দুআ পরিচালনা করেন ক্লাবের সাংগঠনিক সম্পাদক ও ইয়র্ক বাংলা সম্পাদক রশীদ আহমদ। এসময় ক্লাবের কর্মকর্তা ও সদস্যদের মধ্যে অন্যতম উপদেষ্টা আনোয়ার হোসেইন মঞ্জু, সাবেক সভাপতি যথাক্রমে ডা. চৌধুরী সারোয়ারুল হাসান, মাহফুজুর রহমান ও আবু তাহের, সহ সভাপতি হাবিবুর রহমান, সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও অনুষ্ঠান আয়োজক কমিটির আহ্বায়ক সালাহউদ্দিন আহমেদ, সাবেক সাধারণ সম্পাদক শিবলী চৌধুরী কায়েস, যুগ্ম সম্পাদক ও অনুষ্ঠান আয়োজক কমিটির সদস্য সচিব আলমগীর সরকার, অর্থ সম্পাদক মমিন মজুমদার সহ প্রবীণ সাংবাদিক বীর মুক্তিযোদ্ধা জয়নাল আবেদীন, শেখ সিরাজুল ইসলাম, মেরী জোবায়দা, সৈয়দ ইলিয়াস খসরু, ফরিদ আলম, এসএম সোলায়মান, দিদার চৌধুরী, জামীল আনসারী, টিএম মামুন, সানাউল হক প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

নিউইয়র্ক বাংলাদেশ প্রেসক্লাবের সাবেক ও বর্তমান কর্মকর্তা/সদস্য এবং সাংবাদিকদের মধ্যে এই অনুষ্ঠানে আরো যোগ দেন সাংবাদিক ফরিদ আলম, ইমরান আনসারী, মোহাম্মদ জাকারিয়া, সোহেল হোসাইন, নাজিম উদ্দিন প্রমুখ। এছাড়াও অনুষ্ঠানের অন্যতম পৃষ্ঠপোষক, এলাইড মর্টগেজ-এর জান ফাহিম, ইমিগ্র্যান্ট এলডার হোম কেয়ারের কর্ণধার গিয়াস আহমেদ, প্রবীণ প্রবাসী নাসির আলী খান পল, জ্যামাইকা মুসলিম সেন্টার পরিচালনা কমিটির সেক্রেটারী মনজুর আহমেদ চৌধুরী, জ্যামাইকা বাংলাদেশ ফ্রেন্ডস সোসাইটির সভাপতি ফখরুল ইসলাম দেলোয়ার, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ও রাজনীতিক মিজানুর রহমান ভূইয়া মিল্টন, মূলধারার রাজনীতিক মোহাম্মদ সাবুল উদ্দিন, ও সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আল আমীন রাসেল, কমিউনিটি অ্যাক্টিভিষ্ট জুলফিকার হায়দার প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

পরবর্তীতে কমিউনিটির বিশিষ্ট ব্যক্তিদের মধ্যে আরো অনেকেই এই অনুষ্ঠানে যোগ দেন। তারা হলেন মৌলভীবাজারের ভাটেরা কলেজের সাবেক প্রিন্সিপ্যাল নজরুল ইসলাম, সাপ্তাহিক নবযুগ সম্পাদক শাহাব উদ্দিন সাগর, জ্যামাইকা বাংলাদেশ ফ্রেন্ডস সোসাইটির প্রধান উপদেষ্টা এবিএম ওসমান গণি, ফার্মাসিস্ট মোহাম্মদ কবীর, ডিএইচ কেয়ারের পরিচালক মনিরুল ইসলাম মঞ্জু, কমিউনিটি নেতা আব্দুস শহীদ, আব্দুল্লাহ আল আরীফ, মোহাম্মদ আব্দুর রহীম প্রমুখ। সুস্বাদু রসগোল্লা আর গজা নিয়ে সুদূর বাফেলো থেকে সস্ত্রীক যোগ দেন প্রেসক্লাবের অন্যতম সদস্য, বাফেলো বাংলা সম্পাদক নিয়াজ মাখদুম।

প্রেসক্লাবের পূনর্মিলনী ও বনভোজন অনুষ্ঠান আয়োজনের প্রধান পৃষ্ঠপোষক, বীর মুক্তিযোদ্ধা বাংলা সিডিপ্যাপ-এর কর্নধার আবু জাফর মাহমুদ ছাড়াও বিশেষ সহযোগিতায় ছিলেন এটর্নী মঈন চৌধুরী, ইমিগ্র্যান্ট এলডার হোম কেয়ারের কর্ণধার গিয়াস আহমেদ, বিশিষ্ট রাজনীতিক ও ব্যবসায়ী মিজানুর রহমান ভূইয়া (মিল্টন ভূইয়া), বিশিষ্ট ব্যবসায়ী হাসানুজ্জামান হাসান, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী জাহিদ মিন্টু, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ও উৎসব ডটকমের রায়হান জামান, কমিউনিটি অ্যাকটিভিষ্ট মোহাম্মদ ফখরুল ইসলাম দেলোয়ার, পিজে গ্রুপ-এর কর্নধার পার্থ গুপ্ত।

অনুষ্ঠানে ছিলো শিশু-কিশোরদের দৌড়, মহিলাদের পিলো আর পুরুষদের বল থ্রো। ছিলো আকর্ষনীয় র‌্যাফল ড্র। পুরষ্কারগুলোর পৃষ্ঠপোষক ছিলেন- এলাইড মর্টগেজ-এর জান ফাহিম, কুইন্স সোস্যাল এডাল্ট ডে-কেয়ার সেন্টারের ইঞ্জিনিয়ার মাহফুজুল হক, খলিল বিরিয়ানী হাউজ-এর কর্নধার খলিলুর রহমান, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ও রাজনীতিক শামসুল ইসলাম মজনু, বিডি সাউন্ড, চ্যানেল টিটি, রুবাই ফ্যাশন, জ্যামাইকা ফার্মেসী, ইয়র্ক বাংলা, সাংবাদিক মনোয়ারুল ইসলাম এবং ডা. চৌধুরী সারোয়ারুল হাসান। অতিথিবৃন্দ এবং ক্লাব কর্মকর্তারা পুরষ্কারগুলো র‌্যাফল ড্র বিজয়ীদের হাতে তুলে দেন।

সাংস্কৃতিক পর্বে মজার জোকস পরিবেশন করেন কমিউনিটির পরিচিত মুখ নাসির আলী খান পল ও ডা. চৌধুরী সারোয়ারুল হাসান। সঙ্গীত পরিবেশন করেন বাংলাদেশ থেকে আগত সঙ্গীত শিল্পী আলী মাহমুদ। মজার অনুষ্ঠানে আগত অতিথি সহ ক্লাবের সদস্যদের প্রতিটি পরিবারের জন্য ছিলো প্রেসক্লাবের নাম ও লগো সম্বলিত আকর্ষনীয় মগ। সন্ধ্যা ৭টার দিকে বনভোজনের আনুষ্ঠানিকতা শেষ হলে সবাই ছুটে যান পাশ্ববর্তী সমুদ্র সৈকতে। সবকিছু মিলিয়ে আনন্দঘন পরিবেশে পারিবারিক সময় কাটে আয়োজক ও অতিথিবৃন্দের।

এই সংবাদটি 132 বার পঠিত হয়েছে

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

[latest_post][single_page_category_post]

WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com