করোনায় ক্ষতিগ্রস্ত মানুষের পাশে দাঁড়ানোর আহ্বান জমিয়তের

প্রকাশিত: ৭:১৫ অপরাহ্ণ, জুলাই ৩০, ২০২১

করোনায় ক্ষতিগ্রস্ত মানুষের পাশে দাঁড়ানোর আহ্বান জমিয়তের

সিলেট রিপোর্ট :

করোনা মহামারী প্রকটভাবে দেখা দেয়ায় ক্ষতিগ্রস্ত মানুষের সাহায্যে বিত্তশালীদের এগিয়ে আসার আহ্বান জানিয়েছেন জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম বাংলাদেশ।

আজ (৩০ জুলাই) সংবাদপত্রে প্রেরিত এক বিবৃতিতে জমিয়ত নেতৃবৃন্দ বলেন, আমরা বৈশ্বিক এক মহাসঙ্কটের মুখোমুখি অবস্থান করছি। করোনার দ্বিতীয় ধাপ বিশ্বের অন্যান্য দেশের ন্যায় বাংলাদেশেও প্রকটভাবে দেখা দেয়ায় দেশের স্বাভাবিক জীবনযাত্রার গতি মহাবিপর্যয়ের সম্মুখীন হয়ে পড়েছে। যথাসময়ে সঠিক এবং কার্যকরী পদক্ষেপ না নেয়ায় করোনায় ক্ষতিগ্রস্তের সংখ্যা দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে। আক্রান্ত রোগীর সংখ্যাও বেড়ে চলছে। লম্বা সময় পাওয়ার পরও চিকিৎসার জন্য সঠিক এবং কার্যকরী পরিকল্পনা গ্রহণে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় ব্যর্থতার পরিচয় দিয়েছে। লকডাউন, শটডাউন ঘোষণায় লাখ মানুষ কর্মহীন হয়ে পড়েছে। ফলে মানুষের মাঝে এক ধরনের ভয়, আতঙ্ক ও হতাশা কাজ করছে। কর্মহীন অসহায় মানুষ খাদ্যের অনিশ্চয়তায় ভোগছে‌। শুধু নিম্নআয়ের লোকেরাই লকডাউনে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে এমন নয়, উচ্চ মধ্যবিত্ত ও মধ্যবিত্তের লোকেরাও দিশাহারা হয়ে পড়েছে‌। নিম্নআয়ের মানুষ, দিনমজুর, দিনে আনে দিনে খাওয়া মানুষজন সীমাহীন বিপাকে পড়েছে‌। ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী, পরিবহন শ্রমিক, নির্মাণ শ্রমিক, রিকশাচালক জীবন বাঁচানোর জন্য প্রয়োজনীয় খাদ্যের জন্য হাহাকার করছে। কাজ নেই, খাবার নেই, চিকিৎসা ব্যয়ের সামর্থ্য নেই। করোনা চিকিৎসা ব্যয়বহুল হওয়ার ফলে আক্রান্ত রোগীদের নিয়ে পরিবার-পরিজনেরা সীমাহীন বিপাকে পড়েছে‌। অর্থসংকটে পড়ে বহু লোক বাসা ভাড়া দিতে অপারগ হওয়ায় পরিবার-পরিজন নিয়ে গ্রামে চলে যেতে বাধ্য হচ্ছে। সেখানেও তাদের খাদ্য সংকটে দিন কাটাতে হচ্ছে‌। এক বছরের অধিক সময় শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকায় শিক্ষার্থীদের ভবিষ্যৎ অনিশ্চিত হয়ে পড়েছে।

জমিয়ত নেতৃবৃন্দ বলেন, করোনার প্রথমদিকে অসহায় মানুষের পাশে বিভিন্ন জনকে সাহায্য সহযোগিতা করতে যেভাবে দেখা গিয়েছে, দ্বিতীয় ঢেউয়ের সময় সে প্রবণতা হ্রাস পেয়েছে। তাই জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম বাংলাদেশ দেশের বিত্তশালীদের করোনায় ক্ষতিগ্রস্ত মানুষের সহায়তায় পূর্বের ন্যায় এগিয়ে আসার আহ্বান জানাচ্ছে।

জমিয়ত নেতৃবৃন্দ বলেন, ইসলাম মানবতার ধর্ম। মানবতার শিক্ষা ইসলাম দিয়ে থাকে। সর্বদা অসহায় বিপদগ্রস্ত মানুষের পাশে দাঁড়াতে ইসলাম উদ্বুদ্ধ করে। মানব সেবায় আল্লাহর সন্তুষ্টি নিহিত রয়েছে। আল্লাহ তায়ালা পবিত্র কুরআনের সূরা যারিয়াতের উনিশ নম্বর আয়াতে বলেন, ‘তাদের (বিত্তশালী) ধন-সম্পদে অভাবগ্রস্ত ও বঞ্চিতদের অধিকার রয়েছে।’ এ সূরা বাকারার ১৭৭ নম্বর আয়াতে আল্লাহ, ঐশী কিতাব, পরকাল, ফেরেশতা ও নবীগণের প্রতি ঈমান আনার সাথে সাথে অভাবগ্রস্তদের সাহায্যের কথা গুরুত্বতার সাথে বলা হয়েছে। একই সূরার ২৩৭ নম্বর আয়াতে আল্লাহ পাক এরশাদ করেন, ‘তোমরা একে অপরের উপকার করতে ভুল না। নিশ্চয় তোমরা যা কিছু করো আল্লাহ তা দেখেন।’

রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাই সাল্লাম বলেছেন, ‘তোমরা পৃথিবীবাসীর প্রতি দয়া করো। তোমাদের প্রতি আসমানবাসী দয়া করবেন।’ (বুখারি) অন্য এক হাদীসে উল্লেখ হয়েছে, ‘তোমরা ক্ষুধার্তকে খাদ্য দাও, অসুস্থ ব্যক্তির খোঁজখবর নাও, বস্ত্রহীনকে বস্ত্র দাও এবং বন্দীকে মুক্ত করে দাও।’-বুখারি

আবু দাউদ শরীফে উল্লেখ হয়েছে, ‘হে বনী-আদম! যদি উদ্বৃত্ত অর্থ দান করো তাহলে ভালো হবে, আর আটকে রাখলে ক্ষতি হবে’। বুখারী শরীফে এসেছে, ‘মুমিনরা পারস্পরিক ভালোবাসা ও সহযোগিতার ক্ষেত্রে এক দেহের মত। দেহের কোন অঙ্গ আঘাতপ্রাপ্ত হলে পুরো দেহে সে ব্যথা অনুভব করে।’ রাসুল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম অপর হাদীসে বলেছেন, ‘মানুষের কল্যাণ সংশ্লিষ্ট যত কাজ আছে তারমধ্যে সর্বাপেক্ষা শ্রেষ্ঠ ও সর্বোত্তম হল দরিদ্র ও ক্ষুধার্তকে খাবার দান করা।’ তাই জমিয়ত নেতৃবৃন্দ বিত্তশালী, সম্পদশালী ও সামর্থবানদের প্রতি এই দুর্যোগপূর্ণ মুহূর্তে তারা উদারহস্তে করোনায় আক্রান্ত, ক্ষতিগ্রস্ত, দরিদ্র ও অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়ানোর আহ্বান জানাচ্ছেন। যারা বিপদকালীন সময়ে মানুষের পাশে দাঁড়াবেন,এর বিনিময়ে আল্লাহ তায়ালা তাদের উভয় জগতে উত্তম প্রতিদান দান করবেন।

বিবৃতিদাতাগণ হলেন জমিয়তের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মাওলানা জিয়াউদ্দিন, সহ-সভাপতি মাওলান উবায়দুল্লাহ ফারুক, মাওলানা আব্দুর রব ইউসুফী, ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মাওলানা বাহাউদ্দিন যাকারিয়া, মাওলানা আব্দুল বছির সুনামগঞ্জী, মাওলানা আব্দুল কুদ্দুস আরজাবাদ, মাওলানা নাজমুল হাসান কাসেমী, মাওলানা আব্দুল কুদ্দুস মানিকনগর, মাওলানা লোকমান মাজহারী, মাওলানা মতিউর রহমান গাজীপুরী মাওলানা নাসিরউদ্দিন খান, মাওলানা নূর মোহাম্মদ কাসেমী, মাওলানা মুফতি মহিউদ্দিন মাসুম ও মুফতি জাবের কাসেমী প্রমূখ।

এই সংবাদটি 127 বার পঠিত হয়েছে

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

[latest_post][single_page_category_post]

WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com