চন্দ্রনাথ পাহাড় পুরোটি মন্দির নয়, আযান পাহাড়ে দিয়েছে মন্দিরে নয়

প্রকাশিত: ৮:১৬ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ২, ২০২১

চন্দ্রনাথ পাহাড় পুরোটি মন্দির নয়, আযান পাহাড়ে দিয়েছে মন্দিরে নয়

সিলেট রিপোর্ট : পাহাড়ে আযান দাতা দুই মাদরাসা ছাত্রের গ্রেফতারের নিন্দা জানিয়ে তাদের মুক্তির দাবি জানিয়েছেন

ছাত্র জমিয়ত বাংলাদেশের কেন্দ্রীয় সভাপতি এখলাসুর রহমান রিয়াদ। তিনি বলেন, চট্টগ্রামের চন্দ্রনাথ পাহাড় দেশের ভ্রমণপিয়াসী মানুষের অন্যতম পছন্দের এক জায়গা। পাহাড়চূড়ায় প্রতিদিনই আরোহণ করেন অনেক পর্যটক। তেমনই কয়েকদিন পূর্বে সেখানে ভ্রমণ করতে গিয়েছিলো সদ্য কৈশোর পেরোনো কয়েকজন মুসলিম। পাহাড়চূড়ায় উঠেছিলো তারা। প্রায় ১১৫২ ফুট উঁচু পাহাড়ের চূড়ায় উঠে তাদের একজন নামাযের প্রয়োজনে বা আল্লাহর বড়ত্ব প্রকাশে আযান দিয়েছিলো।

তাদের একজনের স্টেট্যাসে স্পষ্ট হয়েছে যে, সে পাহাড়ের চূড়ায় উঠে আযান দিয়েছে। মন্দিরে নয়। চন্দ্রনাথ পাহাড়ে মন্দির আছে, পাহাড়ের পুরো অংশই মন্দির নয়। মনে রাখতে হবে, পাহাড়টির দৈর্ঘ্য প্রায় ৭০ কিলোমিটার। সুতরাং এ দেশের একজন নাগরিক পাহাড়ের একটি অংশে তার ধর্ম পালন বা প্রচার সাংবিধানিকভাবে অপরাধ হতে পারে না। দিগ্বিজয়ী ইসলাম প্রচারকদের কল্যাণেই ইসলাম পেয়েছি আমরা। অতি সাধারণ এক তরুণের ইসলাম প্রচারের আবেগ থেকে পাহাড়ে ইসলামের পতাকা উড্ডীনের ফেসবুক স্টট্যাসকে ফুলিয়ে ফাঁপিয়ে অপপ্রচারের নিন্দা জানাচ্ছি।

গ্রেপ্তারকৃত নিরপরাধ মাদরাসা ছাত্রদের বিরুদ্ধে আনীত মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার করে অবিলম্বে মুক্তি দিন।

ছাত্র জমিয়ত সভাপতি Ekhlasur Rahman Riyad ভাইয়ের টাইমলাইন থেকে।

এই সংবাদটি 214 বার পঠিত হয়েছে

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

[latest_post][single_page_category_post]

WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com